क्षेत्रीय

Blog single photo

পরপর তিনটি বিমান বাতিল, দমদম বিমানবন্দরে যাত্রী বিক্ষোভ

02/12/2019


কলকাতা, ২ ডিসেম্বর (হি.স): সকালে পরপর তিনটি বিমান বাতিল । বাতিল কলকাতা-গুয়াহাটি বিমান, বাতিল কলকাতা-আহমেদাবাদ বিমান, বাতিল কলকাতা-হায়দ্রাবাদ বিমানও । প্রথমে জানানো হয় খারাপ আবহাওয়ার কথা । পরে জানানো হয়, যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে বাতিল উড়ান । দেরিতে বিমান ছাড়বে । আর এতেই কলকাতা বিমানবন্দরে তুমুল বিক্ষোভে ফেটে পড়লেন যাত্রীরা । তীব্র বিশৃঙ্খলা দেখা দেয় দমদম বিমানবন্দরে । বেলা গড়িয়ে গেলেও, অশান্তি সামাল দেওয়া যায়নি । বিমানবন্দরের ভিতরেই যাত্রীদের বিক্ষোভ চলতে থাকে । সবমিলিয়ে, সপ্তাহের প্রথম দিনই উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ল নেতাজি সুভাষ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ।
যাত্রীদের অভিযোগ, ভোর থেকে তিনটি উড়ান বাতিলের জেরে ঘটনার সূত্রপাত ভোর তিনটে পঁয়তাল্লিশ নাগাদ। ওই সময়ে গো-এয়ার সংস্থার হায়দরাবাদগামী একটি বিমান উড়ানের কথা ছিল । কিন্তু বিমানবন্দরে নির্দিষ্ট সময়ে পৌঁছে যাত্রীদের কানে আসে যে খারাপ আবহাওয়ার জন্য বিমানটি বাতিল হয়েছে । তখন থেকেই তাঁদের মধ্যে অসন্তোষ দানা বাঁধছিল । এরপর ফের ঘোষণা করা হয়, সকাল দশটা নাগাদ বিমান উড়বে । কিন্তু দশটার কিছু পরেই ঘোষণা করা হয় উড়ান বাতিল করা হয়েছে । এতেই বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন যাত্রীরা । পরবর্তী সময়ে ৬ টা ৫৮ নাগাদ আমেদাবাদগামী এবং ৭ টা ২৮এর গুয়াহাটিগামী বিমানও পরপর বাতিল ঘোষণা করে বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ । ঘোষণা করা হয় যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে গুয়াহাটির বিমান বাতিল করা হয়েছে । এতে একেবারে আগুনে ঘি পড়ে । তিনটি বিমানের প্রায় আড়াইশো থেকে তিনশো জন যাত্রী ক্ষোভে ফেটে পড়েন । কীভাবে তাঁরা গন্তব্যে পৌঁছবেন, টিকিটের কী হবে তাঁদের নানা প্রশ্নে জর্জরিত হয়ে পড়ে দমদম বিমানবন্দরের কর্মীরা ।
যাত্রীদের অভিযোগ, কোনও কিছুই সঠিক ভাবে বলা হচ্ছে না । পাশাপাশি, কিসের জন্য টিকিট বাতিল করা হয়েছে তাও স্পষ্ট স্পষ্ট করে বলুক বিমান পরিবহন সংস্থা । এমনটাই দাবি যাত্রীদের । বিমান সংস্থা গো-এয়ারের তরফে জানানো হয়, আভ্যন্তরীণ কয়েকটি কারণে তাঁদের তিনটি বিমান বাতিল করতে বলা হয়েছে । এমনকী তাঁরাও এও জানায় যে চাইলে যাত্রীরা অন্য বিমানে গন্তব্যে যেতে পারেন এবং সেখানে টিকিটের টাকাও সেক্ষেত্রে ফেরত দিয়ে দেওয়া হবে ।
কিন্তু যাত্রীরা এই প্রস্তাব মানতে চান না । তাঁদের বিক্ষোভের জেরে বেলা গড়িয়ে যায় । বারোটা নাগাদ প্রথম বিমানটি হায়দরাবাদের উদ্দেশে রওনা দেয় । আমেদাবাদ ও গুয়াহাটিগামী দুটি বিমান দুপুর তিনটে নাগাদ ছাড়া হয় । সূত্রের খবর, বিমান সংস্থার কর্মীদের ডিউটি রস্টার নিয়ে কোনও সমস্যা হওয়ায় তিনটি বিমান বাতিল করতে হয়েছে । তবে দুপুর নাগাদ পরিস্থিতি সামাল দিতে সমর্থ হন তাঁরা ।

হিন্দুস্থান সমাচার / হীরক


 
Top