क्षेत्रीय

Blog single photo

বরাতের তুলনায় সামগ্রি মিলেছে অনেক কম, দাবি রাজ্যের স্বাস্থ্য দফতরের

06/04/2020

কলকাতা, ৬ এপ্রিল (হি. স.) :  করোনাভাইরাসের মোকাবিলায় পর্যাপ্ত সামগ্রি মিলছে না। সোমবার নবান্ন থেকে সরকারিভাবে যে তথ্য সাংবাদিকদের জানানো হয়েছে, তাতে এটাই প্রমাণিত হল। 
নবান্নের তরফে সোমবার জানানো হয়, ১১ লক্ষ বিশেষ পোষাক অর্থাৎ পিপিই চাওয়া হয়েছিল। সেখানে পাওয়া গিয়েছে ২০ শতাংশের সামান্য বেশি— মাত্র দু লক্ষ ৬০ হাজার ১০০। ঘাটতি ৮ লক্ষ ৯২ হাজার ৯০০। এন ৯৫ মাস্ক চাওয়া হয়েছিল সাত লক্ষ ৯২ হাজার সেখানে পাওয়া গিয়েছে ১০ শতাংশেরও কম— মাত্র ৭৮ হাজার ৭৫০। অর্থাৎ বকেয়া  ৭১৩১৫০।  টু লেয়ার মাস্ক চাওয়া হয়েছিল ৪ লক্ষ ২০ হাজার। পাওয়া গিয়েছে ৩ লক্ষ ৭৮ হাজার ৫৫০।  এক্ষেত্রে ঘাটতির পরিমাণ ৪১ হাজার ৪৫০। থ্রি লেয়ার মাস্ক চাওয়া হয়েছিল ৮ লক্ষ ৩০ হাজার।  পাওয়া গিয়েছে ৩ লক্ষ ৫৫ হাজার, অর্থাৎ ঘাটতি ৮১ হাজার। হ্যান্ড স্যানিটাইজার চাওয়া হয়েছিল ৮৮,০০৫। সেখানে পাওয়া গিয়েছে অর্ধেকেরও কম ৪১,২৫১ লিটার, অর্থাৎ ঘাটতি ৪৬ হাজার ৩৪৯ লিটার। থার্মাল গান চাওয়া হয়েছিল ২০ হাজার। পাওয়া গিয়েছে মাত্র এক চতুর্থাংশ ৫ হাজার। অর্থাৎ ঘাটতি ১৫, হাজার। 

এটাও জানানো হয়েছে এই হিসাব স্বাস্থ্য দফতরের। রাজ্যের অন্য বিভাগ এই সব পেয়েছে কিনা হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে পাঠানো বার্তায় তা জানা যায়নি।  সাংবাদিকরা জানতে চান, এই বরাত কি রাজ্যের তরফে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে পাঠানো এবং সেখান থেকে প্রাপ্ত সামগ্রির? সন্ধ্যা সাতটা পর্যন্ত এর কোনও উত্তর নবান্ন সূত্রে দেওয়া হয়নি। হিন্দুস্থান সমাচার/ অশোক


 
Top