क्षेत्रीय

Blog single photo

করোনায় জেরে থমকে 'বাংলার গর্ব মমতা'

05/04/2020


কলকাতা, ৫ এপ্রিল (হি.স.): বিধানসভা ভোট কে পাখির চোখ ধরে বাংলার গর্ব মমতা কর্মসূচি শুরু করেছিল তৃণমূল। কিন্তু মাঝপথে এই করোনা আতঙ্কের জেরে থমকে গিয়েছে সেই কর্মসূচি। এই কর্মসূচির নিয়ম অনুযায়ী সাধারণ মানুষের ঘরে ঘরে গিয়ে জনসংযোগ বাড়ানোর কথা ছিল দলীয় কর্মীদের। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতির যে অবস্থা তাতে সাধারণ মানুষের ঘরে যাওয়া তো দূরের কথা নিজের বাড়ি থেকে বেরোনো দুস্কর হয়ে উঠেছে। ফলে তৃণমূলের জনসংযোগকে ভর করে যেটুকু এগুলোর কথা ছিল করোনার জন্য তা শুরু হওয়ার আগেই থমকে গেল। এতে আখেরে বিজেপির খানিকটা লাভ হল বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল।
 ঘাসফুল শিবিরের পরামর্শদাতা প্রশান্ত কিশোরের মস্তিষ্কপ্রসূত এই কর্মসূচিতে ভর করে আসন্ন পুরভোট এবং আগামী বছরের বিধানসভা ভোটে বাজিমাত করতে চেয়েছিল তৃণমূল। সেইমতো তহবিল থেকে প্রচুর পরিমাণে টাকা খরচ করে ফ্লেক্স পোস্টার ব্যানার হোর্ডিং তৈরি হয়েছে। সেগুলি লাগানো হয়েছে যথাস্থানে। কিন্তু আসল জায়গাতেই থমকে যেতে হল তাদের। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার জন্য এবং করোনার সংক্রমণ যাতে না ছড়ায় সেই কারণে আপাতত স্থগিত বাংলার গর্ব মমতা কর্মসূচি। তবে আশা করা যায় লকডাউন উঠলেই খুব শীঘ্রই এই নিয়ে ফের বৈঠকে বসবে তৃণমূল . তবে পাকাপাকিভাবে কবে থেকে আবার পুনরায় এই কর্মসূচি চালু হবে সে বিষয়ে অনিশ্চিত দল। পর্যবেক্ষকদের মতে যে উত্তেজনা নিয়েই কর্মসূচি চালু হয়েছিল মাঝপথে তা থমকে যাওয়ায় দলীয় কর্মীদের মনে খানিকটা হতাশা দেখা দিতে পারে। 
 তবে এই লক ডাউন এর আবহকেও জনসংযোগে কাজে লাগাতে চাইছে ঘাসফুল শিবির। ত্রাণ দেওয়ার মাধ্যমে সাধারণ মানুষের যথাসম্ভব কাছাকাছি পৌঁছাতে চাইছে তারা। বুঝে নিতে চাইছে সাধারণ মানুষের তাদের প্রতি ধারণা কিরূপ। কিন্তু এই ত্রাণ দেওয়া নিয়েও শুরু হয়েছে রাজনৈতিক তরজা। বিজেপি আঙ্গুল তুলেছে ত্রাণ দেওয়ার সময় মানুষের জমায়েতের দিকে। মুখ্যমন্ত্রী যখন একদিকে সামাজিক দূরত্ব অবলম্বন করার কথা বলছেন ঠিক তখনই তার অনুগামীরা সেই নিয়ম ভেঙে ত্রাণ দেওয়ার জন্য জমায়েত করছেন এমনই অভিযোগ করছেন শাসক বিরোধী দল।

 হিন্দুস্থান সমাচার/মৌসুমী  


 
Top