ट्रेंडिंग

Blog single photo

মাঝ সমুদ্রে মার্কিন ট্যাংকার থেকে জ্বালানি নিল ভারতীয় যুদ্ধজাহাজ

15/09/2020


নয়াদিল্লি, ১৫ সেপ্টেম্বর (হি. স.): দক্ষিণ এশিয়ার ভূ-রাজনীতিতে তৈরি হওয়া সঙ্কটের মুহূর্তে ভারতের পাশে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র যে রয়েছে তার প্রমাণ মিলল।উত্তর আরব সাগরে ভারতীয় নৌসেনার যুদ্ধজাহাজ আই এন এস তলোয়ারকে জ্বালানি তেল দিয়ে সাহায্য করল মার্কিন নৌসেনার তেলের ট্যাংকার।দুই দেশের মধ্যে হওয়া লজিস্টিক এক্সচেঞ্জ মেমোরেন্ডাম অব এগ্রিমেন্ট লেমোয়া অনুযায়ী এই সাহায্য করেছে মার্কিন নৌসেনা। এতে করে দুই দেশের সামরিক ক্ষেত্রে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার চিত্র ফুটে উঠেছে।
আগামী দিনে ভারত এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র একে অন্যের সামরিক ঘাঁটিও ব্যবহার করবে বলে জানা গিয়েছে।এই প্রসঙ্গে ভারতীয় নৌসেনার মুখপত্রের তরফ থেকে জানানো হয়েছে ২০১৬ সালে ভারত এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র্রের মধ্যে লজিস্টিক এক্সচেঞ্জ মেমোরেন্ডাম অব এগ্রিমেন্ট লেমোয়া চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। সেই চুক্তি অনুযায়ী মেরামতি এবং  পরিষেবা সংক্রান্ত বিষয় দুই দেশের তিন বাহিনী একে অন্যের সামরিক ঘাঁটি ব্যবহার করতে পারবে।ভারত ঠিক একই ধরনের চুক্তি ফ্রান্স, সিঙ্গাপুর এবং অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে করেছে। ভারতের এমন কূটনৈতিক এবং সামরিক পদক্ষেপের ফলে আরব সাগরীয় অঞ্চলে পাকিস্তানের প্রভাব যে কিছুটা হলেও কমবে তা বলাই বাহুল্য। 
এখানে উল্লেখযোগ্য বিষয় হলো আরব সাগরে এর আগে পাকিস্তান এবং চিনা নৌসেনা যৌথভাবে টহল দেওয়ার নজির রয়েছে। সম্প্রতি পাকিস্তান এবং চিনের রক্তচাপ বাড়িয়ে ভারত একই ধরনের চুক্তি জাপানের সঙ্গেও করেছে। ২০১৮ সালে ভারত সামরিক ক্ষেত্রে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ চুক্তি স্বাক্ষরিত করেছিল। সেই চুক্তির নাম ছিল কমিউনিকেশন, কম্প্যাটিবিলিটি অ্যান্ড সিকিউরিটি।  এই চুক্তির অনুসারে দুই দেশ সামরিক পর্যায় এক সঙ্গে সহযোগিতার পরিসর বৃদ্ধি করবে এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ভারতকে প্রযুক্তিগত সহায়তা করবে। বর্তমান পরিস্থিতিতে এই চুক্তিগুলো ভারতের ওপর আশীর্বাদ হিসেবে বর্ষিত হবে বলে মনে করছে সামরিক বিশেষজ্ঞরা।
 হিন্দুস্থান সমাচার / শুভঙ্কর   


 
Top