ट्रेंडिंग

Blog single photo

শিখ-বিরোধী দাঙ্গা মামলা : জেলেই থাকতে হবে সজ্জনকে, হোলির পর শুনানি

14/02/2020

নয়াদিল্লি, ১৪ ফেব্রুয়ারি (হি.স.): শিখ-বিরোধী দাঙ্গা মামলায় (১৯৮৪) সুপ্রিম কোর্টে স্বস্তি পেলেন না প্রাক্তন কংগ্রেস নেতা সজ্জন কুমার| আপাতত জেলেই থাকতে হবে সজ্জন কুমারকে| ১৯৮৪ শিখ-বিরোধী দাঙ্গা মামলায় জামিনের আবেদন নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের শরণাপন্ন হয়েছিলেন প্রাক্তন কংগ্রেস নেতা সজ্জন কুমার| কিন্তু, এখনই সজ্জন কুমারের জামিনের আবেদনের শুনানি হবে না সর্বোচ্চ আদালতে| শীর্ষ আদালত জানিয়েছে, হোলির ছুটির পরই সজ্জনের জামিনের আবেদনের শুনানি হবে|
১৯৮৪ শিখ-বিরোধী দাঙ্গা মামলায় এই মুহূর্তে জেলবন্দি রয়েছেন প্রাক্তন কংগ্রেস নেতা সজ্জন কুমার| সজ্জন কুমারের আইনজীবী বিকাশ সিং মুখবন্ধ খামে সুপিম কোর্টে মেডিক্যাল রিপোর্ট জমা দিয়ে জানিয়েছেন, সজ্জন কুমারের ওজন ১৩ কিলোগ্রাম কমে গিয়েছে| সজ্জনের আইনজীবীর বক্তব্য শোনার পর সুপ্রিম কোর্ট জানিয়েছে, হোলির ছুটির পরই জামিনের আবেদনের শুনানি হবে| প্রসঙ্গত, এর আগেও সজ্জন কুমারকে জামিন দিতে অস্বীকার করেছিল সুপ্রিম কোর্ট| সিবিআই-ও সজ্জন কুমারের জামিনের আবেদনের বিরোধিতা করেছিল| সিবিআই জানিয়েছিল, সজ্জন কুমারের বিরুদ্ধে অপরাধ প্রমাণিত হয়েছে| অপর মামলার শুনানি চলছে|
উল্লেখ্য, ১৯৮৪ সালের ৩১ অক্টোবর প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীকে খুন করে তাঁর শিখ দেহরক্ষীরা| তার পরেই দেশজুড়ে শিখ সম্প্রদায়ের উপরে হামলা শুরু হয়| সজ্জন কুমার, জগদীশ টাইটলার-সহ একাধিক কংগ্রেস নেতা সেই হামলায় নেতৃত্ব দিয়েছিলেন বলে অভিযোগ ওঠে| ১৯৮৪ সালের ১ নভেম্বর দিল্লির রাজনগর এলাকায় একটি শিখ পরিবারের পাঁচজন সদস্যকে খুন করা ও একটি গুরুদ্বারে অগ্নিসংযোগের ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগও আনা হয় সজ্জন কুমারের বিরুদ্ধে|

হিন্দুস্থান সমাচার| রাকেশ|


 
Top