Hindusthan Samachar
Banner 2 गुरुवार, नवम्बर 22, 2018 | समय 15:55 Hrs(IST) Sonali Sonali Sonali Singh Bisht

হলদিয়ায় গৃহবধুর অস্বাভাবিক মৃত্যু, চাঞ্চল্য

By HindusthanSamachar | Publish Date: Nov 6 2018 12:08PM
হলদিয়ায় গৃহবধুর অস্বাভাবিক মৃত্যু, চাঞ্চল্য
হলদিয়া (পূর্ব মেদিনীপুর), ৬ নভেম্বর (হি.স): গৃহবধূর অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে পূর্ব মেদিনীপুরের হলদিয়ার ভবানীপুর থানার দেভোগ এলাকায়। মৃত গৃহবধূর নাম হল, আনু বেগম (১৬)। এই ঘটনায় মৃতার বাপের বাড়ির তরফে দাবি, তাঁদের মেয়েটিকে খুন করেছে তাঁর স্বামী-সহ শ্বশুরবাড়ির লোকেরা। তবে এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত ভবানীপুর থানায় কোনও লিখিত অভিযোগ করেনি বলেই জানিয়েছেন ওসি গোপাল পাঠক। তিনি বলেন, গৃহবধূকে হলদিয়া হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। এই ঘটনায় দুর্গাচক থানা ইতিমধ্যে একটি অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা শুরু করেছে। তবে, ভবানীপুর থানায় অভিযোগ এলে তার তদন্ত হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি। স্থানীয় সূত্রের খবর, তমলুকের শিমুলিয়ার বাসিন্দা নাবালিকা আনু প্রেম করে বাড়ি থেকে পালিয়ে এসে বিয়ে করে দেভোগের বাসিন্দা সেখ সাদ্দামের সঙ্গে। বিয়ের পর তাঁদের একটি পুত্র সন্তানও হয়। কিন্তু, সাদ্দামের পরিবার দীর্ঘদিন ধরেই টাকার দাবিতে মেয়েটির ওপরে অত্যাচার চালাত বলে অভিযোগ। মৃতের মা নাজমা বিবির অভিযোগ, গত কয়েকদিন ধরেই মেয়েটিকে তাঁর বাপের বাড়ি থেকে ১ লক্ষ আনার জন্য চাপ দেওয়া হচ্ছিল। কিন্তু, সেই টাকা দিতে অপারগ হওয়ায় মেয়েটির ওপরে অত্যাচারের মাত্রা বেড়ে যায়। এরপর এক আত্মীয়র মারফৎ তাঁরা খবর পান তাঁদের মেয়ের মৃত্যু হয়েছে। তড়িঘড়ি ছুটে আসেন তাঁরা। নাজমা বিবির অভিযোগ, তাঁর মেয়েকে মেরে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে। পরে স্থানীয় এক চিকিৎসক ডেকে তাঁকে পরীক্ষাও করানো হয়। অবশেষে মৃত নিশ্চিত জেনে সন্ধ্যের পর দেহটিকে হলদিয়া হাসপাতালে রেখে আসে তাঁরা। এই মুহূর্তে হলদিয়া মহকুমা হাসপাতালে দেহটির ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। এই ঘটনায় মৃতের স্বামী সেখ সাদ্দাম, শাশুড়ি, দেওর ও দুই ননদের বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ এনেছেন নাজমা বিবি। অভিযুক্তদের গ্রেফতার করে কঠোর শাস্তির দাবিও জানিয়েছেন তাঁরা। হিন্দুস্থান সমাচার/অসিত/ রাকেশ
image