Hindusthan Samachar
Banner 2 शनिवार, नवम्बर 17, 2018 | समय 09:56 Hrs(IST) Sonali Sonali Sonali Singh Bisht

নাবালিকা বধূকে খুনের অভিযোগ প্রভাবশালী শ্বশুরবাড়ির বিরুদ্ধে

By HindusthanSamachar | Publish Date: Nov 7 2018 6:32PM
নাবালিকা বধূকে খুনের অভিযোগ প্রভাবশালী শ্বশুরবাড়ির বিরুদ্ধে
মেদিনীপুর, ৭ নভেম্বর (হি.স.) : পাঁচ বছর আগে তমলুকের বাসিন্দা নাবালিকা মেয়ে অনু খাতুনকে ফুঁসলিয়ে বিয়ে করেছিল ধনী পরিবারের ছেলে পূর্ব মেদিনীপুরের দেভোগ গ্রামের সেখ সাদ্দাম ৷ গরীব মেয়ের বাবা-মা মেনে নিয়েছিলেন পরে ৷ এক ছেলে হওয়ার পরে ওই নাবালিকার ওপরে শুরু হয় অত্যাচার ৷মোটা টাকা পণ দাবি করে না পাওয়াতে ওই নাবালিকাকে মেরে শ্বাসরোধ করে খুন করার অভিযোগ উঠেল শ্বশুর বাড়ির বিরুদ্ধে ৷ পুলিশে অভিযোগ করলেও নাকি নেয়নি পদক্ষেপ ৷ অগত্যা প্রভাবশালী ছেলের পরিবারের প্রভাব এড়িয়ে সঠিক তদন্তের জন্য পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে মেয়ের দেহ ময়নাতদন্ত করাল মা-বাবা৷ তাঁদের দাবি- ধনী হওয়ায় প্রভাব খাটিয়ে পুলিশকে নিষ্কৃয় করেছে ৷ ময়নাতদন্তের রিপোর্টও বিকৃত করতে পারে ৷ তাই প্রকৃত তদন্ত ও শাস্তির দাবিতে এই পদক্ষেপ৷ সোমবার সন্ধ্যে নাগাদ পূর্ব মেদিনীপুরের হলদিয়ার ভবানীপুর থানার দেভোগ এলাকায় এক গৃহবধূর অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়। মৃত গৃহবধূর নাম আনু বেগম (১৬)। এই ঘটনায় মৃতার বাপের বাড়ির তরফে দাবী, মেয়েটিকে খুন করেছে তাঁর স্বামী সহ শ্বশুরবাড়ির লোকেরা। আনুর পরিবার জানায়- তমলুকের শিমুলিয়ার বাসিন্দা নাবালিকা আনু বছর ৫ আগে প্রেম করে বাড়ি থেকে পালিয়ে এসে বিয়ে করে দেভোগের বাসিন্দা সেখ সাদ্দামের সঙ্গে। বিয়ের পর তাঁর একটি পুত্র সন্তানও জন্ম হয়। কিন্তু সাদ্দামের পরিবার দীর্ঘদিন ধরেই টাকার দাবীতে মেয়েটির ওপরে অত্যাচার চালাত বলে অভিযোগ।মৃতের মা নাজমা বিবির অভিযোগ, গত কয়েকদিন ধরেই মেয়েটিকে তাঁর বাপের বাড়ি থেকে টাকা আনার জন্য চাপ দেওয়া হচ্ছিল। কিন্তু সেই টাকা দিতে অপারগ হওয়ায় মেয়েটির ওপরে অত্যাচারের মাত্রা বেড়ে যায়।এরপর গত সোমবার রাত ৮টায় আনুর মামা শ্বশুর আনুর বাপের বাড়ীতে খবর দেন যে তাঁদের মেয়ের মৃত্যু হয়েছে। তড়িঘড়ি ছুটে আসেন মা-বাবা সহ পরিজনরা৷ নাজমা বিবির অভিযোগ, তাঁর মেয়েকে খুন করেছে শ্বশুরবাড়ির লোকেরা। আনুর গলায় ছুরি চালানোর দাগও রয়েছে৷সারা শরীরে মারধোরের অসংখ্য দাগ রয়েছে ৷ মেয়েকে শ্বাসরোধ করে খুন করা হয়েছে বলে দাবি তাঁদের ৷বুধবার মেদিনীপুর হাসপাতালে নাজমা বিবি বলেন “স্থানীয় ভবানীপুর থানাতে অভিযোগ করা হয়েছে ৷ ওদের ধনী, তাই পুলিশ কোনো পদক্ষেপ নেয় নি ৷ ময়নাতদন্তেও ভুল রিপোর্ট দিতে পারে ৷ তাই সেখান থেকে সরিয়ে এই জেলাতে তদন্ত করাচ্ছি ৷ আমরা ওদের শাস্তি চাই ৷ ” এই ঘটনায় মৃতের স্বামী সেখ সাদ্দাম, শ্বাশুড়ি, দেওর ও দুই ননদের বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ এনে ভবানীপুর থানায় অভিযোগ জানানো হয়েছে৷ অভিযুক্তদের গ্রেফতার করে কঠোর শাস্তির দাবীও জানিয়েছেন তাঁরা।হিন্দুস্থান সমাচার /হেনা
image