Hindusthan Samachar
Banner 2 शनिवार, नवम्बर 17, 2018 | समय 09:49 Hrs(IST) Sonali Sonali Sonali Singh Bisht

পাকিস্তানের বিরুদ্ধে একদিনের সিরিজের প্রথম ম্যাচে দুরন্ত জয় নিউজিল্যান্ডের

By HindusthanSamachar | Publish Date: Nov 8 2018 11:34AM
পাকিস্তানের বিরুদ্ধে একদিনের সিরিজের প্রথম ম্যাচে দুরন্ত জয় নিউজিল্যান্ডের
আবু ধাবি, ৮ নভেম্বর (হি.স.) : তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজে একতরফা আত্মসমর্পণ করলেও একদিনের সিরিজের শুরুতেই ঘুরে দাঁড়াল নিউজিল্যান্ড৷ সিরিজের প্রথম একদিনের ম্যাচে পাকিস্তানকে ৪৭ রানের ব্যবধানে পরাস্ত করল কিউয়িরা৷ ট্রেন্ট বোল্টের দুরন্ত হ্যাটট্রিকের জেরে পাকিস্তানকে হার মানতে হয়৷ টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে নিউজিল্যান্ড টপ অর্ডারের তিনজন ব্যাটসম্যানকে হারিয়ে বসলেও রস টেলর ও টম লাথামের পার্টনারশিপে ভর করে ম্যাচে ফেরে তারা৷ শেষমেষ নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ২৬৬ রান তুলতে সক্ষম হয় কিউয়িরা৷ জবাবে ব্যাট করতে নেমে পাকিস্তান শুরুতেই আত্মসমর্পণ করে বসে বোল্টের গতি ও নিয়নন্ত্রিত স্যুইংয়ের সামনে৷ প্রাথমিক বিপর্যয় কাটিয়ে সরফরাজ আহমেদ ও ইমদ ওয়াসিমের জুটি পাকিস্তানকে দু’শোর গন্ডি পার করেন৷ তবে বাকিদের হঠকারীতার ফলে পাক দল ৪৭.২ ওভারে ২১৯ রানে অলআউট হয়ে যায়৷ ব্যর্থ হয় সরফরাজের অধিনায়কোচিত ইনিংসও৷ কিউয়ি ইনিংসের শুরুটা মোটেও মনে রাখার মত হয়নি৷ দলগত ৭৮ রানের মধ্যে সাজঘরে ফেরেন ওয়ার্কার (১), মুনরো (২৯) ও ক্যাপ্টেন উিলিয়ামসন (২৭)৷ সেখান থেকে ইনিংসের হাল ধরেন টেলর-লাথাম জুটি৷ চতুর্থ উইকেটে দু’জনে মিলে যোগ করেন ১৩০ রান৷ তবে দলগত ২০৮ রানের মাথায় শাদব খানের একই ওভারে আউট হন লাথাম (৬৯), নিকোলস (০) ও গ্র্যান্ডহোম (০)৷ পরের ওভারে ক্রিজ ছাড়েন টেলর (৮০)৷ শেষ দিকে সাউদি ২০ ও সোধি ২৪ রান করে শাহীন শাহ আফ্রিদির শিকার হন৷ ফার্গুসন ৩ ও বোল্ট ৮ রানে অপরাজিত থাকেন৷ পাকিস্তানের হয়ে আফ্রিদি ও শাদব ৪টি করে উইকেট দখল করেন৷ একটি উিকেট নিয়েছেন ইমদ ওয়াসিম৷ জবাবে পাকিস্তান মাত্র ৮ রানের মধ্যে টপ অর্ডারের তিনজন ব্যাটসম্যানকে খুইয়ে বসে৷ বোল্ট নিজের দ্বিতীয় ওভারের দ্বিতীয়, তৃতীয় ও চতুর্থ বলে যথাক্রমে ফকর (১), বাবর (০) ও হাফিজকে (০) ফিরিয়ে দিয়ে হ্যাটট্রিক করেন৷ ইমাম (৩৪), শোয়েবরা (৩০) পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার চেষ্টা করেও ব্যর্থ৷ সরফরাজ-ইমদ জুটি ১০৩ রানের পার্টনারশিপ গড়েও পাকিস্তানের জয়ের সম্ভাবনা তৈরি করতে ব্যর্থ৷ ইমদ ৫০ ও সরফরাজ ৬৪ রান করে আউট হন৷ বাকিরা খুব বেশিক্ষণ প্রতিরোধ জারি রাখতে পারেনি৷ ফার্গুসন ও বোল্ট উভয়েই তিনটি করে উইকেট নিলেও পাকিস্তানের মাথা ছেঁটে ফেলার সুবাদে ম্যাচের সেরা ক্রিকেটার নির্বাচিত হন বোল্ট৷ হিন্দুস্থান সমাচার/ সঞ্জয়
image