Hindusthan Samachar
Banner 2 सोमवार, नवम्बर 19, 2018 | समय 22:04 Hrs(IST) Sonali Sonali Sonali Singh Bisht

মুখ্যমন্ত্রীর বাসভবনে ভ্রাতৃদ্বিতীয়ার জমজমাট অনুষ্ঠান

By HindusthanSamachar | Publish Date: Nov 9 2018 5:37PM
মুখ্যমন্ত্রীর বাসভবনে ভ্রাতৃদ্বিতীয়ার জমজমাট অনুষ্ঠান
আগরতলা, ৯ নভেম্বর (হি.স.) : ''স্বর্গে হলুস্থুল, মঞ্চে জোগাড়, না-যেও ভাই যমের দুয়ার, যম দুয়ারে পড়লো কাঁটা, ভাইকে দেয় বোন ফোটা''। ২২ কার্তিক ১৪২৫ বাংলা। পঞ্জিকা মতে দ্বিতীয়া তিথি। এই মন্ত্রোচ্চারণের মাধ্যমেই সকাল থেকে ভ্রাতৃদ্বিতীয়ার উৎসব পর্ব শুরু হয়েছে। শুক্রবার ভ্রাতৃ দ্বিতীয়া। আজকের দিনে ভাইয়ের মঙ্গল কামনায় বোনেরা ফোঁটা দিয়ে থাকেন। আর ভাইও বোনদের আশীর্বাদ করে থাকেন বোন যেন সব সময় হাসি-খুশি এবং সুখে-শান্তিতে থাকে। জানা গেছে পঞ্জিকা মতে শুক্রবার সকাল থেকে দ্বিতীয়া লেগে গেছে। অনেকেই প্রথা মোতাবেক প্রতিপদেও ফোঁটা দিয়েছেন।এই তিথিকে ভ্রাতৃদ্বিতীয়া তিথি হিসেবেও পালন করা হয়ে থাকে। হিন্দুশাস্ত্র মতে এদিন বোনেরা ভাইয়ের কপালে চন্দনের ফোঁটা দিয়ে তাঁর দীর্ঘায়ু কামনা করেন। এ উপলক্ষে ত্রিপুরা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লবকুমার দেবের আগরতলার শিশুবিহার এলাকায় সরকারি বাসভবনে ভাইফোঁটার আয়োজন করা হয় এদিন দুপুরে। রাজধানী আগরতলার পাশাপাশি রাজ্যের অন্যান্য জেলা থেকেও বিভিন্ন বয়সি মেয়ে ও মহিলারা মুখ্যমন্ত্রীর বাসভবনে এসে তাঁর কপালে চন্দনের ফোঁটা দিয়ে দীর্ঘায়ু কামনা করেছেন। মুখ্যমন্ত্রীর বাসভবনে ভাইফোঁটা দিতে আসা মহিলারা জানান, দীর্ঘদিন ধরে এই রীতি চলে আসছে। তবে মুখ্যমন্ত্রীর বাসভবনে এই প্রথম ভাইফোঁটার আয়োজন করা হয়েছে। তাঁরা নিজেরা মুখ্যমন্ত্রীর কপালে ফোঁটা দিতে পারায় খুশি। তিনি সমাজের জন্য, বিশেষ করে নারীর জন্য বিশেষ কাজ করছেন বলেও তাঁরা বেশি খুশি। তাই তাঁরা মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবের দীর্ঘায়ু কামনা করছেন। এদিকে মুখ্যমন্ত্রী সংবাদ মাধ্যমকে জানান, এতোগুলো বোন তাঁকে ভাই ভেবে ফোঁটা দিয়ে মঙ্গল কামনা করেছেন তাতে তিনি খুশি। ত্রিপুরা রাজ্যকে সর্বশ্রেষ্ঠ রাজ্য হিসেবে গড়ে তুলতে চান তিনি। সেই সঙ্গে ত্রিপুরাকে মহিলা সংক্রান্ত অপরাধমুক্ত রাজ্য হিসেবে গড়ে তুলতেও চান। এই শুভ দিনে সকল ভাইদের প্রতি মুখ্যমন্ত্রীর আহ্বান, তাঁরা যেন বোনেদের রক্ষার শপথ নেন। ছোট বোনদের আশীর্বাদ করেন এবং বড়দেরকে পায়ে ছুঁয়ে প্রণাম করেন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লবকুমার দেব। এদিকে ভ্রাতৃদ্বিতীয়া উপলক্ষে শুক্রবার সকাল থেকেই বাজারে সাধারণ মানুষের ভিড় লক্ষ করা গেছে। বিশেষ করে মিষ্টির দোকান, মাংসের দোকান এবং মাছের দোকানে। হিন্দুস্থান সমাচার / নবেন্দু / এসকেডি
image