Hindusthan Samachar
Banner 2 रविवार, मार्च 24, 2019 | समय 07:31 Hrs(IST) Sonali Sonali Sonali Singh Bisht

সিএবি পাশ এবং ছয় জনজাতিকে স্বীকৃতি প্রদানে নিজেকে প্রকৃত অসমিয়া ভাবছেন আজ, মোদীকে ধন্যবাদ জানিয়ে মন্ত্রী হিমন্তবিশ্ব

By HindusthanSamachar | Publish Date: Jan 8 2019 9:10PM
সিএবি পাশ এবং ছয় জনজাতিকে স্বীকৃতি প্রদানে নিজেকে প্রকৃত অসমিয়া ভাবছেন আজ, মোদীকে ধন্যবাদ জানিয়ে মন্ত্রী হিমন্তবিশ্ব
গুয়াহাটি, ৮ জানুয়ারি, (হি.স.) : ছয় জনগোষ্ঠীকে জনজাতির স্বীকৃতি সংক্রান্ত বিল অনুমোদন করায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং তাঁর নেতৃত্বাধীন সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন অসমের অর্থ-স্বাস্থ্য পূর্তমন্ত্রী তথা নেডা-র আহ্বায়ক ড. হিমন্তবিশ্ব শর্মা। প্রথমে নিজের ট্যুইট হ্যান্ডলে প্রধানমন্ত্রী মোদীকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে মন্ত্রী বলেছিলেন, কেন্দ্ৰীয় সরকারের এই সিদ্ধান্ত এবার প্রকৃত অর্থেই অসমের জাতি-মাটি-ভিটে সুরক্ষিত হবে। আজ তিনি একজন প্রকৃত অসমিয়া বলে নিজেকে মনে করছেন। অসমিয়াদের অস্তিত্ব রক্ষাকারী যুগান্তকারী বিল পাশ এবং ছয় জনজাতিকে স্বীকৃতি প্রদানের ঘটনায় তিনি গর্বিত, প্রচণ্ড সুখানুভূতি লাভ করছেন আজ। এর পর সাংবাদিকদের মুখোমুখি হলে তিনি বলেন, আজ অসমের জন্য এক ঐতিহাসিক দিন। একই দিন নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পাশ হয়েছে, পাশাপাশি অসমের ছয় জনগোষ্ঠী মরান, মটক, তাই আহোম, চুতিয়া, কোচ-রাজবংশী এবং ৩৬টি চা জনগোষ্ঠীকে আদিবাসীর স্বীকৃতিতে অনুমদোন জানিয়েছে কেন্দ্ৰীয় সরকার। এছাড়া অসম চুক্তির ৬ নম্বর দফাকে সাংবিধানিক মৰ্যাদা প্ৰদান করে এক ঐতিহাসিক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন প্ৰধানমন্ত্ৰী। এর মাধ্যমে মোদী অসমকে খিলঞ্জিয়া (ভূমিপুত্র)-দের এক অভেদ্য দুৰ্গে পরিবৰ্তন করেছেন বলে মন্তব্য করেছেন মন্ত্ৰী হিমন্তবিশ্ব শর্মা। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী মোদী আজ বুঝিয়ে দিয়েছেন, অসমের প্রতি বিজেপি সরকারের দায়বদ্ধতা কতটা, আজ তা ফের একবার প্ৰতীয়মান হল। সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে মন্ত্রী শর্মা আরও বলেন, নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের দ্বারা অসমের অস্তিত্ব রক্ষা হবে। রাজ্যের ১৭–১৮টি বিধানসভা এলাকা অসমিয়াদের হাতে থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন প্রধানমন্ত্রী। এই বিল পাশ করার ফলে বদরউদ্দিন আজমল, জিন্নাদের হাতে যাওয়া থেকে রক্ষা পেয়েছে ১৭–১৮টি বিধানসভা নির্বাচন এলাকা। আজ মোদী যদি এই দৃঢ় পদক্ষেপ না নিতেন তা হলে বেশি নয় এক বছর পর কিংবা ২০২১ সালে বদরউদ্দিন আজমল মুখ্যমন্ত্ৰী অসমের মুখ্যমন্ত্রী হতেন। সে থেকে অসমকে বাঁচিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী, বলেন মন্ত্ৰী হিমন্তবিশ্ব শর্মা। হিমন্তবিশ্বের ব্যাখ্যা, এই ১৭–১৮টি বিধানসভা এলাকায় আট লক্ষ হিন্দু বাঙালি রয়েছেন। তাঁদের মধ্যে ভোটাধিকার রয়েছে পাঁচ লক্ষের। এই সব হিন্দু বাঙালিরা যদি অসমিয়াদের ভোট না দিতেন তা হলে আজমলের দখলে চলে যেত ওই সব এলাকা। এ কথা বলে তিনি বাঙালি বিরোধীদের কড়া বার্তা দেওয়ার চেষ্টা করেছেন। প্রসঙ্গক্রমে তিনি বলেন, অসম চুক্তি করে যে ভুল অগপ করেছিল, সেই একই ভুলের পুনরাবৃত্তি করে আজ আরও এক ভুল করেছে আঞ্চলিক দল অসম গণ পরিষদ (অগপ)। এক প্রশ্নের উত্তরে সটান মন্তব্য মন্ত্রী হিমন্তবিশ্বের, হ্যাঁ, ধৰ্মের ভিত্তিতে আমরা নাগরিকত্ব দেব-ই। তাতে ভুল কী? ধৰ্মের ভিত্তিতেই-তো সরভোগে দলের প্রদেশ সভাপতি রঞ্জিত দাস, জাগিরোডে পীযূষ হাজরিকা, মঙলদৈয়ে গুরজ্যোতিরা বিধায়ক হতে পারছেন। নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের বিরুদ্ধাচরণকারী বুদ্ধিজীবীদেরও ছেড়ে কথা বলেননি তিনি। বলেন, হীরেন গোহাঁই কে, তিনি তো অসম আন্দোলনেরও বিরোধিতা করেছিলেন। হীরেন গোহাঁইকে তাঁর (হিমন্তবিশ্ব) সঙ্গে এসে দু মিনিট বিতর্কে বসার আহ্বান জানিয়ে বলেন, আমি প্রমাণ করে দেব তিনি কার হয়ে কাজ করছেন। আসু সম্পর্কে বলেন, ছাত্র সংগঠনটি অযথা প্ৰতিবাদ করছে। অসম চুক্তির ৫ নম্বর দফা রূপায়ণের জন্য দাবির কোনও অৰ্থ নেই, বলেন মন্ত্রী হিমন্তবিশ্ব শর্মা। হিন্দুস্থান সমাচার / এসকেডি/ কাকলি
लोकप्रिय खबरें
फोटो और वीडियो गैलरी
image