Hindusthan Samachar
Banner 2 शनिवार, जनवरी 19, 2019 | समय 20:22 Hrs(IST) Sonali Sonali Sonali Singh Bisht

মোষ চুরি করে পালানোর সময় হাতেনাতে পাকড়াও চোর

By HindusthanSamachar | Publish Date: Jan 9 2019 6:53PM
মোষ চুরি করে পালানোর সময় হাতেনাতে পাকড়াও  চোর
ঝাড়্গ্রাম, ৯ জানুয়ারি ( হি. স.) : মোষ চুরি করে পালানোর সময় চোরকে হাতেনাতে পাকড়াও করল গ্রামবাসী। পরে গ্রামবাসীরা থানায় লিখিত অভিযোগ জানাতে গেলে প্রথমে অভিযোগ করে নেয়নি বলে অভিযোগ তোলেন বাসিন্দারা। পরে সারারাত গাড়ি ও গাড়ির চালককে আটকে রাখেন গ্রামবাসীরা। বুধবার সকালে ঘটনার খবর পেয়ে সাঁকরাইল থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছালে পুলিশকে আটকে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন বাসিন্দারা। দীর্ঘ সময় ধরে বিক্ষোভ দেখানো পর ঝাড়্গ্রাম ডিএসপি সাইমন তামাং এর নেতৃত্বে বিশাল পুলিশ বাহিনী ঘটনাস্থলে গিয়ে বিক্ষোভকারীদের সাথে কথা বলে সমস্যার সমাধান করেন। এই ঘটনায় তিনজন ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পুলিশ জানিয়েছে ধৃত তিনজনের বাড়ি ওই থানা এলাকার পকটিয়া গ্রামে।ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার রাত ঝাড়্গ্রাম জেলার সাঁকরাইল ব্লকের বেনাগেড়িয়া গ্রামে। পুলিশ স্থানীয় সুত্রে জানা গিয়েছে এদিন রাতে বেনাগেড়িয়া গ্রামের বাসিন্দা বুধু মালের বাড়ি থেকে মোষ চুরি করে নিয়ে পালিয়ে যায়। সেই সময় বুধু বাবুর পরিবারের লোকজনেরা জানতে পারেন বাড়িতে চোর ঢুকেছে। কিন্তু বাইরের দিকে চোরেরা শিকল লাগিয়ে দেওয়ায় বাড়ি থেকে বাইরে বেরিয়া আসতে পারেনি বুধু বাবুর পরিবারের লোকজনেরা। পরে বাড়ির ভেতর থেকে দরজা ভেঙ্গে বাইরে বেরিয়ে চিৎকার চেঁচামেচি করতে পাশাপাশি লোকজনেরা এসে উপস্থিত হয়। এরপরেই চোরেদের তাড়া করলে গ্রামের পাশা একটি জঙ্গল লাগুয়া এলাকায় গাড়িটিকে রেখে চোরেরা পালিয়ে যায়। তবে চোরের দল পালিয়ে গেলেও গাড়ির চালাক ও মোষ গুলকে নিয়ে যেতে পারেনি। বাসিন্দারা গাড়ির সহ গাড়িকে উদ্ধার করে প্রথমে গ্রামে নিয়ে আসেন। তারপর ওই দিন রাতেই সাঁকরাইল থানায় অভিযোগ জানাতে গেলে অভিযোগ নেয়নি বলে অভিযোগ বাসিন্দাদের। এরপরেই ক্ষুব্ধ বাসিন্দারা সারারাত একটি স্কুল ঘরের মধ্যে গাড়ির চালক ও গাড়িটিকে আটক করে রাখেন। পরদিন সকালে গাড়ির মালিক খবর পেয়ে বেনাগেড়িয়া গ্রামে গাড়িটিকে উদ্ধার করতে গেলে তাঁকে ধরে আটক করে বাসিন্দারা। এরপর খবর পৌছায় সাঁকরাইল থানায়। পুলিশ খবর পেয়ে গ্রামে পৌছাতেই ক্ষোভে ফেটে পড়েন বাসিন্দারা। পুলিশকে আটক করে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন তাঁরা। এদিকে পুলিশ পরিস্থিতির বেগতি বুঝে খবর দেন ঝাড়্গ্রামের ডিএসপিকে। পরে ডিএসপি বিশাল পুলিশ বাহিনী নিয়ে গিয়ে পরিস্থিতির সামাল দেন। এই ঘটনায় গাড়ির মালিক ও চালক সহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তাদেরকে জিজ্ঞাসা করে চোরেদের চক্রের হদিস পাওয়ার চেষ্টা করছে পুলিশ। স্থানীয় সুত্রে জানা গিয়েছে বেনাগেড়িয়া সহ পাশাপাশি এলাকায় বেশ কয়েকমাস ধরে চুরির ঘটনা ঘটেছে। কখনও দোকানের সাটার ভেঙে দোকান চুরি আবার কখনও বা গৃহস্থের বাড়ি থেকে হাল মোষ চুরি করে নিয়ে চম্পট দিচ্ছিল চোরের দল। এবিষয়ে ঝাড়্গ্রামের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বিশ্বজিত মাহাত বলেন, " বেনাগেড়িয়া গ্রাম থেকে মোষ চুরি করে পালানোর সময় হাতেনাতে ধরে ফেলেছিল বাসিন্দারা। তাদেরকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। বাকি চোরেদের খোঁজে তল্লাশি অভিযান শুরু করেছে পুলিশ।" হিন্দুস্থান সমাচার / গোপেশ
image