Hindusthan Samachar
Banner 2 शनिवार, जनवरी 19, 2019 | समय 20:19 Hrs(IST) Sonali Sonali Sonali Singh Bisht

লামডিং-শিলচর রেলওয়ে ট্র্যাক পর্যবেক্ষণে উপূসী রেলের অফিসার আগরওয়ালা

By HindusthanSamachar | Publish Date: Jan 9 2019 7:17PM
লামডিং-শিলচর রেলওয়ে ট্র্যাক পর্যবেক্ষণে উপূসী রেলের অফিসার আগরওয়ালা
হাফলং (অসম), ৯ জানুয়ারি, (হি.স.) : লামডিং-শিলচর ব্রডগেজ রেলপথের মাহুর থেকে দাওটুহাজা পর্যন্ত রেলওয়ে ট্র্যাক পর্যবেক্ষণ করতে উত্তরপূর্ব সীমান্ত রেলের চিফ সেফটি অফিসার এমকে আগরওয়ালা হাফলং এসেছেন। বুধবার উত্তরপূর্ব সীমান্ত রেলের চিফ সেফটি অফিসার হাফলং থেকে মাহুরে উপস্থিত হয়ে সেখান থেকে দাওটাহাজা পর্যন্ত অংশের রেলওয়ে ট্র্যাকের নিরাপত্তার দিকটি খতিয়ে দেখেন। কারণ মাহুর-ফাইডিঙের মধ্যবর্তী স্থান ধসপ্রবণ এলাকা। তাছাড়া দাওটুহাজার ৭৭ কিলোমিটার অংশে কয়েকবার মালগাড়ি ও যাত্রীবাহী ট্রেন লাইনচ্যুতও হয়েছিল। কেন ওই একই জায়গায় ট্রেন বার-কয়েক লাইনচ্যুত হয়েছে সে বিষয়টি খতিয়ে দেখতে এসেছেন এমকে আগরওয়ালা এবং রেলের শীর্ষ অফিসাররা। মূলত ট্র্যাকে কোনও সমস্যা রয়েছে কি না এবং যাত্রীদের নিরাপত্তার দিকটি পর্যবেক্ষণ করেন চিফ সেফটি অফিসার। যাত্রী নিরাপত্তার বিষয়টি সর্বাগ্রে নজর রাখছে উত্তরপূর্ব সীমান্ত রেল। কারণ এই রেলপথ দিয়ে রাজধানী, হামসফর এক্সপ্রেস, ত্রিবান্দ্রাম এক্সপ্রেস, সম্পর্কক্রান্তি এক্সপ্রেসের মতো দ্রুতগামী দূরপাল্লার কয়েটি ট্রেন চলাচল করছে। তাই চিফ সেফটি অফিসার বুধবার মাহুর থেকে দাওটুহাজা পর্যন্ত রেলওয়ে ট্র্যাকের অবস্থা ও যাত্রীদের নিরাপত্তা বিষয়টি দেখার পাশাপাশি অ্যালাইনম্যান্টে কোনও সমস্যা রয়েছে কিনা তাও খতিয়ে দেখেছেন। এদিকে প্রায় আড়াই বছর পর মাইগ্রেনডিসার পুরনো ১৮০ মিটার রেলওয়ে ট্র্যাক রবিবার খুলে দেওয়া হয়েছে। বর্তমানে এই রেলওয়ে ট্র্যাক দিয়ে ট্রেন চলাচল করছে। ২০১৫ সালের জুনে ধস নেমে মাইগ্রেনডিসায় ওই ১৮০ মিটার রেলওয়ে ট্র্যাক পুরো নিশ্চহ্ন হয়ে গিয়েছিল। এর জেরে প্রায় ৫২ দিন রেল চলাচল বন্ধ ছিল পাহাড় লাইনে। তার পর অনেক চেষ্টা করেও উত্তরপূর্ব সীমান্ত রেলের নির্মাণ শাখা ওই ১৮০ মিটার রেলওয়ে ট্র্যাক ঠিক করতে না পেরে সেখান থেকে পথ বদল করে নয়া রেলওয়ে ট্র্যাক তৈরি করা হয়েছিল। এর পর আড়াই বছর কেটে গেছে। ফের পুরনো জায়গায় রেলওয়ে ট্র্যাক বসানো হয়। চিফ সেফটি অফিসার এমকে আগরয়ালা বুধবার ওই জায়গার রেলওয়ে ট্র্যাকেরও নিরাপত্তার বিষয়টি খতিয়ে দেখেন। হিন্দুস্থান সমাচার / নিরুপম / এসকেডি
image