Hindusthan Samachar
Banner 2 शनिवार, जनवरी 19, 2019 | समय 15:33 Hrs(IST) Sonali Sonali Sonali Singh Bisht

ঝাড়গ্রামে ন্যায্যমূল্য ধান কেনার ব্যাবস্থা খতিয়ে দেখেন ডঃ উমা সরেন

By HindusthanSamachar | Publish Date: Jan 9 2019 7:34PM
ঝাড়গ্রামে ন্যায্যমূল্য ধান কেনার ব্যাবস্থা খতিয়ে দেখেন ডঃ উমা সরেন
ঝাড়্গ্রাম, ৯ জানুয়ারি ( হি. স.) : কৃষকেরা যাতে ন্যায্যমূল্য পায় তার জন্য ন্যায্যমূল্য ধান কেনার ব্যাবস্থা করছে সরকার। পাশাপাশি ধান দিন চেক নিন নামে এক প্রকল্পে চালু করেছে রাজ্য সরকার। এতসব কিছুর পরেও জেলায় একাধিক ধান ক্রয় কেন্দ্রে বেনিয়মের অভিযোগ তুলছেন চাষিরা। এমনকি ধান কেনাকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা তৈরী হচ্ছে। এই খবর পাওয়ার পরেই একেবারে সরেজমিনে তদন্ত করতে যান সাংসদ ডঃ উমা সরেন। বুধবার সকাল থেকে বিভিন্ন সরকারি মূল্যে ধান ক্রয় কেন্দ্রগুলিতে তদন্তে যায় সাংসদ। এদিন একেবারে হাতের কাছে সাংসদকে পেয়ে কৃষকেরা তাদের ক্ষোভ উগড়ে দিয়ে বলেন ময়েশ্চারের নাম করে কুইন্টালে ১২ থেকে ১৭ কেজি ধান বাদ দেওয়া হচ্ছে। আবার কোথাও বা ধান ক্রয় কেন্দ্রে ধান না কিনে সরাসরি মিলে পাঠিয়ে দেওয়া হচ্ছে। মিলে কোনো নির্দিষ্ট কাগজ দেওয়া হচ্ছেনা। এদিন ঝাড়গ্রামের কিষান বাজের ধান ক্রয় কেন্দ্র, মানিকপাড়ার আমডিহা অনুকুল আশ্রম ও জামবনি গ্রাম পঞ্চায়েত অফিসে ধান ক্রয় কেন্দ্রে তদন্তে যায়। প্রথমে ঝাড়্গ্রাম কিষানবাজারে সাংসদ পৌছালে সেখানে বাঁধগোড়ার বাসিন্দা কালি পদ দোলই বলেন আমি ২৬ কুন্টাল ২৫ কেজি ধান নিয়ে এসেছিলাম। ২২ কুন্টাল ৩০ কেজি হয়েছে। যদিও সাংসদ ওই ব্যক্তিকে বুঝিয়ে আশ্বস্ত করেছেন। তার সমস্যার সমাধান করার চেষ্টা করবেন। এছাড়াও অন্যান্য কৃষকদের কাছ থেকেও সমস্যার কথা শুনেন তিনি।পরে সাংসদ ধান ক্রয় কেন্দ্রের সরকারি আধিকারিক দের এই সমস্ত অভিযোগ নিষ্পত্তি করা ও সরকারি নিয়ম মেনে চাল নেওয়ার পরামর্শ দেন। পাশাপাশি চাষিদের পরামর্শ দেন সরকার তাদের পাশে আছে। তারা যেনো সরকারকেই ধান বিক্রি করেন এতে তাদেরই লাভ।হিন্দুস্থান সমাচার / গোপেশ
image