Hindusthan Samachar
Banner 2 शनिवार, जनवरी 19, 2019 | समय 16:33 Hrs(IST) Sonali Sonali Sonali Singh Bisht

আপডেট : ফের সাফল্য পুলিশের, বুলন্দশহর হিংসা মামলায় গ্রেফতার আরও এক অভিযুক্ত

By HindusthanSamachar | Publish Date: Jan 10 2019 3:31PM
আপডেট : ফের সাফল্য পুলিশের, বুলন্দশহর হিংসা মামলায় গ্রেফতার আরও এক অভিযুক্ত
হাপুর (উত্তর প্রদেশ), ১০ জানুয়ারি (হি.স.): আবারও বড়সড় সাফল্য পেল উত্তর প্রদেশ পুলিশ| উত্তর প্রদেশের বুলন্দশহরে বিক্ষোভ-হিংসার ঘটনায় আরও একজন অভিযুক্তকে গ্রেফতার করল পুলিশ| ২০১৮ সালের ৩ ডিসেম্বর, বিক্ষোভ-হিংসার দিন পুলিশ ইন্সপেক্টর সুবোধ কুমার সিং খুনের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে বৃহস্পতিবার সকালে উত্তর প্রদেশেরই হাপুর থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে শিখর আগরওয়াল নামে একজন অভিযুক্তকে| অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ৱুলন্দশহর সিটি) অতুল কুমার শ্রীবাস্তব জানিয়েছেন, ‘বৃহস্পতিবার পাশ্ববর্তী হাপুর জেলা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে শিখর আগরওয়ালকে| আমরা তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করছি|’ সূত্রের খবর, ধৃত শিখর আগরওয়াল ভারতীয় জনতা যুব মোর্চার সদস্য| দীর্ঘ ৩০ দিনের লুকোচুরি শেষে গত ২ জানুয়ারি গ্রেফতার করা হয় বুলন্দশহর হিংসা মামলার অন্যতম প্রধান অভিযুক্ত যোগেশ রাজকে| পরে অবশ্য উত্তর প্রদেশ পুলিশ জানিয়েছিল, বুলন্দশহর হিংসার ঘটনায় যোগেশ রাজ অন্যতম প্রধান অভিযুক্ত নয়| যোগেশ রাজ গ্রেফতার হওয়ার পরও, বুলন্দশহর হিংসা মামলার অপর অভিযুক্তরা এখনও ফেরার| এমতাবস্থায় পুলিশের জালে ধরা পড়ল অপর অভিযুক্ত শিখর আগরওয়াল| ঊর্ধ্বতন এক পুলিশ কর্তা জানিয়েছেন, শুক্রবার উত্তর প্রদেশের হাপুর জেলা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে ৱুলন্দশহর হিংসা মামলার অপর অভিযুক্ত শিখর আগরওয়ালকে| উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের ৩ ডিসেম্বর বুলন্দশহরের স্যানা মকুমা এলাকায় মাহু গ্রাম সংলগ্ন জঙ্গলে কিছু গোরুর দেহাংশ মেলে| এরপরই গুজব রটে যায় গোরুগুলিকে হত্যা করা হয়েছে| ট্র্যাক্টরে করে সেই দেহাংশ এনে চিঙ্গারওয়াথি পুলিশ ফাঁড়ির সামনে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন কিছু মানুষজন| পুলিশের বিরুদ্ধে শ্লোগান দিতে থাকেন তাঁরা| বিক্ষোভকারীদের একাংশ ৱুলন্দশহর হাইওয়ে আটকে দেওয়ার চেষ্টা করলে আসরে নামে পুলিশ| ঘটনাস্থলে পৌঁছন এসডিএম অবিনাশকুমার মৌর্য্য| তারপরই হিংসাত্মক হয়ে ওঠে বিক্ষোভ| প্রশাসনিক আধিকারিকদের ঘিরে ধরে ইট-পাথর ছোঁড়া হয়| জখম হন বেশ কয়েকজন পুলিশ কর্মী| তাঁদের মধ্যে ছিলেন স্টেশন হাউস অফিসার (এসএইচও) সুবোধ কুমার সিং (৪৪)| সেই সময় পুলিশ পাল্টা গুলি চালালে মৃত্যু হয় সুমিত কুমার (২০) নামে এক যুবকের| এরপরই বিক্ষোভকারীরা পুলিশের গাড়ি ঘিরে ধরে পাথর মারতে শুরু করে| প্রাণে বাঁচতে পালিয়ে যান অন্যান্য পুলিশ কর্মীরা| পরে পুলিশ ইন্সপেক্টর সুবোধ কুমার সিংকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিত্সকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন| বুলন্দশহর হিংসা মামলায় বিগত এক মাসেরও বেশি সময়ে ৩৫ জন অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ| ধৃতদের মধ্যে রয়েছে সেনা জওয়ান জীতেন্দ্র মালিক ও প্রশান্ত নাট| হিন্দুস্থান সমাচার/ রাকেশ
image