Hindusthan Samachar
Banner 2 मंगलवार, मार्च 19, 2019 | समय 20:15 Hrs(IST) Sonali Sonali Sonali Singh Bisht

নিম্নমানের রাস্তা তৈরির অভিযোগ, কাঁকসায় ঠিকাদারকে আটকে রেখে বিক্ষোভ

By HindusthanSamachar | Publish Date: Jan 10 2019 4:51PM
নিম্নমানের রাস্তা তৈরির অভিযোগ, কাঁকসায়  ঠিকাদারকে আটকে রেখে বিক্ষোভ
দুর্গাপুর, ১০ জানুয়ারি (হি.স.) : রাস্তা তৈরির ১৫ দিনের মাথায় উঠে পড়ছে পিচের স্তর। তৈরি হয়নি ঢালাই রাস্তা। তৈরি হওয়া কালভার্টের হদিশ নেই। তার আগে পাততড়ি গুটিয়ে পালিয়ে যাওয়ার অভিযোগ। আর তার জেরে ঠিকাদারকে আটকে রেখে বিক্ষোভে শুরু করল গ্রামবাসীরা। বৃহস্পতিবার ঘটনাকে কেন্দ্র করে তুমুল উত্তেজনা ছড়াল পশ্চিম বর্ধমানের কাঁকসার ব্রাহ্মণ গ্রামে। খবর পেয়ে ঘটনার সরজমিন তদন্তে নামল রাজ্য গ্রামোন্নয়ন দফতর। ঘটনায় জানা গেছে, কাঁকসার ব্রাহ্মনগ্রাম থেকে বনকাটি শ্যামবাজার কলোনী। প্রায় সাড়ে তিন কিলোমিটার রাস্তা দীর্ঘদিন ধরে বেহাল ছিল। ওই রাস্তার ওপর নারকেল ডাঙা, বাগানপাড়া, আদিবাসী পাড়া সহ ৭-৮ টি গ্রাম রয়েছে। এছাড়াও রয়েছে হাইস্কুল, বি এড কলেজ, কৃষি খামার। সম্প্রতি ওই রাস্তাটি কেন্দ্র সরকারের আর্থিক সহায়তায় বাংলা গ্রামীন সড়ক যোজনায় তৈরি কাজ শুরু হয়েছে। বরাদ্দ হয়েছে প্রায় ১ কোটি ৫৫ লক্ষ টাকা। তার মধ্যে ৬৩৮ মিটার ঢালাই, বাকিটা পিচ হওয়ার ওর্য়াড ওঠার রয়েছে। এছাড়াও রাস্তার ওপর ৭ টি কালভার্টের নির্মাণ হবে। বৃহস্পতিবার বরাত পাওয়া ঠিকা সংস্থা কাজের পরিদর্শনে এসেছিল। অভিযোগ, সেসব সেরে এলাকায় যাবতীয় সরঞ্জাম তুলে নিয়ে পালিয়ে যাচ্ছিল। ওইসময় ব্রাহ্মণ গ্রামের বাসিন্দারা আটকে রাখে। শুরু হয় বিক্ষোভ। গ্রামবাসী গুরুদেব গড়ুই, সাগর গড়ুই প্রমুখ জানান," গ্রামের প্রায় সাড়ে সাতাশ মিটার রাস্তা ঢালাই ছিল। নতুন করে ঢালাই করা দুর অস্ত উল্টে আগের রাস্তাটা ভেঙে দিয়েছে। তার ওপর গ্রামের পাশে সেচক্যানেলে কালভাট ছিল। সেখানে কোন কাজ করেনি। পনের দিন আগে রাস্তায় পিচের কাজ শেষ হয়েছে। সেটা চাদারের মতো উঠে যাচ্ছে। রাস্তা তৈরি করতে গিয়ে খেলার মাঠের পাশে মাটি তুলে বিপজ্জনক নালা করে দিয়েছে। এককথায় কাজ যেমন নিম্নমানের, তেমনই অসম্পুর্ন করে পাততাড় গুটিয়ে পালিয়ে যাচ্ছিল। তাই ঠিকাদারকে আটকে রাখা হয়েছে।আমাদের দাবি রাস্তার সিডুল অনুযায়ী সম্পূর্ন রাস্তা তৈরি করতে হবে।" অন্যদিকে খবর পেয়ে ওই রাস্তার সরজমিন তদন্ত আসে রাজ্য গ্রাম উন্নয়ন দফতরের ইঞ্জিনিয়াররা। নির্মীয়মান রাস্তার বিভিন্ন জায়গায় খুঁড়ে নমুনা সংগ্রহ করেন। যদিও বরাত পাওয়া ঠিকাদার খোকন বিশ্বাস সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করে জানান," রাস্তার কাজ শেষ হয়নি। জমি জটে কিছুটা আটকে ছিল। শুক্রবার থেকে তার কাজ শুরু হবে। সিডুল অনুযায়ী রাস্তার কাজ হয়েছে।" অন্যদিকে পশ্চিম বর্ধমান জেলা গ্রাম উন্নয়ন দফতরে (ডিভিশন-২) ইঞ্জিনিয়ার বিকাশ সরকার জানান," রাস্তার কাজ এখনও শেষ হয়নি। নিম্নমানের রাস্তার কাজ বরদাস্ত করা হবে না। রাস্তার কাজ দুটি পর্যায়ে পরীক্ষা হয়। তার কাজও চলছে।" হিন্দুস্থান সমাচার / জয়দেব / সোনালি
लोकप्रिय खबरें
फोटो और वीडियो गैलरी
image