Hindusthan Samachar
Banner 2 मंगलवार, मार्च 19, 2019 | समय 20:45 Hrs(IST) Sonali Sonali Sonali Singh Bisht

মুখ্যমন্ত্রী সফরের আগে যানজটে স্তব্ধ জেলা সদর বারাসাত

By HindusthanSamachar | Publish Date: Jan 10 2019 6:20PM
মুখ্যমন্ত্রী সফরের আগে যানজটে স্তব্ধ জেলা সদর বারাসাত
বসিরহাট, ১০ জানুয়ারি (হি.স) : তেইশতম যাত্রা উৎসবের উদ্বোধনে শুক্রবার উত্তর ২৪ পরগনার জেলা সদর বারাসাতে আসছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। মুখ্যমন্ত্রীর সফরের আগে শেষ মূহুর্তে জেলা প্রশাসন তড়িঘড়ি বারাসাতের রাস্তা সারাইয়ের কাজে নেমেছে। মুখ্যমন্ত্রী আসার খবর আগে থাকা সত্ত্বেও শেষ মূহুর্তে রাস্তা সারাইয়ের কাজে নামায় যানজটে জেরবার উত্তর ২৪ পরগনা জেলা সদরের নিত্য যাত্রীরা। প্রশাসনের এই ব্যার্থতা নিয়ে ইতিমধ্যেই সরব হয়েছে যানজটে নাকাল হওয়া মানুষ জন। তাদের দাবি আগে খবর থাকা সত্ত্বেও কেন জেলা প্রশাসন আগে থেকে রাস্তা সারাইয়ের কাজ রাতের দিকে সময় নিয়ে সারেনি। শেষ বেলায় তড়িঘড়ি কাজ করতে গিয়ে সাধারণ মানুষদের সমস্যায় ফেললো। এই ব্যার্থতার দায় প্রসাশনিক কর্তাদেরই, দাবি যানযটে আটকে থাকা সাধারণ মানুষের। যদিও জেলা প্রশাসনিক কর্তারা বিষয়টি নিয়ে মুখে কুলুপ এটেছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক জেলা প্রশাসনের এক কর্তার বক্তব্য হেলিপ্যাড থেকে নেমে ম্যাডামের গাড়িতে করে কাছারি ময়দানের যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু শেষ মূহুর্তে তিনি যদি হেঁটে যাওয়া মনস্থির করেন তাই কোন রিক্স না নিয়েই শেষ মূহুর্তে কাছারি মাঠে যাওয়ার সম্ভব্য সব রাস্তাই সারায়ের সিদ্ধান্ত নেওয়াতেই এই যানজটে সৃষ্টি হয়েছে। বিগত বছর গুলির প্রথা মেনেই ৩২ দিন ব্যাপি ২৩ তম যাত্রা উৎসবের সূচনা করতে বারাসাতের কাছারি ময়দানের আসছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বারাসাতে ২ দিনের অনুষ্ঠানের পর বাকি ৩০ দিন কলকাতার বাগবাজারের ফনিভূষণ বিদ্যাবিনোদন যাত্রা মঞ্চে চলবে এই যাত্রা উৎসব। তবে বিগত দিনের প্রথা মেনেই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বারাসাতের কাছারি ময়দানের অস্থায়ী মঞ্চ থেকে প্রদীপ জ্বালিয়ে ও ঘন্টা বাজিয়ে যাত্রা উৎসবের শুভ উদ্বোধন করবেন বলে জেলা প্রশাসন সূত্রে জানানো হয়েছে। জানাগেছে শুক্রবার মুখ্যমন্ত্রী নদিয়া থেকে হেলিকপ্টার করে বারাসাতের বিদ্যাসাগর ক্রীড়াঙ্গনে নামবেন। হেলিকপ্টার নামার জন্য বারাসাতের বিদ্যাসাগর ক্রীড়াঙ্গনে ২টি ও মধুমুড়ালিতে একটি হেলিপ্যাড বানানো হয়েছে। পুলিশ সূত্রে খবর এখনও পর্যন্ত ঠিক আছে শুক্রবার বেলা একটা থেকে দেড়টার মধ্যে বিদ্যাসাগর ক্রীড়াঙ্গনের ১ নম্বর হেলিপ্যাডে নেমে গাড়িতে করে কাছারি ময়দানের অস্থায়ী যাত্রা মঞ্চে যাবেন মুখ্যমন্ত্রী। তবে শেষ মূহুর্তে তিনি বিদ্যাসাগর ক্রীড়াঙ্গন থেকে গাড়িতে যাবেন না হেঁটে যাবেন সেটি নিয়ে চিন্তায় পুলিশ প্রশাসন। সেই কথা মাথায় রেখেই কড়া নিরাপত্তার মোড়কে ঢেকে ফেলা হয়েছে গোটা বারাসাত শহর। মুখ্যমন্ত্রীর বারাসাত সফর নিয়ে ইতিমধ্যেই উন্মাদনা তৈরি হয়েছে জেলা তৃণমূল কর্মী সমর্থকদের মধ্যে। তার উপস্থিতিতে বারাসাতে জন জোয়ার নামবে বলেই ধারনা তৃণমূল নেতা ও পুলিশ প্রশাসনের। রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূলের উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলা সভাপতি জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক জানান, প্রথামেনে বারাসাত থেকেই যাত্রা উৎসরের সূচনা করেন মুখ্যমন্ত্রী। ব্রিগের ঠিক আগে বারাসাতে মুখ্যমন্ত্রীর এই আগমনে আমরা বাড়তি উৎসাহ পাব। তিনি বারাসতে এসে আমাদের উদ্দেশ্যে নতুন কোন ম্যাসেজ দিতে পারেন। যেটা আমাদের বাড়তি উদ্দীপনা দিতে পারে। যাত্রা উৎসবের উদ্বোধন ছাড়াও বেশকিছু সরকারি প্রকল্পের জিনিস সাধারণ মানুষের হাতে তুলে দেবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কাছারি মাঠের শেষ মূহুর্তের কাজ কর্মের তদারকি করতে এসে বৃহস্পতিবার বিকেলে এমনই মন্তব্য করেন খাদ্যমন্ত্রী। হিন্দুস্থান সমাচার/ পরিমল / কাকলি
लोकप्रिय खबरें
फोटो और वीडियो गैलरी
image