Hindusthan Samachar
Banner 2 शनिवार, जनवरी 19, 2019 | समय 20:38 Hrs(IST) Sonali Sonali Sonali Singh Bisht

জনজাতি সমন্বয়রক্ষী সমিতি আহূত ১২ ঘণ্টার অসম বনধ-এ বিক্ষিপ্ত ঘটনা

By HindusthanSamachar | Publish Date: Jan 11 2019 2:16PM
জনজাতি সমন্বয়রক্ষী সমিতি আহূত ১২ ঘণ্টার অসম বনধ-এ বিক্ষিপ্ত ঘটনা
গুয়াহাটি, ১১ জানুয়ারি (হি.স.) : বিক্ষিপ্ত ঘটনাবলির মধ্য দিয়ে চলছে ট্রাইবাল সংঘ-সহ জনজাতি সমন্বয়রক্ষী সমিতি আহূত ১২ ঘণ্টার অসম বনধ। অসমের ছয় জনগোষ্ঠীকে কেন্দ্রীয় সরকার অনুমোদন জানালে এর বিরোধিতা করেছে ট্ৰাইবাল সংঘ-সহ ১৬টি আদিবাসী সংগঠনকে নিয়ে গঠিত ‘জনজাতি সমন্বয়রক্ষী সমিতি অসম’। প্রসঙ্গত, অসমের ছয় জনগোষ্ঠী মরান, মটক, তাই আহোম, চুতিয়া, কোচ-রাজবংশী এবং ৩৬টি চা জনগোষ্ঠীকে আদিবাসীর স্বীকৃতি সংক্রান্ত বিল গত ৭ জানুয়ারি কেন্দ্ৰীয় সরকার অনুমোদন জানিয়েছিল। এর পরের দিন ৮ তারিখ মঙ্গলবার লোকসভার শীতকালীন অধিবেশনের শেষ দিন নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল-এর সঙ্গে এই ছয় জনগোষ্ঠীকে জনজাতির স্বীকৃতি সংক্রান্ত বিল পেশ করেছিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং। আজকের বনধ আহ্বানকারীদের অভিযোগ, ‘অনুন্নত জনজাতি’দের পৃষ্ঠ প্রদর্শন করে রাজ্যের ‘উন্নত’ ছয় জনগোষ্ঠীকে জনজাতির স্বীকৃতি প্রদানের দরজা খুলে দিয়ে অসমের মূল ভূমিপুত্র অনুন্নত জনজাতিদের অস্তিত্ব, ভাষা-সংস্কৃতি-পরিচয় এবং সাংবিধানিক অধিকার ধ্বংস করার ষড়যন্ত্র রচনা করা হচ্ছে। এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে আজ ১২ ঘণ্টার বনধ ডেকেছে ট্ৰাইবাল সংঘ-সহ ১৬টি আদিবাসী সংগঠনকে নিয়ে গঠিত ‘জনজাতি সমন্বয়রক্ষী সমিতি অসম’। এদিকে আহূত বনধ-এর সময় মধ্য অসমের নগাঁও জেলার গমারিআঁটিতে বিক্ষিপ্ত ঘটনা সংঘটিত হয়েছে৷ বনধ সমৰ্থকরা পণ্যবাহী ট্রাকে ভাঙচুর চালিয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। এছাড়া নিম্ন অসমের বিটিসি এলাকার অন্তর্গত ওদালগুড়িতে অসম বনধ-এ সৰ্বাত্মক প্রভাব পড়েছে। বনধ-এর অন্যতম সমৰ্থক অল বড়ো স্টুডেন্টস ইউনিয়ন (এবসু)-এর সমর্থকরা ওদালগুড়ির রাজপথে টায়ার জ্বালিয়ে পরিবেশ উত্তাল করে তুলেছে। সংগঠনের উপ-সভাপতি দ্বীপেন বড়ো প্রতিবাদস্থলে দাঁড়িয়ে সরকারের বিরুদ্ধ তীব্ৰ প্ৰতিক্ৰিয়া ব্যক্ত করেছেন। তিনি বলেন, কোনওভাবেই ছয় জনগোষ্ঠীর জনজাতিকরণ বিল পাশ হতে দেওয়া হবে না। পাশাপাশি নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল-এর বিরুদ্ধেও তীব্ৰ প্ৰতিক্ৰিয়া প্ৰকাশ করেছেন এবসু-র উপ-সভাপতি দ্বীপেন বড়ো। হিন্দুস্থান সমাচার / এসকেডি / কাকলি
image