Hindusthan Samachar
Banner 2 शनिवार, जनवरी 19, 2019 | समय 20:01 Hrs(IST) Sonali Sonali Sonali Singh Bisht

যাত্রা উৎসবে বারাসতে একাধিক প্রকল্পের শিলান্যাস ও উদ্বোধন করলেন মু্রী

By HindusthanSamachar | Publish Date: Jan 11 2019 7:44PM
যাত্রা উৎসবে বারাসতে  একাধিক প্রকল্পের শিলান্যাস ও উদ্বোধন করলেন মু্রী
বসিরহাট, ১১ জানুয়ারি (হি.স.) : শুক্রবার দুপুরে ২৩ তম যাত্রা উৎসবের উদ্বোধনে বারাসাতের কাছারি ময়দানে একাধিক প্রকল্পের শিলান্যাস ও উদ্বোধন করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন একের পর এক উন্নয়নের খতিয়ান তুলে ধরে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রায় ৩৫৮ কোটি টাকা ব্যায়ে ৪২ টি প্রকল্পের শিলান্যাস ও ৪৩০ কোটি টাকা ব্যায়ে ৬৮ টি নতুন প্রকল্পের উদ্বোধন করেন। তারমধ্যে উল্লেখযোগ্য গাইঘাটায় হরিচাঁদ গুরুচাঁদ বিশ্ববিদ্যালয়, বসিরহাটে মিষ্টি হাব, হাবড়া জয়গাছিতে আধুনিক টেক্সটাইল হাট, জেলার বিভিন্ন ব্লকে মোট ৭টি ১০০ মেট্রিক টন ক্ষমতা সম্পন্ন গুদাম ঘর। দেগঙ্গা ব্লকে হানি হাব, রাস্তা সংস্কার, মামুদপুরে কৃষক বাজারে নৈহাটি বড়ি উৎপাদন ক্লাষ্টার ও বিপণন কেন্দ্র, একাধিক নদীর উপর ব্রীজ, সুন্দরবনের বিভিন্ন লবনাক্ত সৌরশক্তি চালিত অত্যাধুনিক প্রযুক্তির দ্বারা পানীয় জলের পরিশ্রুত করণের প্রকল্প, পানীয় জল শোধন প্রকল্প সহ একাধিক প্রকল্পের শিলান্যাস করেন। সেই সঙ্গে ব্যারাকপুর ও বসিরহাট ব্লকে মোট ৩ টি সাব স্টেশন, গোবরডাঙ্গায় নবনির্মিত থানা ভবন, কলেজ অফ মেডিসিন ও সাগরদত্ত হাসপাতালে রক্ত কনিকা বিভাজন কেন্দ্র, দেগঙ্গায় চন্দ্রকেতুগড়ের সংগ্রহশালা, একাধিক কর্মতির্থ ও ক্রীড়াঙ্গন, সরকারি কার্যালয় ও অতিথি নিবাস, মিনাখাঁ এলাকায় ৩টি ভূগর্ভস্থ নল বাহিত জল সরবরাহ প্রকল্প, সুন্দরবন এলাকায় ২৫ টি বিদ্যালয়ে সৌরশক্তি চালিত বিশুদ্ধ পানীয় জল প্রকল্প সহ একাধিক প্রকল্পের উদ্বোধন করেন মুখ্যমন্ত্রী। এদিন তিনি তার বক্তব্যে বলেন, সবুজ সাথি প্রকল্পে সাইকেল দেওয়া হচ্ছে, এটি শুধু সাইকেল হিসেবে দেখলে চলবে না। আজকের ছাত্র ছাত্রীরা সাইকেল চালিয়ে বিদ্যালয়ে গিয়ে পড়াশুনা করে ভবিষ্যতে ট্রেন চালাতে পারে। সদ্যজাতদের সঙ্গে একটি করে গাছ দেওয়া হচ্ছে। শিশুটি বড় হওয়ার সঙ্গে গাছটিও বড় হবে। গাছটি যেমন পরিবেশ বান্ধব হবে তেমনি একদিন সেটি পরিবারটিকে আর্থিক সাহায্যও করবে। তিনি এদিন আরও বলেন, মতুয়াদের জন্য আগেই কলেজ করে দেওয়া হয়েছে। এবার হরিচাঁদ গুরুচাঁদের নামে বিশ্ববিদ্যালয়ও করে দেওয়া হবে। কৃষ্ণনগরে ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি ক্যাম্পাসও হবে। তেহট্ট স্টেডিয়ামের নাম পরিবর্তন করে হরিচাঁদ গুরুচাঁদের নামে করা হবে। তিনি এদিন বলেন বাম আমলে বাংলার সংস্কৃতি, যাত্রা সব লুপ্ত হতে বসেছিল। আমরা ক্ষমতায় আসার পর তা আবার পুনরুদ্ধারের চাষ্টা করছি। হিন্দুস্থান সমাচার /পরিমল / কাকলি
image