Hindusthan Samachar
Banner 2 शनिवार, जनवरी 19, 2019 | समय 16:08 Hrs(IST) Sonali Sonali Sonali Singh Bisht

গণ অপারেশন বারুইপুর হাসপাতালে

By HindusthanSamachar | Publish Date: Jan 12 2019 7:19PM
গণ অপারেশন বারুইপুর হাসপাতালে
বারুইপুর, ১২ জানুয়ারি (হি.স.) : শহরের বড় হাসপাতাল গুলির অপারেশানের চাপ কমাতেই দক্ষিন ২৪ পরগনায় প্রথম সরকারি উদ্যগে বারুইপুর সুপার স্পেসালিটি হাসপাতালে ল্যাপেরোস্কপির মাধ্যমে এক সাথে ১৮ জন রোগীর হার্নিয়া , গল ব্লাডার , এপেনন্ডিক্স অপারেশান সম্ভব হল । যা স্বাস্থ্য পরিষেবায় নজির সৃষ্টি করল। মূলত কলকাতার সরকারী হাসপাতালে দিনের পর দিন ঘুরেও যারা অপারেশন করাতে ব্যর্থ হচ্ছিলেন, তাদেরকে চিহ্নিত করে শনিবার অপারেশন করা হল। আগামী দিনে এই ধরনের গণ অপারেশন আরও করা হবে বলে দাবী স্বাস্থ্য দফতরের। বারুইপুর সুপার স্পেসালিটি হাসপাতালে শনিবার সকাল থেকেই ছিল সাজো সাজো রব। কলকাতার এস এস কে এমের বিশিষ্ট চিকিৎসক মাখন লাল সাহা ,কলকাতা মেডিক্যাল কলেজের সুকুমার মাইতি ,মানস দত্ত সহ ১০ জনের টিম শনিবার সকাল ৮ টার পর থেকে তৎপরতার সাথে এই কাজ সম্ভব করেন। বারুইপুর মহকুমা হাসপাতালের সুপার ডঃ জয়া ব্যানার্জি নিজে এই ব্যাপারে তদারকি করেছেন। ১৮ জন রোগীর মধ্যে ১৬ জনের গল ব্লাডার অপারেশান, ১ জনের হার্নিয়া অপারেশান, ১ জনের এপেনডিক্স অপারেশান হয়। সকাল ৮ টা থেকে এই অপারেশান শুরু হয়ে বিকালের পর পর্যন্ত চলে। এই অপারেশানের আগে শুক্রবার সন্ধ্যায় রোগী সহ রোগীর পরিবার নিয়ে চিকিৎসক ও ,হাসপাতালের সুপার এক কর্মশালা করে তাদের অপারেশানের ব্যাপারে আশ্বস্ত করেন। এই বিষয়ে এস এস কে এম হাসপাতালের বিশিষ্ট চিকিৎসক মাখন লাল সাহা জানান, "এর আগে এক সংস্থার উদ্যগে অপারেশান হয়েছিল। এবার প্রথম সরকারি উদ্যগে এক সাথে ১৮ জন রোগীর হার্নিয়া ,গল ব্লাডার , এপেনডিক্স অপারেশান হল। আমার নেতৃত্বে ১০ জনের চিকিৎসকের টিম এতে অংশ নেয়। এর পরে এই প্রক্রিয়া চালু রাখতে প্রতি এক মাসে এই পরিষেবা হবে বারুইপুর সুপার স্পেসালিটি হাসপাতালে। হাসপাতালের সার্জেনদের এই ব্যাপারে ট্রেন্ড করে পরবর্তী কালে ও এই অপারেশন সম্ভব হবে"। বারুইপুর সুপার স্পেসালিটি হাসপাতালে বিনামূল্যে এই অপারেশানের পরিষেবায় খুশি রোগীর পরিবারও। শুধু বারুইপুর নয় জয়নগর, সোনারপুর সহ দুরের নদিয়া থেকে এসে ও রোগীরা এই পরিষেবা পেয়েছেন এদিন । এক রোগীর আত্মীয় অশোক ভট্টাচার্য বলেন, "কলকাতার হাসপাতালে অপারেশান করতে গেলে ৩ থেকে ৫ মাসের আগে ডেট পাওয়া যায় না। গ্রামের মানুষদের জন্য বিনামুল্যে এই পরিষেবায় নতুন জীবন পেল বোন, বারুইপুর মহকুমা হাসপাতালে আরও এই পরিষেবা চালু হোক এটাই চাই "। হাসপাতালের সুপার জয়া ব্যানার্জি জানান, "জেলায় প্রথম সরকারি উদ্যগে এক সাথে বিনা মুল্যে ১৮ জন রোগীর অপারেশান সম্ভব হল। কলকাতার হাসপাতালে অপারেশানের চাপ কমাতেই নাম করা চিকিৎসকরা এই কাজে এগিয়ে এসেছেন। যার ফলে উপকৃত হল বহু রোগী ও তাদের পরিবার।" হিন্দুস্থান সমাচার /প্রসেনজিত
image