Hindusthan Samachar
Banner 2 बुधवार, मार्च 27, 2019 | समय 02:18 Hrs(IST) Sonali Sonali Sonali Singh Bisht

সই করলেন রাষ্ট্রপতি, আইনে পরিণত হল উচ্চবর্ণের জন্য ১০ শতাংশ সংরক্ষণ বিল

By HindusthanSamachar | Publish Date: Jan 12 2019 9:17PM
সই করলেন রাষ্ট্রপতি, আইনে পরিণত হল উচ্চবর্ণের জন্য ১০ শতাংশ  সংরক্ষণ  বিল
নয়াদিল্লি, ১২ জানুয়ারি (হি.স.) : সই করলেন রাষ্ট্রপতি | আইনে পরিণত হল উচ্চবর্ণের আর্থিকভাবে দুর্বলদের জন্য ১০ শতাংশ সংরক্ষণ বিল | শনিবার এই বিলে সই করলেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। এর ফলে বিলটি আইনে পরিণত হল। উচ্চবর্ণের আর্থিকভাবে দুর্বলদের জন্য ১০ শতাংশ সংরক্ষণ নিয়ে কেন্দ্রীয় প্রস্তাবে সায় দিলেন রাষ্ট্রপতি | সংসদের উভয়ক্ষে আগেই পাশ হয়ে গিয়েছিল উচ্চবর্ণের আর্থিকভাবে দুর্বলদের জন্য ১০ শতাংশ সংরক্ষণ বিল । শনিবার সেই বিলে সই করলেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। এর ফলে বিলটি আইনে পরিণত হল। নয়া এই আইনের আওতায়, এ বার থেকে শিক্ষা ও কর্মক্ষেত্রে ১০ শতাংশ সংরক্ষণ পাবেন দেশের আর্থিকভাবে অনগ্রসর উচ্চবর্ণের মানুষ। উচ্চবর্ণের গরিবদের জন্য শিক্ষা ও চাকরিতে ১০ শতাংশ সংরক্ষণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্র। কিন্তু সিদ্ধান্ত কার্যকর করতে সংবিধান সংশোধন প্রয়োজন। গত মঙ্গলবার ৮ জানুয়ারি ১২৪তম সংবিধান সংশোধন বিলটি সংসদের নিম্নকক্ষে পাশ হয়। দীর্ঘ আলোচনার পরে ৩২৩জন সাংসদ বিলের পক্ষে ভোট দিয়েছিলেন। বিপক্ষে পড়েছিল মাত্র ৩টি ভোট। এরপর বুধবার কেন্দ্রীয় মন্ত্রী টিসি গেহলট রাজ্যসভায় সংবিধান সংশোধন বিলটি পেশ করেন। এর ওপর আলোচনায় এই বিল পেশের সময় নিয়ে প্রশ্ন তোলে অধিকাংশ দল। আগামী লোকসভা ভোটে রাজনৈতিক ফায়দা তোলার জন্য সরকার এমন একটি সময়কে বেছে নিয়েছে বলে অভিযোগ ওঠে। সংবিধান সংশোধন বিলটিকে সিলেক্ট কমিটিতে পাঠানোর প্রস্তাব উঠলেও ভোটাভুটিতে তা বাতিল হয়ে যায়। একইভাব বাতিল হয়ে যায় বিলের ওপর মোট ৫টি সংশোধনী। শেষ পর্যন্ত দুই-তৃতীয়াংশের বেশি ভোটে ১২৪তম সংবিধান সংশোধন বিলটি গৃহীত হয় রাজ্যসভায়ও । এরপরই তা আইনে পরিণত করতে পাঠান হয়েছিল রাষ্ট্রপতির কাছে | শনিবার সেই বিলে সই করলেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। এর ফলে বিলটি আইনে পরিণত হল। নয়া এই আইনের আওতায়, এ বার থেকে শিক্ষা ও কর্মক্ষেত্রে ১০ শতাংশ সংরক্ষণ পাবেন দেশের আর্থিকভাবে অনগ্রসর উচ্চবর্ণের মানুষ। যদিও বিলটিকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টে জনস্বার্থ মামলা রুজু হয়েছে। এখনও পর্যন্ত তা নিয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা যায়নি। তার মধ্যেই বিলটি আইনে পরিণত হয়ে গেল।–হিন্দুস্থান সমাচার/ কাকলি
लोकप्रिय खबरें
फोटो और वीडियो गैलरी
image