Hindusthan Samachar
Banner 2 गुरुवार, अप्रैल 25, 2019 | समय 19:56 Hrs(IST) Sonali Sonali Sonali Singh Bisht

ঝাড়গ্রামে প্রতিবন্ধীদের স্বাস্থ পরীক্ষার পর তুলে দেওয়া হল সংশাপত্র

By HindusthanSamachar | Publish Date: Feb 6 2019 7:43PM
ঝাড়গ্রামে প্রতিবন্ধীদের স্বাস্থ পরীক্ষার পর তুলে দেওয়া হল সংশাপত্র
ঝাড়্গ্রাম, ৬ ফেব্রুয়ারি ( হি. স.) : পঞ্চাশ শতাংশ প্রতিবন্ধী মানুষজনেরকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে এসে স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর তুলে দেওয়া হচ্ছে সংশাপত্র। রাজ্য সরকারের মানবিক প্রকল্প নিয়ে আসার পরেই এই উদ্যোগ নিয়েছে ঝাড়্গ্রাম জেলা পরিষদ ও স্বাস্থ্য দফতর। এদিন নয়াগ্রামের চাঁদাবিলা এলাকায় একটি ক্যাম্প করে প্রতিবন্ধীদের হাতে তাদের পরিচয় পত্র তুলে দেওয়া হয়। জানা গিয়েছে পঞ্চাশ শতাংশ প্রতিবন্দী মানুষদের নিয়ে আসা হবে মানবিক প্রকল্পে।যারা পাবেন নিয়মিত ভাতা।এদিন নয়াগ্রাম ব্লকের চাঁদাবালি, বড়খাগড়ি, পাতিনা,বড়নেগুই গ্রামপঞ্চায়েত এলাকার প্রায় হাজর দেড়েক প্রতিবন্দী মানুষদের নিয়ে আসা হয়েছিল এই ক্যাম্পে। প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে এই সব পঞ্চায়েত এলাকার প্রতিবন্দী মানুষ গুলিকে যাতে কষ্ট করে শিবিরে না আসতে হয় তার জন্য স্থানীয় গ্রামপঞ্চায়েত থেকে গাড়ির ব্যবস্থা করা হয়েছিল।বাড়ি থেকে গাড়ি করে মানুষ গুলিতে নিয়ে আসা হয় ক্যাম্পে।তাদের খাওয়াদাওয়ার ব্যবস্থাও করা হয়েছিল।তাদের পরিজনদেরও খাওয়ানো হয়েছে।শিবির টির বিশেষত্ব হল এই ক্যাম্প থেকে রেসিডন্সিয়াল সার্টিফিকেটও দেওয়া হচ্ছে সাথে সাথে। এদিন সাতজন চিকিৎসক উপস্থিত থেকে পরীক্ষা নিরীক্ষা করেছেন।ক্যাম্প থেকেই দেওয়া হল পরিচয় পত্র।আগামী মার্চ মাসের মধ্যেই ক্যাম্পের মাধ্যমে ঝাড়গ্রাম জেলার প্রতিবন্দী মানুষদের চিহ্নিত করে তাদের পরিচয় পত্র প্রদান করার লক্ষ মাত্রা নেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে প্রশাসন সূত্রে। ঝাড়গ্রাম জেলাপরিষদের জন স্বাস্থ্য,কারিগরি,পরিবেশ কর্মধ্যক্ষ উজ্বল দত্ত বলেন“ আগে প্রতিবন্দী মানুষদের অনেক কষ্ট করে জেলায় এসে পরিচয় পত্র নিতে হত।এবার থেকে সেই কষ্ট আর করতে হবেনা।এখন থেকে জেলার বিভিন্ন ব্লক গুলিতে বিশেষ ক্যাম্প করে প্রতিবন্দীদের পরিচয় পত্র দেওয়া হবে। পঞ্চাশ শতাংশ প্রতিবন্দী মানুষেরা রাজ্য সরকারের মানবিক প্রকল্পের আওতায় আসবেন। এদিন নয়াগ্রাম ব্লকের চাঁদাবিলা এসসি হাইস্কুলে শিবির করে গাড়ি করে প্রতিবন্দী মানুষদের তুলে এনে তাদের পরিচয় পত্র দেওয়া হল।এই ভাবে এবার থেকে সপ্তাহে দু দিন করে জেলার বিভিন্ন এলাকায় শিবির করে পরিচয় পত্র প্রদান করা হবে।”এই বিষয়ে ঝাড়গ্রামের জেলা শাসক আয়েষা রানী বলেন“ এদিন প্রতিবন্দী মানুষদের নিয়ে বিশেষ শিবির করে তাদের পরিচয় পত্র প্রদান করা হল।এর পর ঝাড়গ্রাম জেলার প্রতিটি ব্লকেই এই কর্মসূচি চলবে।এই শিবির গুলি থেকে তাদের পরিচয় পত্র দেওয়া হবে।তাদের আর কষ্ট করে হাসপাতালে আসতে হবে না।এনার সকলে পরিচয় পত্র পেলে সরকারি বিভিন্ন যে সব সুবিধা আছে তার আওতায় আসতে পারবেন।” হিন্দুস্থান সমাচার / গোপেশ
लोकप्रिय खबरें
फोटो और वीडियो गैलरी
image