Hindusthan Samachar
Banner 2 सोमवार, अप्रैल 22, 2019 | समय 20:15 Hrs(IST) Sonali Sonali Sonali Singh Bisht

রহস্যমৃত্যু অষ্টাদশী নববধূর, তদন্তে পুলিশ

By HindusthanSamachar | Publish Date: Feb 6 2019 8:30PM
রহস্যমৃত্যু অষ্টাদশী নববধূর, তদন্তে পুলিশ
আগরতলা, ৬ ফেব্রুয়ারি (হি.স.) : ১৮ বছরের এক নববধূর মৃত্যুর ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন মহলে নানা প্রশ্ন ঘুরপাক খাচ্ছে। ঘটনাটি আত্মহত্যা না-খুন এ নিয়ে শুরু হয়েছে জল্পনা। যদিও এখন পর্যন্ত পুলিশও সঠিক কোনও সিদ্ধান্তে আসতে পারেনি। জানা গেছে, পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ মৃতার শ্বশুরবাড়ি এবং বাপের বাড়ির লোকজনদের সাথে কথা বলেছে। বুধবার পুলিশ গৃহবধূর ময়না তদন্ত শেষে নববধূ জয়ন্তী দাসের মৃতদেহ তার পরিবারের হাতে তুলে দিয়েছে। তবে তদন্তের স্বার্থে পুলিশ এখনই কিছু বলতে চাইছে না। পুলিশের জানিয়েছে, খুব শীঘ্রই নববধূ জয়ন্তীর মৃত্যুর কারণ জানানো হবে। তদন্ত চলছে। উল্লেখ্য, গত ১৫ ডিসেম্বর যতনবাড়ির লেবাছড়া এডিসি ভিলেজের গর্জনটিলার কৃষ্ণ বণিকের সাথে জয়ন্তীর বিবাহ হয়। জানা গেছে, কৃষ্ণ বণিক পেশায় একজন অটো চালক। কৃষ্ণ তার বাড়িতে এসে দেখতে পায় জয়ন্তী ফাঁসিতে ঝুলছে। ঘটনার খবর পেয়ে জয়ন্তীর মা বাবা সহ তিন বোন ও এক ভাই ছুটে আসেন মেয়ের শ্বশুর বাড়িতে। তারা জয়ন্তীর ফাঁসিতে ঝুলন্ত দেহ দেখে হতবাক হয়ে পড়েন। তাঁদের মতে, জয়ন্তী কখনও আত্মহত্যা করতে পারে না। এমন-কি জয়ন্তীর শ্বশুরবাড়ি এলাকার পাড়া-প্রতিবেশীরাও জয়ন্তীর মৃতদেহ দেখে অবাক হয়ে গেছেন। আর সব থেকে বেশি অবাক করার বিষয় হল জয়ন্তী যখন ফাঁসিতে ঝুলছিল তখন তার পা খাটে লেগেছিল। ফাঁসিতে ঝুললে পা কিছুতেই বিছানায় লাগার কথা নয়। এই বিষয়টিই সবার মনে সন্দেহের সৃষ্টি করেছে। এটা কি আত্মহত্যা না-খুন? সবাই দ্বন্দ্বে পড়ে যান। তদন্ত করতে এসে পুলিশও দ্বন্দ্বে পড়েছে। এদিকে জয়ন্তীর পরিবারের লোকেরা মনে করেন, এই ঘটনার পেছনে শ্বশুরবাড়ির কারোর না-কারোর হাত আছে। এই রহস্যজনক মৃত্যুর পেছনে অবশ্যই বড় কোনও কারণ লুকিয়ে আছে বলে মনে করছেন জয়ন্তীর বাপের বাড়ির লোকজন এবং পাড়া-প্রতিবেশীরা। এখন সকলে ময়না তদন্তের রিপোর্টের আশায় চেয়ে আছেন বলে জানা গেছে। হিন্দুস্থান সমাচার / নবেন্দু / এসকেডি/ সঞ্জয়
लोकप्रिय खबरें
फोटो और वीडियो गैलरी
image