Hindusthan Samachar
Banner 2 गुरुवार, अप्रैल 25, 2019 | समय 09:21 Hrs(IST) Sonali Sonali Sonali Singh Bisht

সার্ভিস রাইফেলে আত্মঘাতী লঙ্গাই বিটে কর্মরত ফরেস্ট প্রটেকশন ফোর্সের জওয়ান শংকর

By HindusthanSamachar | Publish Date: Feb 7 2019 3:30PM
সার্ভিস রাইফেলে আত্মঘাতী লঙ্গাই বিটে কর্মরত ফরেস্ট প্রটেকশন ফোর্সের জওয়ান শংকর
পাথারকান্দি (অসম), ৭ ফেব্রুয়ারি (হি.স.) : নিজের সার্ভিস রাইফেলে আত্মঘাতী হয়েছেন আসাম ফরেস্ট প্রটেকশন ফোর্সের জনৈক জওয়ান। তিনি পাঁচগ্রামের বসিন্দা প্রয়াত রসেন্দ্র নাথের ৪২ বছরের ছেলে শংকর নাথ। ঘটনা গতকাল রাতে করিমগঞ্জ জেলার বাজারিছড়া থানার অন্তর্গত লোয়াইরপোয়া ফরেস্ট রেঞ্জের অধীনস্থ খাগড়াঘোড়া ফরেস্ট বিটে সংঘটিত হয়েছে। শংকর নাথ অবিবাহিত ছিলেন। লোয়াইরপোয়ার রেঞ্জ ফরেস্ট অফিসার অলোক দেবের কাছে জানা গেছে, গতকাল বুধবার লঙ্গাই ফরেস্ট বিট অফিসার নারায়ণ নন্দী এবং তাঁর সঙ্গে গোটা দিন যথারীতি ডিউটি করেছিলেন শংকর নাথ। ডিউটির সময় তাঁকে অবশ্য কিছুটা অন্যমনস্ক বলে ধারণা হয়েছিল তাঁদের। গোটা দিন কাজ শেষে নিয়মমাফিক বিট অফিসে ফরেস্ট জওয়ানদের নির্ধারিত ব্যারাকে গিয়েছিলেন শংকর। কিন্তু রাত প্রায় সাড়ে আটটা নাগাদ আচমকা তাঁর কোঠা থেকে গুলির শব্দ শোনা যায়। গুলির শব্দ শুনে সহকর্মীরা ছুটে গিয়ে দেখেন গুলিবিদ্ধ শংকর নাথ তাঁর বিছানায় চিৎ হয়ে অর্ধশায়িত অবস্থায় শুয়ে আছেন। ৩০৩ সার্ভিস রাইফেলের গুলি তাঁর বুক এ-ফোঁড় ও-ফোঁড় হয়ে গেছে। রেঞ্জার অলোক দেব জানান, মাত্র পাঁচমাস আগে লঙ্গাই বিটে নিজের কাজে যোগ দিয়েছিলেন শংকর নাথ। এ ঘটনায় বিট অফিসে হুলস্থুল পড়ে যায়। খবর দেওয়া হয় সংলগ্ন কটামণি পুলিশ ফাঁড়িতে। পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ তাঁর দলবল নিয়ে ছুটে আসেন। ইত্যবসরে খবর পেয়ে আজ বৃহস্পতিবার সকালে অকুস্থলে ছুটে আসেন বাজারিছড়া থানার ওসি গৌতম দাস এবং পাথারকান্দির সার্কল অফিসার তথা প্রশানিক ম্যাজিস্ট্রেট এল খিনতে। ম্যাজিস্রেসাটের উপস্থিতিতে আত্মঘাতী শংকর নাথের মৃতদেহ উদ্ধার করে করিমগঞ্জ সিভিল হাসপাতালে ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। পাশাপাশি আত্মহত্যায় ব্যবহৃত সার্ভিস রাইফেলও পুলিশ উদ্ধার করেছে। কোনও যান্ত্রিক গোলযোগের ফলে গুলি বেরিয়েছে কি না তা যাচাই করতে রাইফেলটি ফরেন্সিক ল্যাবে পাঠানো হবে বলে জানিয়েছেন ওসি গৌতম দাস। ওসি জানান, ইতিমধ্যে নিহত ফরেস্ট জওয়ান শংকর নাথের মৃত্যু সংবাদ তাঁর হাইলাকান্দি জেলার অন্তর্গত পাঁচগ্রামের বাড়িতে পাঠানো হয়েছে। বাড়ি থেকে তাঁর পরিবারের লোকজন এসে পৌঁছেছেন। ময়না তদন্তের পর শংকরের মৃতদেহ তাঁর পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন ওসি গৌতম দাস। এদিকে, শংকর নাথের মৃত্যুতে বন দফতর তথা তাঁর সহকর্মী মহলে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। কী কারণে তিনি আত্মহত্যা করেছেন তা নিয়ে ধন্দে সব মহল। হিন্দুস্থান সমাচার / অমল / এসকেডি/ সঞ্জয়
लोकप्रिय खबरें
फोटो और वीडियो गैलरी
image