Hindusthan Samachar
Banner 2 रविवार, फरवरी 17, 2019 | समय 09:52 Hrs(IST) Sonali Sonali Sonali Singh Bisht

বরাকের বাংলা ভাষা শহিদদের সরকারি স্বীকৃতি, এমন সাহস দেখাতে পারে বিজেপি সরকারই : কবীন্দ্র

By HindusthanSamachar | Publish Date: Feb 7 2019 3:42PM
বরাকের বাংলা ভাষা শহিদদের সরকারি স্বীকৃতি, এমন সাহস দেখাতে পারে বিজেপি সরকারই : কবীন্দ্র
শিলচর (অসম), ৭ ফেব্রুয়ারি (হি.স.) : বরাক এবং ব্রহ্মপুত্র উপত্যকাকে একাকার করতে বিজেপি জোট সরকার যে-সব পদক্ষেপ নিচ্ছে তা যে মুখের কথা নয় তা ফের একবার প্রমাণ করে দেখিয়েছে সর্বানন্দ সরকার। গতকাল ২০১৯-২০ অর্থবর্ষের যে বাজেট পেশ করা হয়েছে সে প্রসঙ্গে আজ এভাবেই প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী কবীন্দ্র পুরকায়স্থ। বরাক উপত্যকার একদশ ভাষা শহিদদের স্মৃতির উদ্দেশে ভাষা শহিদ মেমোরিয়াল গড়ে তোলা হবে। অবশেষে রাজ্যের বর্তমান বিজেপি সরকার বরাক উপত্যকার একাদশ ভাষা শহিদদের স্বীকৃতি দিতে চলেছে। এবারের বাজেটে এমন প্রস্তাব রেখেছেন অর্থমন্ত্রী হিমন্তবিশ্ব শর্মা। শুধু তা-ই নয়, বাজেট পুস্তিকা পাঠের মাধ্যমে অর্থমন্ত্রী শর্মা জানান, মহান সন্ন্যাসী স্বামী বিবেকানন্দের নামাঙ্কিত একটি সাংস্কৃতিক গবেষণা কেন্দ্রও গড়ে তোলা হবে বরাক উপত্যকায়। চলতি বাজেটে ক্রীড়া এবং সাংস্কৃতিক বিভাগের অধীনে এই পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে সরকার। সরকারিভাবে বরাক উপত্যকার ভাষা শহিদদের স্বীকৃতির কথা উল্লেখ করায় প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করতে গিয়ে প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী কবীন্দ্র পুরকায়স্থ আরও বলেন সরকারের এই নির্ণয় বরাক ব্রহ্মপুত্রকে এক করার একটি বলিষ্ঠ উদাহরণ। বর্তমান পেক্ষাপটে দাঁড়িয়ে বিজেপি সরকার যে সাহসিকতা দেখিয়েছে তা অন্য কোনও সরকার কস্মিনকালেও ভাবতে পারত না। তবে তিনি স্পষ্ট করে দিয়েছেন, এর সঙ্গে আসন্ন লোকসভা ভোটের কোনও সম্পর্ক নেই। কারণ এটা অনেক আগেই হওয়া উচিত ছিল। বরাকের মানুষের প্রতি মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সনোয়ালের এটা একটি প্রীতি উপহার বলা যেতে পারে, বলেন প্রবীণ বিজেপি নেতা কবীন্দ্র পুরকায়স্থ। এদিকে বিধানসভার প্রাক্তন উপাধ্যক্ষ তথা শিলচরের বিধায়ক দিলীপ পালকে বাজেট সম্পর্কে প্রতিক্রিয়া দিতে বললে তিনি জানান, বিজেপি সরকারই বরাকের ভাষা শহিদদের সরকারিভাবে স্বীকৃতি দিতে চলেছে। এই বিষয়টি অবশ্যই বরাক উপত্যকার প্রত্যেক মানুষের কাছে আনন্দের বার্তা। একইভাবে বড়খলার বিধায়ক কিশোর নাথ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করতে গিয়ে বলেন, একমাত্র বিজেপি সরকারই বরাক এবং ব্রহ্মপুত্র উপত্যকার মধ্যে কোনও ধরনের পার্থক্য না রেখে সব-কা সাথ সব-কা বিকাশ মন্ত্রে কাজ করে চলেছে। বরাকে উপত্যকার প্রতি মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সনোয়ালের যে সুদৃষ্টি রয়েছে তা বলার অবকাশ রাখে না। তিনি যথার্থই বরাকের একাদশ শহিদদের প্রকৃত সম্মান জানিয়েছেন। উধারবন্দের বিধায়ক মিহিরকান্তি সোম বলেন, সর্বানন্দ সনোয়াল মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার পর যতবার বরাক উপত্যকা সফর করেছেন আগের কোনও মুখ্যমন্ত্রী এর সিঁকিভাগও করেননি। শুধু তা-ই নয়, প্রত্যেকবারই তিনি তাঁর বিভিন্ন ভাষণে বরাক ও ব্রহ্মপুত্র উপত্যকার মধ্যে বন্ধুত্ব এবং উন্নয়নের সেতু বন্ধনের কথা বলে থাকেন। এবং তিনি তা করেও দেখাচ্ছেন। মিহির বলেন, একমাত্র বিজেপি সরকারই বরাক উপত্যকাকে উন্নয়নের গতি আনতে পারে। হিন্দুস্থান সমাচার / পুলক / এসকেডি/ সঞ্জয়
लोकप्रिय खबरें
चुनाव 2018
image