Hindusthan Samachar
Banner 2 मंगलवार, फरवरी 19, 2019 | समय 22:31 Hrs(IST) Sonali Sonali Sonali Singh Bisht

দুই অটো চালকের বচসাকে ঘিরে উত্তপ্ত কাঞ্চনপুর, জারি ১৪৪ ধারা

By HindusthanSamachar | Publish Date: Feb 10 2019 6:56PM
দুই অটো চালকের বচসাকে ঘিরে উত্তপ্ত কাঞ্চনপুর, জারি ১৪৪ ধারা
কাঞ্চনপুর (ত্রিপুরা), ১০ ফেব্রুয়ারি (হি.স.) : দুই অটো চালকের বচসাকে ঘিরে উত্তপ্ত হয়ে পড়েছে কাঞ্চনপুর। পরিস্থিতি এতটাই উত্তপ্ত যে কাঞ্চনপুরে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। শনিবার ঘটনার সূত্রপাত হলেও, আজ রবিবারও পরিস্থিতি উত্তেজনাপূর্ণ রয়েছে। মহকুমা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে থাকলেও কাঞ্চনপুর শহরে এখনও চাপা উত্তেজনা বিরাজ করছে। সূত্রটি জানিয়েছে, সরস্বতী পুজোর দিন রবিবার সকালেও একই চিত্র রয়েছে। সকাল থেকে কাঞ্চনপুর শহরে নিরাপত্তা বাহিনী টহল দিচ্ছে। অনান্য দিনের মতো বাজারহাট, দোকানপাট সে-রকম খুলেনি। রাস্তায় সাধারণ মানুষের উপস্থিতি খুবই কম। এদিকে, কাঞ্চনপুরে চাকমা বনাম বাঙ্গালিদের মধ্যে অবিশ্বাসের বিষ উদ্দেশ্যপূর্ণভাবে ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছে বলে স্থানীয় শুভবুদ্ধিসম্পন্ন মানুষ মনে করছেন। তাতে যে কোনও পরিস্থিতি অন্য আকার ধারণ করতে পারে বলে পুলিশেরও ধারণা। তবে পরিস্থিতির দিকে তীক্ষ্ণ নজর রেখে চলেছে পুলিশ। পুলিশের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, কেন বাঙালি এবং চাকমাদের এই অবিশ্বাসের বাতাবরণ সৃষ্টি হয়েছে সে ব্যাপারে তারা তদন্ত শুরু করেছেন। উল্লেখ্য কাঞ্চনপুরে ই-রিকশা চালক বরুণ চাকমা এবং অটো চালক নিবারণ নাথের মধ্যে যাত্রী তোলা নিয়ে বচসা বাঁধে। এর পর দুজনের মধ্যে হাতাহাতি শুরু হয়। যদিও পরে প্রাথমিকভাবে এই সমস্যার সমাধানও হয়ে যায়। কিন্তু ঝগড়া আবার ঘটে যখন ই-রিকশা চালক তার এলাকায় গিয়ে আরও চাকমা যুবকদের নিয়ে লাঠিসোটা সহ অটো চালক নিবারণ নাথের উপর হামলা করে। নিবারণ নাথের উপর হামলা করতে দেখে বাঙালি অন্যান্য অটো চালকরাও পালটা হামলা করে। এতে পরিস্থিতি ক্রমশ খারাপের দিকে যেতে থাকে। এদিকে পরিস্থিতি যাতে খারাপের দিকে না যায় সেই লক্ষ্যে পুলিশ ময়দানে নামে। কিন্তু সেই সময় কর্তব্যরত পুলিশ অফিসার দয়াল চাকমা কোনও কিছু না বোঝে বাঙালি চালকদের পেটাতে শুরু করেন বলে অভিযোগ। এতে বাঙালি অটো চালকরা আরও ক্ষিপ্ত হয়ে যান। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে পরিস্থিতি অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠে। বিষয়টি জানাজানি হতেই শুভবুদ্ধিসম্পন্ন মানুষ ঘটনা প্রতিরোধে এগিয়ে আসেন এবং প্রশাসনের হস্তক্ষেপ চান। শেষ পর্যন্ত পরস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে প্রশাসনের তরফ থেকে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়। এদিকে কাঞ্চনবাসীরা চান পুলিশ এই ঘটনার তদন্ত করুক। তারা চান চাকমা এবং বাঙালিররা সবাই যাতে এক সঙ্গে শান্তিতে বসবাস করেন। হিন্দুস্থান সমাচার / নবেন্দু / এসকেডি / কাকলি
लोकप्रिय खबरें
चुनाव 2018
image