Hindusthan Samachar
Banner 2 मंगलवार, फरवरी 19, 2019 | समय 22:31 Hrs(IST) Sonali Sonali Sonali Singh Bisht

অন্ধ্রপ্রদেশ থেকে টাকা চুরি করে অনিল অম্বানিকে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী, তোপ দাগলেন রাহুল গান্ধী

By HindusthanSamachar | Publish Date: Feb 11 2019 3:53PM
অন্ধ্রপ্রদেশ থেকে টাকা চুরি করে অনিল অম্বানিকে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী, তোপ দাগলেন রাহুল গান্ধী
নয়াদিল্লি, ১১ ফেব্রুয়ারি (হি.স.): অন্ধ্রপ্রদেশের বিশেষ মর্যাদার দাবিতে সোমবার অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী এন চন্দ্রবাবু নাইডুর একদিনব্যাপী অনশনকে সমর্থন জানিয়ে কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী প্রধানমন্ত্রীকে তোপ দেগে অভিযোগ করেন, নরেন্দ্র মোদী রাজ্যের মানুষের টাকা চুরি করে শিল্পপতি অনিল অম্বানিকে সেই টাকা দিয়ে দিয়েছেন। ২০১৪ সালে অন্ধ্রপ্রদেশ রাজ্যটি দু''ভাগে বিভক্ত হওয়ার সময় দেওয়া কেন্দ্রের প্রতিশ্রুতিগুলি পালন এবং অন্ধ্রপ্রদেশের বিশেষ মর্যাদার দাবিতে এদিন একদিনের অনশনে বসেন মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নাইডু। নাইডুর অভিযোগ, রাজ্যের বিশেষ মর্যাদাকে উপেক্ষা করে প্রধানমন্ত্রী ''রাজ্ ধর্ম''-কে অবজ্ঞা করছেন। কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগড়ে দিয়ে সোমবার সকাল আটটা থেকে দিল্লির ''অন্ধ্রপ্রদেশ ভবন''-এ একদিনের অনশন ''ধর্ম পরোতা দীক্ষা'' শুরু করেন অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী তথা টিডিপি সুপ্রিমো এন চন্দ্রবাবু নাইডু। অনশনমঞ্চে চন্দ্রবাবুর সঙ্গে দেখা করে ফিরে যান রাহুল গান্ধী। এছাড়াও এদিন অনশনমঞ্চে নাইডুর সঙ্গে দেখা করতে এসেছেন জম্মু ও কাশ্মীর ন্যাশনাল কনফারেন্স নেতা ফারুখ আবদুল্লা, প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং, লোকতান্ত্রিক জনতা দলের নেতা শরদ যাদব, সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেস নেতা ডেরেক ও''ব্রায়েন, দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল এবং ন্যাশনাল কংগ্রেস পার্টির নেতা মাজিদ মেমন। অন্ধ্র ভবনের অনশনমঞ্চ থেকে এদিন কংগ্রেস সভাপতি বলেছেন, "দেশের প্ৰধানমন্ত্ৰী অন্ধ্রপ্রদেশের মানুষের কাছ থেকে চুরি করে অনিল অম্বানিকে দিয়েছেন। এটিই হল মূল বিচার্য বিষয়।" উল্লেখ্য, রাফাল যুদ্ধবিমান চুক্তিতে রাহুল গান্ধীর আনা দুর্নীতির অভিযোগকে নাকচ করে দেন প্রধানমন্ত্রী এবং আম্বানি। রাহুল গান্ধী আরও বলেন, "প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী যেখানেই যান মিথ্যে কথা বলেন। তিনি অন্ধ্রপ্রদেশ গেলে, বিশেষ মর্যাদা নিয়ে মিথ্যে বললেন। তিনি উত্তর-পূর্ব ভারতে গেলে সেখানেও কিছু মিথ্যে বলে আসেন। মহারাষ্ট্রে গেলে আবার আরেকটি মিথ্যে বলেন। তিনি সমস্ত বিশ্বাসযোগ্যতা হারিয়েছেন।" হিন্দুস্থান সমাচার/ শ্রেয়সী
लोकप्रिय खबरें
चुनाव 2018
image