Hindusthan Samachar
Banner 2 मंगलवार, अप्रैल 23, 2019 | समय 11:27 Hrs(IST) Sonali Sonali Sonali Singh Bisht

বইমেলা না না-বইয়ের মেলা

By HindusthanSamachar | Publish Date: Feb 11 2019 4:38PM
বইমেলা না না-বইয়ের মেলা
কলকাতা, ১১ ফেব্রুয়ারি (হি. স.) : এ যেন প্রকাশক আর না-প্রকাশকের স্টলের দ্বৈরথ। উদ্যোক্তা বুক সেলার্স অ্যান্ড পাবলিশার্স গিল্ড। পোষাকি নাম বইমেলা। কিন্তু বই বিক্রেতা বা প্রকাশকের তকমাবিহীন অন্য রকম স্টলে বোঝাই। সোমবার দিনভর মেলা ঘুরে মনে রীতিমত ধন্দ কার পাল্লা ভারি? অনেক সময়ই যেন বোঝা দায় বইমেলা না না-বইয়ের মেলা। না-প্রকাশনার স্টলগুলিরও মূল লক্ষ্য প্রচার। রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার স্টল থেকে ইংরেজি ও হিন্দি ভাষায় পু্স্তিকা বিতরণ হচ্ছে গ্রাহক-সচেতনতা নিয়ে। স্টেট ব্যঙ্ক, ইউনাইটেড ব্যঙ্ক, এসবিআই লাইফ ইনসিওরেন্সের পাশাপাশি স্টল খুলেছে একগুচ্ছ সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়। এগুলির মধ্যে আছে খড়্গপুর আইআইটি, বিশ্বভারতী, কলকাতা, যাদবপুর, কল্যাণী, বর্ধমান, রবীন্দ্র ভারতী প্রভৃতি। , টেকনো ইন্ডিয়া, ব্রেনওয়্যার, আইইএম, জেআইএস গ্রুপ, বিড়লা গ্লোবাল ইউনিভার্সিটি, এনসিইআরটি, সিস্টার নিবেদিতা ইউনিভার্সিটি, সল্ট লেক সোসাইটি ফর হোটেল ম্যানেজমেন্ট, ওয়েস্ট বেঙ্গল উর্দূ অ্যাকাডেমি, এশিয়াটিক সোসাইটি, মৌলনা আবুল কালাম আজাদ ইউনিভার্সিটি অফ টেকনোলজি, প্রভৃতি। এদের অনেকের প্রকাশনা বিভাগ থাকলেও মূল পরিচিতি শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান হিসাবে। তবে সংখ্যার বিচারে বুঝি নানা ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের স্টল টেক্কা দিয়েছে অন্য রকম স্টলকে। মেলায় আছে সচ্চিদানন্দ সোসাইটি, অদ্বৈত আশ্রম, গৌরীয় মিশন, ইসকন, কাঠিয়া বাবার আশ্রম, লোকনাথ ডিভাইন লাইফ মিশন, পরম ভোলানাথ (মাস্টারমশাই) মহাসঙ্ঘ, পরমানন্দ মিশন, প্রিয়পরম শ্রী শ্রী অনুকূলচন্দ্র চর্যাশ্রম, রামকৃষ্ণ মঠ, সাধারণ ব্রাহ্ম সমাজ, শ্রী শ্রী মা আনন্দময়ী সৎসঙ্গ সম্মিলনী, শ্রী শ্রী মোহনানন্দ সমাজ সেবা সমিতি, শ্রী মহানামব্রত কালচারাল অ্যান্ড ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট, শ্রী গুরু সঙ্ঘ, শ্রী কৈবল্য ধাম, রামকৃষ্ণ মিশন ইন্সটিট্যুট অফ কালচার, বাইবেল সোসাইটি অফ ইন্ডিয়া, স্বামী সন্তদাস ইন্সটিট্যুট অফ কালচার, আহমদিয়া মুস্লিম জামাত প্রভৃতির স্টল। রাজনৈতিক মতবাদ প্রচারের জন্য আছে বিজেপি, প্রদেশ কংগ্রেস, এপিডিআর প্রভৃতির স্টল। মঙ্গলবার বিজেপি-র স্টল ঘুরে দেখেন দলের অন্যতম কেন্দ্রীয় সম্পাদক রাহুল সিনহা। কলকাতা পুরসভা, অগ্নিনির্বাপন দফতর, শিশু অধিকার সুরক্ষা আয়োগ, পাভলভ ইন্সটিট্যুট অ্যান্ড হসপিটাল, ওয়েস্ট বেঙ্গল খাদি অ্যান্ড ভিলেজ ইন্ডাস্ট্রিজ বোর্ড, স্টেট লিগ্যাল সার্ভিসেস, স্বরোজগার কর্পোরেশন, পরিবেশ দফতর, লেপচা উন্নয়ন পর্ষদ— প্রভৃতি সরকারি সংস্থা বা দফতরও যে যার মত প্রচার করছে। রাজ্য পুলিশ ও বিধাননগর পুলিশ নিয়েছে পাশাপাশি পেল্লাই দুটি করে স্টল। ন্যাশনাল জুট বোর্ড দিয়েছে তিনটি স্টল। আছে পিয়ারলেস হাসপাতাল, ফিল্মি দুনিয়ার সিনে সেন্ট্রাল, ‘হইচই’ স্টলও। ডঃ বিসি রায় মেমোরিয়াল কমিটি, নিখিল ভারত বঙ্গ সাহিত্য সম্মেলন, গান্ধী স্মারক সংগ্রহালয়, ক্যালকাটা জার্নালিস্টস ক্লাব, প্রেস ক্লাব, পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য প্রতিবন্ধী সম্মিলনীর মত সক্রিয় নানা সংস্থার স্টলের খোঁজ মিলল মেলায়। বইমেলায় আছে দি এনার্জি অ্যান্ড রিসার্চ ইন্সটিট্যুট (টেরি), সাইবার গুরু, ক্যালকাটা অ্যাসট্রোলজিক্যাল রিসার্চ সেন্টার, কর্পাস রিসার্চ ইন্সটিট্যুট, এপসন ইন্ডিয়া প্রাঃ লিঃ, আইসিআইসিআই লোম্বার্ট, সার্চ, জর্জ টেলিগ্রাফ, পাল মেডিক্যাল, পিসি চন্দ্রের মত হরেক বেসরকারি সংস্থার স্টল। বাংলাদেশ সরকার প্রতিবারই বড় স্টল দেয় বইমেলায়। ত্রিপুরা সরকার দিয়েছে তাদের পার্বত্য গবেষণা ও সাংস্কৃতিক বিভাগের স্টল। হিন্দুস্থান সমাচার/ অশোক
लोकप्रिय खबरें
फोटो और वीडियो गैलरी
image