Hindusthan Samachar
Banner 2 शुक्रवार, मार्च 22, 2019 | समय 13:26 Hrs(IST) Sonali Sonali Sonali Singh Bisht

মঙ্গলবার তৃণমূলের নির্বাচনী কমিটির বৈঠক

By HindusthanSamachar | Publish Date: Mar 11 2019 4:15PM
মঙ্গলবার তৃণমূলের নির্বাচনী কমিটির বৈঠক
কলকাতা, ১১ মার্চ (হি.স) : রবিবার ভোটের নির্ঘন্ট ঘোষণা করেছে জাতীয় নির্বাচন কমিশন ৷ আর ভোটের দিনক্ষণ ঘোষণার পরই তৃণমূল কংগ্রেস সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ১২ সদস্যের নির্বাচনী কমিটির বৈঠক ডাকলেন মঙ্গলবার । ওই দিন কালীঘাটে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাড়িতে বৈঠকে বসবেন দলের শীর্ষ নেতৃত্ব । সূত্রের খবর, সেই বৈঠকের পরই তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করতে পারেন তৃণমূল সুপ্রিমো । মঙ্গলবার কমিটি বৈঠক করে হয়তো বুধবার প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করা হতে পারে । গত সপ্তাহেই তৃণমূল কংগ্রেসের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় দলনেত্রীর নির্দেশে ১২ জন শীর্ষ নেতৃত্বেকে নিয়ে নির্বাচনী কমিটি গঠন করেন । জানান, নির্বাচনের সমস্ত কাজকর্ম দেখাশুনা করবেন ওই কমিটির সদস্যরা ৷ দলীয় সূত্রে খবর, লোকসভা নির্বাচনের প্রার্থী তালিকা একপ্রকার তৈরি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের । শুধু প্রকাশের অপেক্ষা । তবুও দলীয় ভবনে যেসব আবেদনপত্র জমা পড়েছে, নির্বাচনী কমিটি সেই আবেদন পত্র বিচার বিবেচনা করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে জমা দেবে । মঙ্গলবার দুপুরে কালীঘাটের বাড়িতে দলের নির্বাচন কমিটির বৈঠকে সে সব নিয়ে আলোচনা হবে । বৈঠকে উপস্থিত থাকবেন দলের রাজ্য সভাপতি সুব্রত বক্সী, পার্থ চট্টোপাধ্যায়, ফিরহাদ হাকিম, শুভেন্দু অধিকারী সহ ১২ জন নেতা । তৃণমূলের সূত্রে খবর, রবিবার রাতেই মমতা দলের নেতাদের সঙ্গে পৃথক পৃথক ভাবে কথা বলেছেন । রাতে দীর্ঘ আলোচনা করেছেন যুব তৃণমূল সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গেও । ফলে প্রার্থী তালিকা একপ্রকার চূড়ান্তই হয়ে গেছে । ওয়াকিবহাল মহলের মতে, যে নির্বাচনী কমিটির কথা বলা হচ্ছে তা অনেকটাই লোক দেখানো । তৃণমূলের একটাই কমিটি । তিনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । মঙ্গলবারের বৈঠকে তিনি প্রার্থীদের নাম বলবেন আর বাকিরা সম্মতি জানাবেন । অতীতে রাজ্যসভা ভোটের সময় এই রকমই হয়েছিল । পার্থ চট্টপাধ্যায়, সুব্রত বক্সী, ফিরহাদ হাকিমদের নিয়ে প্রার্থী বাছাই করতে বসেছিলেন মমতা । ওই বৈঠকে কেউই কার্যত কোনও নাম প্রস্তাব করেননি । কাদের প্রার্থী করা হবে মমতা একাই ঠিক করেন । তা ঘোষণার আগে কেউই টের পান নি । তবে লোকসভার ব্যাপারটা অন্য । প্রার্থী বাছাইয়ের কাজ ভিতরে ভিতরে অনেক আগে থেকে শুরু করে দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । সূত্রের খবর, যাঁরা প্রার্থী হবেন এরই মধ্যে তাঁদের অনেককে প্রস্তুতি শুরু করতে বলে দিয়েছেন তৃণমূল সুপ্রিমো । এর মধ্যে, যেমন গতবারের জেতা সাংসদ রয়েছেন, তেমনই রয়েছেন কয়েকজন বিধায়ক ও মন্ত্রী । তৃণমূল শিবিরের খবর, উত্তর কলকাতায় আবারও প্রার্থী হতে পারেন সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় । দক্ষিণ কলকাতায় সুব্রত বক্সি অথবা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় প্রার্থী হতে পারেন । তবে, অভিষেকের ডায়মন্ডহারবার থেকে প্রার্থী হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি । মালদহ উত্তর কেন্দ্রে মৌসম নূরকে প্রার্থী করার সিদ্ধান্ত আগেই ঘোষণা করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । বারাসত কেন্দ্র থেকে কাকলি ঘোষ দস্তিদারই প্রার্থী হচ্ছেন । নতুন মুখদের মধ্যে সবচেয়ে বড় চমক হতে পারেন মহুয়া মৈত্র এবং মারিয়া ফার্নান্ডেজ । করিমপুরের বিধায়ক মহুয়া মৈত্রকে তৃণমূল কংগ্রেসের টিকিট দেওয়া হতে পারে । মারিয়া ফার্নান্ডেজ সংখ্যালঘু কমিশনের চেয়ারপার্সন । তাঁর কেন্দ্র সম্পর্কে এখনও স্পষ্ট কিছু জানা যায়নি । বহিষ্কৃত দুই সাংসদ অনুপম হাজরা এবং সৌমিত্র খাঁর আসনে নতুন প্রার্থী খোঁজা হয়েছে । বোলপুর কেন্দ্র থেকে অনুপম হাজরার জায়গায় প্রার্থী হতে পারেন অসিত মাল । কোচবিহারে প্রার্থী হতে পারেন পার্থপ্রতিম রায় । এছাড়াও বেশ কিছু নাম নিয়ে আলোচনা চলছে । বরাবর যেদিন নির্বাচনের নির্ঘন্ট ঘোষণা হয়, সে দিনই প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করে দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । শুধু ২০০৯ এর নির্বাচনে কংগ্রেসের সঙ্গে জোট হওয়ায় সেটা হয়নি । এ নিয়ে ক্ষোভও উগরে দিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । কিন্তু এ বার তাঁর টার্গেট বিয়াল্লিশে বিয়াল্লিশটি আসন । তাই দল, প্রশাসন, পুলিশ, গোয়েন্দা, সব সূত্র থেকে খবর নিয়ে, সব দিক বিবেচনা করে অতি সতর্কতার সঙ্গে প্রার্থী তালিকা তৈরি করছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । হিন্দুস্থান সমাচার / হীরক / কাকলি
लोकप्रिय खबरें
फोटो और वीडियो गैलरी
image