Hindusthan Samachar
Banner 2 सोमवार, मार्च 25, 2019 | समय 07:00 Hrs(IST) Sonali Sonali Sonali Singh Bisht

গর্ভপাত ঘটেনি তরুনীর , দাবি এসএসসি অনশনকারীর

By HindusthanSamachar | Publish Date: Mar 12 2019 5:37PM
গর্ভপাত ঘটেনি তরুনীর , দাবি এসএসসি অনশনকারীর
কোলকাতা, ১২ মার্চ (হি.স.) : ‘ন্যায্য’ চাকরির আশায় টানা অনশনের জন্য এক এসএসসি চাকরিপ্রার্থীর গর্ভপাত ঘটেছে বলে খবর হয়| কিন্তু মঙ্গলবার অনশনের তেরো দিনের মাথায় শারীরিক শিক্ষা বিষয়ের অনশনকারী চাকরিপ্রার্থী শর্মিলা ‘হিন্দুস্থান সমাচার’কে জানান, “মেয়েটির ব্যক্তিগত চিকিত্সক বলেছেন তাঁর গর্ভপাত ঘটেনি| তিনি ওষুধের মারফত ভ্রুণকে বাঁচানোর চেষ্টা করছেন|” অনশন শুরু হওয়ার কিছুদিন পর অবস্থার অবনতি হলে ওই চাকরিপ্রার্থী কে বাড়িতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়| এরপর সে আরও অসুস্থ হয়ে পরলে সোমবার বারাসাত হাসপাতালে তাঁকে ভর্তি করা হয় | তিনি দু’মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন বলে জানা গিয়েছে। পাশাপাশি এদিন চাকুরীপ্রার্থী শর্মিলা আরও জানান, “বিয়ের প্রায় ছয় বছর পর ওই মহিলা সন্তান সম্ভবা হয়েছিল | কিন্তু হঠাত এই বিপত্তিতে কার্যত ভয় পেয়েগেছে তাঁর পরিবার | তাঁরা চাইছেন না এই বিষয়টি নিয়ে আর ঘাটাঘাটি হোক|” উত্তর ২৪পরগনার বাসিন্দা ওই তরুণীর শারীরিক অবস্থা আন্দোলনকারীদের ক্ষোভ আরও তীব্র করেছে। জেদও বেড়েছে। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী একজন মহিলা। তবু আন্দোলনকারীদের প্রতি তাঁর কোনও ইতিবাচক পদক্ষেপ দেখা যাচ্ছে না। পুলিশের আচরণ নির্দয়ের মতো। সোমবার তিনজন চাকরিপ্রার্থী অসুস্থ হয়ে পড়েন। এখনও পর্যন্ত ৪৬ জন চাকরিপ্রার্থী অসুস্থ হয়েছেন। দিন যত যাচ্ছে, পাল্লা দিয়ে বাড়ছে অসুস্থের সংখ্যাও। এর সাথে রয়েছে এসএসকেএম হাসপাতালের চিকিত্সকদের অসহযোগিতা | রবিবার রাতেই আন্দোলন আরও জোরদার করার সিদ্ধান্ত নেন নবম থেকে দ্বাদশ শ্রেণির ওয়েটিং লিস্টে থাকা এসএসসি’র চাকরিপ্রার্থীরা । রিলে অনশনের বদলে টানা অনশনের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তাঁরা। অনশন করতে গিয়ে একজন চাকরিপ্রার্থীর এহেন অবস্থা দেখে উত্তেজনা তৈরি হয়েছে বিভিন্ন মহলে। রয়েছেন আরও এক সন্তান সম্ভাবা মহিলা | তবে তাঁর বদলে অনশনে বসেছেন তাঁর মা | ২০১৬সালে এসএসসি পরীক্ষা দেন নদীয়ার পাপিয়া বোস। গর্ভবতী হওয়ার কারণে তাঁর মা ষাটোর্ধ্ব সঞ্জতি বোস অনশনে বসেছেন | তিনি জানালেন, “মেয়ের একদিকে খুশির সময়, অন্যদিকে খারাপ সময়”| প্রায় তিন বছর হতে চলল চাকরি হয়নি মেয়ের। তাই এই সময় লড়াইয়ের ময়দানে লড়াই নেমেছেন মা সঞ্জতি বোস। মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি দেওয়া সত্ত্বেও এখনও কোনও রকম পদক্ষেপ নেননি তিনি| এতেই বিক্ষোভ আরও জোড়ালো হয়ে উঠছে| প্রশ্ন উঠছে মুখ্যমন্ত্রী একজন মহিলা হওয়া সত্ত্বেও কেন এতগুলো মহিলাদের নিরাপত্তার কথা ভাবছেন না| গত ২৮ ফেব্রুয়ারি থেকে এসএসসি(স্কুল সার্ভিস কমিশন) পরীক্ষা দিয়ে উত্তীর্ণ রাজ্যের ভাবী শিক্ষকরা অবিলম্বে নিয়োগের দাবিতে অনশনে বসেছেন মেয়ো রোডে প্রেস ক্লাবের সামনে রাস্তায় । অনশন আজ তেরো দিনে পড়লো। নিজেদের ন্যায্য দাবি আদায় করতে অনশনে বসেছেন কমপক্ষে ৪০০ চাকরিপ্রার্থী৷ হিন্দুস্থান সমাচার/মৌসুমী / কাকলি
लोकप्रिय खबरें
फोटो और वीडियो गैलरी
image