Hindusthan Samachar
Banner 2 शनिवार, मार्च 23, 2019 | समय 10:48 Hrs(IST) Sonali Sonali Sonali Singh Bisht

সমাবেশের অনুমতিতে ডানা ছাঁটা হল রাজ্য প্রশাসনের, আনা হয়েছে ‘সুবিধা’

By HindusthanSamachar | Publish Date: Mar 12 2019 6:43PM
সমাবেশের অনুমতিতে ডানা ছাঁটা হল রাজ্য প্রশাসনের, আনা হয়েছে ‘সুবিধা’
কলকাতা, ১২ মার্চ (হি. স.): সমাবেশের জন্য রাজনৈতিক দলগুলোকে শুধু পুলিশ প্রশাসনের ওপর ভরসা করতে হবে না। এ বিষয়ে এবার কড়া নজর রাখবে ভারতের নির্বাচন কমিশন। কোনও সমাবেশের অনুমতি না দেওয়া হলে তার কারণ দর্শাতে হবে নির্বাচন কমিশনকে। জেলা পুলিশ কিংবা অন্যান্য দফতর যদি অনিবার্য কারণ ছাড়া মিছিল মিটিংয়ের অনুমতি না দেয় তবে কড়া পদক্ষেপ নিতে পারে ভারতের নির্বাচন কমিশন। আনা হয়েছে একটি অ্যাপ। নাম দেওয়া হয়েছে ‘সুবিধা’। এ রাজ্যে বহুবার অভিযোগ উঠেছে বিরোধীদের সমাবেশ করতে দেওয়া হয় না। বিতর্ক হয়েছে বহু। এই যেমন ফেব্রুয়ারি মাসের শুরুর দিকে মুর্শিদাবাদের সভা করার কথা ছিল বিজেপি নেতা শাহনওয়াজ হোসেনের। অভিযোগ, সভার অনুমতি দেয়নি প্রশাসন। এরপর তিনি অভিযোগ করেন, রাজ্যে আইন বলে কিছুই নেই। পরে লালবাগের হোটেলের কর্মী সভা করেন শাহনওয়াজ। উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের সভা নিয়ে টালবাহানা হয় বিস্তর। অমিত শাহের সভার অনুমতি নিয়েও টালবাহানা হয়। পরে সেই সভার অনুমতি দেওয়া হলেও অভিযোগ পিছু ছাড়েনি। শুধুমাত্র বিজেপি নয়, বাম কংগ্রেস কেও সভার অনুমতি দেওয়ার ক্ষেত্রে এ রাজ্যের প্রশাসন গড়িমসি করছে বলে অভিযোগ। মালদহে রাহুল গান্ধীর সভার অনুমতি নিয়ে টালবাহানার অভিযোগ তোলে মালদহ জেলা কংগ্রেস নেতৃত্ব। এই ধরনের বিষয়গুলি এড়ানোর জন্যই এবার বিশেষ ব্যবস্থা রয়েছে ভারতের নির্বাচন কমিশন। নির্বাচনী আচরণবিধি চালু থাকার সময় এ রাজ্য তো বটেই, দেশের যে কোনও প্রান্তে কোনও রাজনৈতিক কিংবা অরাজনৈতিক দলকে সভা-সমিতি কিংবা মিছিল করতে হলে আবেদন করতে হবে এই অ্যাপের মাধ্যমে। সেই আবেদনের সঙ্গে দিতে হবে প্রস্তাবিত সভাস্থলের জমির মালিক সহ অন্যান্য অনুমতি পত্র। মিটিং-মিছিলের সেই আবেদন খতিয়ে দেখে অনুমতি দেবে প্রশাসন। আর যদি অনুমতি না দেওয়া হয় তাহলে এই অ্যাপেই কারণ দর্শাতে হবে প্রশাসনের সংশ্লিষ্ট মহলকে। নির্বাচন কমিশন সূত্রে এমনই খবর মিলেছে। ইতিমধ্যেই জেলা পুলিশ এবং লালবাজারের সংশ্লিষ্ট অফিসাররা এ রাজ্যের মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিকের দফতরে এই অ্যাপের বিষয়ে খুঁটিনাটি জেনে গেছেন। ‘সুবিধা’-য় আবেদন করার পর সংশ্লিষ্ট দল এই অ্যাপেই জেনে যাবে আবেদনের আপডেট। অনুমতি দেওয়া হল নাকি নাকচ করা হলো সেটিও জানা যাবে এই অ্যাপেই। রাজ্যের মুখ্য নির্বাচন আধিকারিকের দফতরের এক কর্তা বলেন, “বিষয়টিতে কড়া নজর রাখছে নির্বাচন কমিশন। যদি উপযুক্ত কারণ ছাড়া আবেদন নাকচ করা হয় তবে সংশ্লিষ্ট অফিসারদের শাস্তির মুখে পড়তে হতে পারে।" হিন্দুস্থান সমাচার/ অশোক / কাকলি
लोकप्रिय खबरें
फोटो और वीडियो गैलरी
image