Hindusthan Samachar
Banner 2 सोमवार, मार्च 25, 2019 | समय 07:17 Hrs(IST) Sonali Sonali Sonali Singh Bisht

সোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল নুসরত, প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবে নির্বাচন দফতর

By HindusthanSamachar | Publish Date: Mar 14 2019 9:11PM
সোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল নুসরত, প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবে নির্বাচন দফতর
কলকাতা, ১৪ মার্চ (হি.স.) : সোস্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল তৃণমূল প্রার্থী নুসরত জাহানের একটি বিকৃত অশ্লীল ছবি। যা নজরে এসেছে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিকের কার্যালয়ের। এ বিষয়ে তারা স্বতঃপ্রণোদিত পদক্ষেপ নিচ্ছে। অতিরিক্ত মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক সঞ্জয় বসু এদিন জানিয়েছেন, প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে। সোস্যাল মিডিয়ায় এখন প্রায় সবার পরিচিত মুখ স্যান্ডি সাহা। নানারকম অঙ্গভঙ্গি, কৌতূক ও বিতর্কমূলক কথা বার্তা বলে এখন তার ফ্যানস্ ও ফলোয়ারস্ সংখ্যা প্রচুর। সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে হেটার্স সংখ্যাও। তবে তাতে থোরাই কেয়ার স্যান্ডি সাহার? ‘কলকাতা গসিপ’ নাম একটি ফেসবুক গ্রুপে “মিমি, নুসরাতের চেয়েও আমি আরোও বেশি সেক্সি, আমিও ভোটে দাঁড়াতে চাই” এই শিরোনামে তাঁর একটি ফেসবুক লাইভ রীতিমত ভাইরাল হয়ে গিয়েছে| বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটা পর্যন্ত ১ লক্ষ ২১ হাজার ৯১৭ জন দেখেছেন সেটি| একটি লাইভ ভিডিওতে তার সরকারের কাছে আবদার, ভোটে দাঁড়াতে চায় সে। স্যান্ডি-র কথায়, “আমি এসেছি ভোটে দাড়াতে। কাইন্ডলি আপনারা অনুরোধ করুন যে আমিও ভোটে দাড়াতে পারি। অভিনেত্ৰীরা দাড়ালে আমি কেন দাড়াবো না? আমি তো সবার চেয়ে সেক্সি| রাজ্যে অনেক মিল্ক ফ্যাক্টরি খুলে দেবো| দেশে বেকারত্ব থাকবে না। কথা দিলাম|” এবিষয়ে অতিরিক্ত মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক সঞ্জয় বসু বলেন, "সোশাল মিডিয়ায় বিকৃত ছবি সংক্রান্ত সেরকম বিষয় নজরে এলে আমরা প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেব। অভিযোগ না এলেও স্বতঃপ্রণোদিতভাবে ব্যবস্থা নেওয়া হতে পারে।" নির্বাচনী নির্ঘণ্ট ঘোষণার দিনই দেশের মুখ্য নির্বাচন কমিশনার সুনীল অরোরা জানিয়ে দিয়েছিলেন এবার নজরে থাকবে সোশাল মিডিয়াও। সেই কাজ ইতিমধ্যেই শুরু করে দিয়েছে এ রাজ্যের মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিকের কার্যালয়। সেখানে তৈরি করা হয়েছে একটি পৃথক মনিটরিং সেল। যারা প্রতি মুহূর্তে নজর রাখছে মিডিয়া এবং সোশাল মাধ্যমে। সূত্রের খবর, তৃণমূল প্রার্থী নুসরত জাহানের যে ছবি ভাইরাল হয়েছে সেটি নজরে পড়েছে তাদের। প্রার্থী হিসাবে নাম ঘোষণার পর থেকেই সোশাল মিডিয়ায় একের পর এক ট্রোলের শিকার যাদবপুরের তৃণমূল প্রার্থী মিমি চক্রবর্তী ও বসিরহাটের নুসরত জাহান। যদিও কমিশন সূত্রে খবর, যতক্ষণ পর্যন্ত কোনও প্রার্থী মনোনয়ন জমা না দিচ্ছেন ততক্ষণ পর্যন্ত সরকারিভাবে তিনি প্রার্থী নন। আর তাই নির্বাচনী আচরণবিধি এক্ষেত্রে ভাঙা হচ্ছে না। তবে, প্রার্থী হওয়ার পর যদি এই ধরনের ছবি নিয়ে কেউ প্রচার চালায় সেটি নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন বলে গণ্য করা হবে। হিন্দুস্থান সমাচার/ অশোক/ সঞ্জয়
लोकप्रिय खबरें
फोटो और वीडियो गैलरी
image