Hindusthan Samachar
Banner 2 शुक्रवार, अप्रैल 19, 2019 | समय 08:24 Hrs(IST) Sonali Sonali Sonali Singh Bisht

অসমে ভোট পড়েছে ৭৬ শতাংশ, বাড়বে হার : সিইও

By HindusthanSamachar | Publish Date: Apr 11 2019 10:03PM
অসমে ভোট পড়েছে ৭৬ শতাংশ, বাড়বে হার : সিইও
গুয়াহাটি, ১১ এপ্রিল (হি.স.) : অসমে পাঁচ আসনে প্রথম দফার ভোট শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন হয়েছে। রাত সাতটা পর্যন্ত ওই পাঁচ আসনে গড়ে ৭৬ শতাংশ ভোটদান হয়েছে বলে রাজ্য নির্বাচন দফতর সূত্রের খবরে জানা গেছে। বেশ কয়েকটি কেন্দ্রে এই খবর লেখা পর্যন্ত ভোট চলছে বলে জানা গেছে। ফলে ভোটের হার আরও বাড়বে বলে আশা ব্যক্ত করেছেন রাজ্যের মুখ্য নির্বাচন আধিকারিক মুকেশ সাহু। আজ প্রথম দফার ভোট হচ্ছে যে পাঁচ আসন সেগুলি যথাক্রমে ৯ নম্বর তেজপুর, ১১ নম্বর কলিয়াবর, ১২ নম্বর যোরহাট, ১৩ নম্বর ডিব্রুগড় এবং ১৪ নম্বর লখিমপুরে। এখন পর্যন্ত যে খবর পাওয়া গেছে তাতে তেজপুরে ৭০, কলিয়াবরে ৭৫, ডিব্ৰুগড়ে ৭১, যোরহাটে ৭২ এবং লখিমপুরে ৭৪ শতাংশ ভোটদান হয়েছে। রাজ্যের মুখ্য নির্বাচন আধিকারিক মুকেশ সাহু জানান, সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনের প্রথম দফার ভোট পর্ব আজ সকাল সাতটা থেকে শুরু হয়েছে। ভোটপ্রক্রিয়া শান্তিপূৰ্ণভাবে চলছে। প্ৰতিটি ভোটকেন্দ্ৰে দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে ভোট দিচ্ছেন মহিলা ও পুরুষরা। নিজের গণতান্ত্ৰিক অধিকার সাব্যস্ত করতে এই উৎসাহ ভালো লক্ষণ বলে মনে করেন মুখ্য নির্বাচন আধিকারিক। তিনি জানান, রাজ্যের বিভিন্ন ভোটকেন্দ্ৰে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম)-এ বিভ্রাটের দরুন সংশ্লিষ্ট বুথগুলিতে হাঙ্গামার সৃষ্টি হয়েছে। এগুলোর মধ্যে তেজপুর লোকসভা আসনের অন্তর্গত বিশ্বনাথ বিধানসভা এলাকার সতিয়া ৯ নম্বর বরালিমরা বুথে সংস্থাপিত ইভিএমে হাতের ছবিতে বোতাম টিপলে পদ্মফুলে, আবার পদ্মফুলে বোতাম টিপলে হাতের চিহ্নে ভোট পড়ে৷ এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ জনতা বন্ধ করে দেন ভোটগ্ৰহণ প্ৰক্ৰিয়া। খবর পেয়ে তৎক্ষণাৎ ছুটে যান জোনাল ও সেক্টর অফিসার। তাঁরা ইভিএম বদল করে প্রায় ঘণ্টাখানেক পর ফের ভোট গ্রহণ প্রক্রিয়া শুরু করেন। এভাবে যোরহাটের ১১৩ নম্বর বেকাজান উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় এবং ৮৯ নম্বর খঙিয়াগাঁও স্কুলের বুথ, কলিয়াবরের ১৮৭ নম্বর কপাহেরা মধ্য ভোটকেন্দ্ৰ এবং বোকাখাতের ৮৪ নম্বর বুড়াজান প্ৰাথমিক বিদ্যালয়ে ভোটকেন্দ্ৰের ইভিএমগুলি নানা ভাবে বিকল হয়ে পড়েছে। এছাড়া ডিগবয়ের বিবেকানন্দ উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় এবং পানবাড়ি এলপি স্কুল কেন্দ্ৰ, ধেমাজি টাউন এমই স্কুল, রাঙাপাড়ার গোদামঘাট মিরিগাঁও স্কুল, বটদ্ৰবার রাইডঙিয়া এলপি স্কুল, সরুপথারের বারঘরিয়া গ্রাম, সরুপথারের ১ নম্বর রংবাং প্রাইমারি স্কুল, মাৰ্ঘেরিটার ২ নম্বর আলোবাড়ি, টিয়কের বামকুকুরাচোয়া প্ৰাথমিক বিদ্যালয়, চেপনের খাগরিজান চা বাগান এলপি স্কুল, চকলিয়া উচ্চ ইংরেজি বিদ্যালয়, ধিঙের ২ নম্বর পুঠিমারি মোক্তাব স্কুল, তেজপুরের ১৯৫ নম্বর গান্ধী আশ্ৰম, গোলাঘাটের মাক্রাং চা বাগানের ৪৬ নম্বর বুথ, গোলাঘাটের নাওবৈসা প্রাইমারি স্কুল, গোলাঘাটের ৯৩ নম্বর রতনপুর বুথ (অগপ-র হাতি চিহ্নে বোতামে গোলযোগ), খুমটাইয়ের কাব্রগাঁও প্রাইমারি স্কুল, খুমটাইয়ের ৯৪ রচাকিয়াল মধ্য ব্রহ্মপুত্র গ্রাম পঞ্চায়েত, দেড়গাঁওয়ের ৪৭ নম্বর ভকতিয়াগাঁও প্রাইমারি স্কুল, কলিয়বরের দাউগ্লঙে পণ্ডিত গোস্বামী বিদ্যাপীঠের ভোট কেন্দ্রের বুথে সংস্থাপিত ইভিএমে গোলযোগ ধরা পড়লে সংশ্লিষ্ট কেন্দ্রগুলিতে কিছু সময়ের জন্য ভোটপ্রক্রিয়া স্থগিত রাখা হয়। এগুলির মধ্যে কয়েকটিতে ইভিএম বদল করে আবার কয়েকটি মেরামত করে আধা থেকে দেড় ঘণ্টা পর পুনরায় ভোট পর্ব শুরু হয়। রাজ্য নির্বাচন আধিকারিক জানান, যে সব বুথে ভোট গ্রহণে বিলম্ব হয়েছে সেগুলিতে ভোটের শেষ সময়সীমা বাড়িয়ে ভোটগ্রহণ হচ্ছে। তিনি জানান, প্রথম দফার ভোটে বিভিন্ন দলের ৪১ জন প্ৰাৰ্থীর ভাগ্য নির্ণয় করবেন জনতা জনার্দন। নির্বাচন আধিকারিক জানান, প্ৰথম দফা নির্বাচনে মোট ভোটারের সংখ্যা ৭৫,১৬,২৮৪। পাঁচ আসনের জন্য ৯,৫৭৪টি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ হয়েছে। সব কেন্দ্রে উপযুক্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা করা হয়েছিল। হিন্দুস্থান সমাচার / এসকেডি/ কাকলি
लोकप्रिय खबरें
फोटो और वीडियो गैलरी
image