Hindusthan Samachar
Banner 2 शुक्रवार, अप्रैल 19, 2019 | समय 08:19 Hrs(IST) Sonali Sonali Sonali Singh Bisht

আপডেট : পাকিস্তানের কোয়েটায় সব্জি বাজারে আইইডি বিস্ফোরণ, মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২০

By HindusthanSamachar | Publish Date: Apr 12 2019 4:49PM
আপডেট : পাকিস্তানের কোয়েটায় সব্জি বাজারে আইইডি বিস্ফোরণ, মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২০
ইসলামাবাদ ও কোয়েটা, ১২ এপ্রিল (হি.স.): শক্তিশালী বিস্ফোরণে কেঁপে উঠল পাকিস্তানের কোয়েটার হাজারগঞ্জি সব্জি বাজার| ইম্প্রোভাইসড এক্সপ্লোসিভ ডিভাইস (আইইডি) বিস্ফোরণে প্রাণ হারালেন অন্ততপক্ষে ১৮ জন| এছাড়াও আহতের সংখ্যা অন্ততপক্ষে ৪৮| শুক্রবার সকাল ৭.৩৫ মিনিট নাগাদ পাকিস্তানর বালুচিস্তান প্রদেশের প্রাদেশিক রাজধানী কোয়েটার, হাজারগঞ্জি সব্জি বাজারে জোরালো বিস্ফোরণ হয়| কোয়েটার ডিআইজি আব্দুল রাজাক চীমা জানিয়েছেন, প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে আইইডি-র সাহায্যে বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছে| বিস্ফোরণে একজন এফসি আধিকারিক-সহ ২০ জনের মৃত্যু হয়েছে| এছাড়াও ৪ জন নিরাপত্তা আধিকারিক-সহ প্রায় ৪৮ জন আহত হয়েছেন, তাঁদের উদ্ধার করে নিকটবর্তী বোলানি মেডিক্যাল কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে| ভয়াবহ বিস্ফোরণের তীব্র নিন্দা করেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান| তিনি এই বিস্ফোরণের ঘটনায় বিস্তারিত তথ্য চেয়েও পাঠিয়েছেন| দুঃখপ্রকাশ করেছেন পাকিস্তানের রাষ্ট্রপতি ড. আরিফ আলভিও| ডিআইজি আব্দুল রাজাক চীমা আরও জানিয়েছেন, নিহত ২০ জনের মধ্যে ৮ জন হাজারা সম্প্রদায়ের মানুষ| প্রশাসন সূত্রের খবর, সকাল তখন ৭.৩৫ মিনিট হবে, হাজারিগঞ্জি সব্জি বাজার জোরালো বিস্ফোরণে কেঁপে ওঠে| সকালের ব্যস্ত সময়ে সব্জি বিক্রেতা-সহ প্রচুর মানুষ সেই সময় বাজারে উপস্থিত ছিলেন| তাঁদের মধ্যে প্রথমে ১৬ জনের মৃত্যু হয়, পরে আরও ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে| এছাড়াও আহতের সংখ্যা ৪৮-এরও বেশি| পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, জোরালো বিস্ফোরণের জেরে বাজার সংলগ্ন বেশ কয়েকটি বাড়িও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে| এখনও পর্যন্ত কোনও সন্ত্রাসবাদী সংগঠন হামলার দায় স্বীকার করেনি| ডিআইজি আরও জানিয়েছেন, এটা আত্মঘাতী হামলা, না কি কেউ আইইডি রেখে গিয়েছিল তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে| সন্দেহ করা হচ্ছে, আলুর বস্তাতে আইইডি রাখা ছিল| বিস্ফোরণের সময় বাজারেই উপস্থিত ছিলেন ইরফান খান নামে একজন শ্রমিক| তিনি বলেছেন, ‘একটি ছোট ট্রাকে মালপত্র বোঝাই করছিলাম আমি| তখনই বিকট শব্দে গোটা এলাকা কেঁপে ওঠে| মাটিও কেঁপে ওঠে, গোটা এলাকা কালো ধোঁয়া ও রক্তে ভেসে যায়|’ হামলার তীব্র নিন্দা করেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান| তিনি এই বিস্ফোরণের ঘটনায় বিস্তারিত তথ্য চেয়েও পাঠিয়েছেন| মাইক্রোব্লগিং সাইট টুইটার মারফত দুঃখপ্রকাশ করে প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান জানিয়েছেন, নির্দোষ মানুষকে নিশানা করে হাজারগঞ্জি মার্কেট এলাকায় সন্ত্রাসী হামলার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি| এই হামলায় আমি দুঃখিত| অবিলম্বে তদন্তের জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে এবং জনগণের নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে| মৃতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা এবং আহতেদর দ্রুত আরোগ্য কামনা করছি| প্রধানমন্ত্রীর পাশাপাশি হামলার তীব্র নিন্দা প্রকাশ করেছেন পাকিস্তানের রাষ্ট্রপতি ড. আরিফ আলভি| বিবৃতি মারফত রাষ্ট্রপতি জানিয়েছেন, সন্ত্রাসীদের ঘৃন্য অপরাধ এটাই জানান দিচ্ছে যে সন্ত্রাসীদের বিলুপ্ত করা এখনও বাকি রয়েছে| হিন্দুস্থান সমাচার/ রাকেশ
लोकप्रिय खबरें
फोटो और वीडियो गैलरी
image