Hindusthan Samachar
Banner 2 मंगलवार, अप्रैल 23, 2019 | समय 08:03 Hrs(IST) Sonali Sonali Sonali Singh Bisht

দেশকে সুরক্ষিত রাখতে বিজেপিকে পরাস্ত করার ডাক এপিসিসির

By HindusthanSamachar | Publish Date: Apr 12 2019 9:34PM
দেশকে সুরক্ষিত রাখতে বিজেপিকে পরাস্ত করার ডাক এপিসিসির
হাইলাকান্দি (অসম), ১২ এপ্রিল (হি.স.) : বিজেপি-র হাতে বর্তমানে ভারতবর্ষ অসুরক্ষিত। হিন্দু মুসলমানদের মধ্যে বিভাজন ঘটিয়ে ফের দেশকে টুকরো করতে চাইছে বিজেপি। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী দেশের সম্পদ নির্বিচারে বিক্রি করে যাচ্ছেন বিদেশি পুঁজিপতিদের হাতে। তাই দেশকে সুরক্ষিত রাখতে বিজেপিকে পরাস্ত করার ডাক দিলেন অসম প্রদেশ কংগ্রেস কমিটির সভাপতি রিপুন বরা। শুক্রবার হেলিকপ্টারে চড়ে হাইলাকান্দি জেলায় দলীয় প্রার্থী স্বরূপ দাসের পক্ষে তিনটি নির্বাচনি সভা করলেন অসম প্রদেশ কংগ্রেস কমিটির সভাপতি রিপুন বরা। লালার টান্টু নতুনবাজার, মনাছড়ার গোদামঘাট ও সরসপুর চা বাগানে এদিন জোরদার প্রচারাভিযান চালান রিপুন। প্রতিটি সভায় তিনি বিজেপিকে একহাত নিয়ে বলেন, গেরুয়া দল বিজেপি এবং এআইইউডিএফ একই মুদ্রার এপিঠ আর ওপিঠ।। বিভিন্ন ভাষাভাষীর মানুষ নিয়ে গঠিত ভারতবর্ষ। বর্তনামে বিজেপি ক্ষমতায় আসার পর দেশ এবং দেশের জনগণ মোটেও সুরক্ষিত নন। আরএসএস পরিচালিত বিজেপি সরকার দেশকে চরম ক্ষতির মুখে ঠেলে দিচ্ছে। একদিকে সাম্প্রদায়িকতার বিষবাষ্পে জেরবার দেশ, অন্যদিকে বিদেশির হাতে দেশের মূল্যবান সম্পদ তুলে দিচ্ছেন মোদী। কংগ্রেসের শাসনব্যবস্থায় দেশে এমন পরিস্থিতির সৃষ্টি কখনও হয় নি। সর্বধর্মকে সাথে নিয়ে চলছে কংগ্রেস। বর্তমানে বিজেপি সরকার একতরফা মনোভাব নিয়ে কাজ করছে। এই বিজেপিকে ক্ষমতায় আনার নেপথ্য নায়ক হলেন এআইইউডিফের সুপ্রিমো বদরউদ্দিন আজমল। একজন ইন্টারন্যাশনাল ব্যবসায়ী নিজের ব্যবসা বাঁচাতে সমস্ত মুসলিম সমাজকে বিজেপির হাতে তুলে দিয়ে নিজে ফায়দা লুটছেন। বিগত কংগ্রেস সরকার শত শত প্রকল্প চালু করছিল সাধারণ গরিব মানুষের কল্যাণের কথা চিন্তা করে। কিন্ত বিজেপি সরকার এসে অনেক প্রকল্প বন্ধ করে দিয়েছে। মোদী ক্ষমতায় আসার আগে জনগণকে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, ডিটেনশন ক্যাম্প বন্ধ করবেন, কৃষিঋণ মকুব করবেন, দেশের বেকারদের বছরে চাকরি দেবেন। কিন্ত মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দিয়ে ক্ষমতায় এসে কোনও কাজ করতে পারেননি তিনি। কৃষি ঋণ মাফ না করে উলটো ঘাড়ে চাপিয়ে দিয়েছেন। জেলা কংগ্রেস সভাপতি জয়নাল উদ্দিন লস্করের পৌরোহিত্যে অনুষ্ঠত সভায় রিপুন বরা জোর গলায় বলেন, রাহুল গান্ধীর নেতৃত্বে ফের কংগ্রেস সরকার ক্ষমতায় আসছে। তাঁদের সরকার ক্ষমতায় আসার পর ডিটেনশন ক্যাম্প তুলে নেওয়া হবে। এনআরসি-র নামে হয়রানি বন্ধ হবে। সব গরিবের প্রকল্প ফের চালু করা হবে। ধর্মের নামে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল কংগ্রেস মানবে না বলেও মন্তব্য করেন রিপুন বরা। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী মোদী ছয় জনগোষ্ঠীকে জনজাতিকরণের কথা বলে বলে পাঁচ বছর কাটিয়ে দিয়েছেন। কিন্ত তা করতে পারেননি। নির্বাচনের সময় এই ইস্যু এবারও চাঙ্গা করেছেন। বিজেপি নেতা তথা মন্ত্রী হিমন্তবিশ্ব শর্মা গতকাল অনুষ্ঠিত ভোটে পাঁচ আসনে তাঁরা জয়ী হবেন বলে যে দাবি করছেন তাকে পাগলের প্রলাপ বলে মনে করেন রিপুন। সভায় প্রাক্তন মন্ত্রী সিদ্দেক আহমেদ তাঁর বক্তব্যে বলেন, মোদী সরকার ক্ষমতায় আসার পর শুধু মুসলিমদের ওপর অত্যাচার চলছে। এর প্রতিবাদ শুধু কংগ্রেস জোর গলায় করছে। এই সরকারকে পাস দিতে বদরউদ্দিনের দল নানা ফন্দি আঁটছে। আজকের সভায় অন্যদের মধ্যে অসম প্রদেশ কংগ্রেসের সম্পাদক দিলোয়ার হোসেন বড়ভুইয়াঁ, দাইয়ান হোসেন, জেলা কংগ্রেসের সভাপতি জয়নাল উদ্দিন লস্কর, লালা ব্লক মণ্ডল কংগ্রেস সভাপতি শুভ্রজ্যোতি নাথ, প্রকাশচাঁদ সুরানা, একলাস উদ্দিন বড়ভুইয়াঁ, মণ্টু লস্কর প্রমুখ নেতার ছিলেন। হিন্দুস্থান সমাচার / তুতন / এসকেডি/সঞ্জয়
लोकप्रिय खबरें
फोटो और वीडियो गैलरी
image