Hindusthan Samachar
Banner 2 मंगलवार, अप्रैल 23, 2019 | समय 07:39 Hrs(IST) Sonali Sonali Sonali Singh Bisht

অসুস্থ ছাত্রকে দেখতে আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার হাসপাতালে

By HindusthanSamachar | Publish Date: Apr 12 2019 9:53PM
অসুস্থ ছাত্রকে দেখতে আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার হাসপাতালে
কলকাতা, ১২ এপ্রিল (হি. স.): অনশনে অসুস্থ ছাত্রকে দেখতে শুক্রবার আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার আমজাদ হোসেন হাসপাতালে যান| বিশ্ববিদ্যালয়ের ইলেকট্রিক্যাল বিভাগের ছাত্র গিয়াসউদ্দিন মন্ডল হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাঁকে ভর্তি করা হয় বিধাননগর মহকুমা হাসপাতালে। শারীরিক অবনতি হওয়ায় তাঁকে অক্সিজেন দিতে হয়। আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে অনশনের ১০ দিন অতিক্রান্ত হয়ে যাওয়ার পরও বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে কোনও রকম প্রতিক্রিয়া মেলেনি। অনশনকারী আর্শাদ হোসেন ‘হিন্দুস্থান সমাচার’-কে এ কথা জানিয়ে বলেন, "অনশনকারী ছাত্ররা অনশন আরও দীর্ঘায়িত করে চালিয়ে যেতে চায়। এই অবস্থায় আজ শুক্রবার জুম্মার নামাজ শেষ হওয়ার পর গিয়াসউদ্দিন অসুস্থ হয়ে পড়েন। একদিকে যখন অসুস্থ পড়ুয়ারা লাইন দিয়ে হসপিটালের শয্যায়, অন্যদিকে অনশনকারী ছাত্ররা পড়াশোনার পরিবেশ ফিরে আসার জন্য দিন গুনছেন।" অতিরিক্ত গরমে বাকি ছাত্ররাও অসুস্থ হয়ে পড়বে আশঙ্কা। গত কয়েক দিন দেখা গেছে অনশনে কেউ না কেউ অসুস্থ হয়ে পড়ছে। অনশনকারীদের অভিযোগ, বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বারবার অনশন তুলে নেওয়ার কথা বলছেন, অনশন তোলার জন্য কর্তৃপক্ষ শিক্ষক প্রতিনিধিদের অনশন মঞ্চে পাঠাচ্ছেন। কিন্তু অনশনকারী পড়ুয়াদের পড়াশোনার পরিবেশ ফিরিয়ে আনার জন্য কোনও ভাবে কর্তৃপক্ষ বা শিক্ষকরা সহযোগিতা করছেন না। আন্দোলনকারী এক ছাত্র বলেন, “সব সময় একটাই কথা কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে পাওয়া গেছে যে তোমরা অনশন তুলে নাও আমরা ভেবে দেখছি। এখন প্রশ্ন উঠছে দশ দিন অতিক্রান্ত হয়ে যাওয়ার পরও কর্তৃপক্ষ কি এখনও কিছু ভেবে উঠতে পারল না? কেনই বা কোনও পদক্ষেপ এলো না? শিক্ষার জন্য ছাত্রদের যদি অনশন করতে হয়, সেটা কি ন্যায় বিচার? আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে অবৈধভাবে বহিষ্কার হওয়া ছাত্রদের এবং পড়াশোনার পরিবেশ যতদিন পর্যন্ত ফিরিয়ে না আনা হচ্ছে, অনশনকারীরা তাদের অধিকার ফিরিয়ে পাওয়ার জন্য তাদের অনশন জীবনের চালিয়ে যাবে।" হিন্দুস্থান সমাচার/ অশোক / কাকলি
लोकप्रिय खबरें
फोटो और वीडियो गैलरी
image