Hindusthan Samachar
Banner 2 मंगलवार, अप्रैल 23, 2019 | समय 07:38 Hrs(IST) Sonali Sonali Sonali Singh Bisht

কেন্দ্রে ফের বিজেপি-জোট সরকার, তখন ২৪৪ (ক) অনুচ্ছেদ কার্যকরী হবে পাহাড়ে : হাগ্রামা

By HindusthanSamachar | Publish Date: Apr 12 2019 9:59PM
কেন্দ্রে ফের বিজেপি-জোট সরকার, তখন ২৪৪ (ক) অনুচ্ছেদ কার্যকরী হবে পাহাড়ে : হাগ্রামা
ডিফু (অসম), ১২ এপ্রিল (হি.স.) : কারবি আংলং জেলার বকোলিয়াঘাটের লাংহিঙে বিজেপি প্রার্থী হরেনসিং বে-র হয়ে প্রচারে এসে ঝড় তুলে গেলেন বিটিসি-প্রধান তথা বিপিএফ-সুপ্রিমো হাগ্রামা মহিলারি এবং রাজ্যসভার সদস্য বিশ্বজিৎ দৈমারি। কারবি পাহাড়ের লাংহিং থেকে চার কিলোমিটার দূরবর্তী জামুগুড়িতে অনুষ্ঠিত এক নির্বাচনি জনসভায় বিটিসি-প্রধান হাগ্রামা মহিলারি কেন্দ্রে দ্বিতীয়বারের জন্য বিজেপি সরকার গঠন হচ্ছে তা একপ্রকার নিশ্চিত বলে দাবি করে বলেন, কেন্দ্রে পুনরায় বিজেপি সরকার গঠন হবে। তখন ২৪৪ (ক) অনুচ্ছেদ কার্যকরী হবে। আজকের জনসভায় হাগ্রামা কংগ্রেসের তীব্র সমালোচনা করে বলেন, পনেরো বছরের কংগ্রেস শাসনে অসমের জনগণ কিছুই পাননি। তিনি বলেন, বিজেপি ক্ষমতায় আসার পর বহু পরিবর্তন হয়েছে রাজ্যের। স্বভাবসিদ্ধ ভাষণে হাগ্রামা মহিলারি বলেন, কারবি আংলং এবং ডিমা হাসাও জেলা স্বশাসিত রাজ্যের মর্যাদা লাভ করলে তার পর বড়োল্যান্ডেরও একই দাবি উত্থাপন করার পথ সুগম হবে। তিনি বলেন, বিটিসি এলাকায় বড়ো অবড়ো রাজনীতির সঙ্গে জড়িত একাংশ অবড়ো এলাকা বিটিসি থেকে কর্তন করার দাবি উত্থাপিত হওয়ায় বড়োল্যান্ড স্বশাসিত রাজ্যের দাবি উত্থাপন করা সম্ভব হচ্ছে না। তবে কারবি আংলং এবং ডিমা হাসাও জেলাকে স্বশাসিত রাজ্যের মর্যাদা প্রদানের দাবির পাশাপাশি বিটিসি সরকার এক গুলিতে দুই শিকারের নীতি গ্রহণ করেছে বলে মন্তব্য করেন হাগ্রামা। তিনি বলেন, কেন্দ্রে বিজেপি সরকার গঠন হলে ষষ্ঠ অফশিলিভুক্ত এলাকার জন্য বিশেষ ছাড় দিতে লিখিতভাবে দাবি জানানো হবে। নির্বাচনি জনসভায় রাজ্যসভার সদস্য বিপিএফ নেতা বিশ্বজিৎ দৈমারি বলেন, বিজেপি সরকার আসার পর বহু উন্নয়ন হয়েছে দেশে ও অসমে। দেশ এখন মজবুত স্থানে অবস্থান করেছে। বিজেপি পুনরায় কেন্দ্রে ক্ষমতায় আসবে এবং আগামী পাঁচ বছরে পার্বত্য জেলাবাসী স্বশাসিত রাজ্যের মর্যাদা লাভ করবেন বলে আশা ব্যক্ত করেন বিশ্বজিৎ। কারবি স্বশাসিত পরিষদের সিইএম তুলিরাম রংহাং ভাষণ দিতে গিয়ে বলেন, গত ১৫ দিন আগে তিনি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করে পার্বত্য এলাকার রাজনৈতিক দাবি-সমূহ অবগত করানোর পর প্রধানমন্ত্রী এ-ক্ষেত্রে তাঁর সদিচ্ছা প্রকাশ করেছেন। অসম বিভাজন নয়, বরং বৃহৎ অসম গড়ার লক্ষ্যে পার্বত্য জেলায় বসবাসরত সব জাতি জনগোষ্ঠীর মানুষকে সঙ্গে নিয়ে পার্বত্য জেলার উন্নয়নে কাজ করে যাওয়ার জন্য নাকি মোদীজি তাঁকে পরামর্শ দিয়েছেন। নির্বাচনি জনসভায় বিটিসির দুই নেতা হাগ্রামা মহিলারি ও বিশ্বজিৎ দৈমারি পার্বত্য জেলার সার্বিক উন্নয়নে বিজেপি প্রার্থী হরেনসিং বে-কে বিপুল ভোটে জয়ী করার আহ্বান জানান। বকোলিয়াঘাটের লাংহিঙে আয়োজিত নির্বাচনি সমাবেশে বিশাল সংখ্যার জনতা উপস্থিত ছিলেন। হিন্দুস্থান সমাচার / নিরুপম / এসকেডি / কাকলি
लोकप्रिय खबरें
फोटो और वीडियो गैलरी
image