Hindusthan Samachar
Banner 2 रविवार, अप्रैल 21, 2019 | समय 01:46 Hrs(IST) Sonali Sonali Sonali Singh Bisht

তৃণমূল কর্মীর মাথায় বন্দুক ঠেকিয়ে হাত পা ভেঙ্গে ফেলল তৃণমূলীরাই

By HindusthanSamachar | Publish Date: Apr 13 2019 9:00PM
তৃণমূল কর্মীর মাথায় বন্দুক ঠেকিয়ে হাত পা ভেঙ্গে ফেলল তৃণমূলীরাই
মাড়গ্রাম, ১৩ এপ্রিল (হি.স.) : অনৈতিক কাজের প্রতিবাদ করায় এক তৃণমূল কর্মীর মাথায় বন্দুক ঠেকিয়ে শাবল দিয়ে মারধর করা হয়েছে বীরভূমের মাড়গ্রামে। শনিবারের এই ঘটনায় অভিযোগের তির তৃণমূলের পঞ্চায়েত প্রধান এবং তার ছেলের বিরুদ্ধে। আহত তৃণমূল কর্মীর নাম শফিকুল শেখ। ঠিক যেন উল্টপুরাণ, যেখানে তৃণমূল কর্মী এবং অন্যান্য নেতানেত্রীদের বিরুদ্ধে বিরোধীরা অনৈতিক কাজের অভিযোগ তুলছেন, ঠিক তখনই দলেরই এক কর্মী অনৈতিক কাজের প্রতিবাদ করায় মার খেতে হল দলেরই অন্য কর্মীদের হাতে। মেরে ভেঙে ফেলা হয়েছে তার দুই হাত ও পা। ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে বীরভূমের মাড়গ্রামে। এমন ঘটনায় আবার সেই তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের প্রশ্নই এসেছে সামনে। যদিও এ বিষয়ে এখনও পর্যন্ত জেলা নেতৃত্বের কোনও মন্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে ভোটের আগে এমন ঘটনা অবশ্যই তৃণমূলের মাথা ব্যথার কারণ। আহত তৃণমূল কর্মী শফিকুল শেখের অভিযোগ, "আমি দীর্ঘদিন ধরে আমাদের এলাকার পঞ্চায়েত প্রধানের অনৈতিক কাজের প্রতিবাদ করে থাকি। সে কারণেই আজ কাজে যাওয়ার সময় আমাকে ডেকে মাথায় বন্দুক ঠেকিয়ে প্রাণে মারার চেষ্টা করা হয়। গুলিও করে কিন্তু সেটি লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। তারপর শাবল দিয়ে মেরে আমার দু''হাত ও দু''পা ভেঙে ফেলেছে।" আহত ওই তৃণমূল কর্মী অভিযোগ আঙ্গুল তুলেছেন ভুট্টু শেখ এবং শফি মিঞা দিকে। ভুট্টু শেখ মাড়গ্রাম দু''নম্বর পঞ্চায়েতের তৃণমূল নেতা। এছাড়াও অভিযোগ রয়েছে ভিক্টর শেখের বিরুদ্ধে, যিনি শফি মিঞার ছেলে। ঘটনার পর আহত ওই তৃণমূল কর্মীকে রামপুরহাট সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। মাড়গ্রাম থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে উদ্ধার করে নিয়ে আসে আহত ওই কর্মীকে। যদিও আহত ওই তৃণমূল কর্মীর বাবা জানিয়েছেন, পুলিশের তরফ থেকে এখনও কোনও পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়নি। তারা পুলিশের পদক্ষেপের দিকেই তাকিয়ে রয়েছেন। হিন্দুস্থান সমাচার/হেমাভ/শুভঙ্কর/
लोकप्रिय खबरें
फोटो और वीडियो गैलरी
image