Hindusthan Samachar
Banner 2 शुक्रवार, अप्रैल 19, 2019 | समय 07:55 Hrs(IST) Sonali Sonali Sonali Singh Bisht

ক্যানিংয়ে হিন্দু জাগরণ মঞ্চের উদ্যোগে পালিত হল রামনবমীর শোভাযাত্রা

By HindusthanSamachar | Publish Date: Apr 14 2019 7:23PM
ক্যানিংয়ে হিন্দু জাগরণ মঞ্চের উদ্যোগে পালিত হল রামনবমীর শোভাযাত্রা
ক্যানিং, ১৪ এপ্রিল (হি. স.) : সারা রাজ্যের সাথে সামঞ্জস্য রেখে অস্ত্র ছাড়াই ক্যানিং মহকুমার জুড়ে পালিত হল রামনবমীর শোভা যাত্রা। রবিবার বিশাল পুলিশি নিরাপত্তার ঘেরাটোপে শোভাযাত্রা বের হয় ক্যানিং মহকুমার ক্যানিং রেলওয়ে ষ্টেশন সংলগ্ন এলাকা থেকে। ক্যানিং ষ্টেশন এলাকা থেকে শুরু হয় বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা। প্রায় পনের হাজারের অধিক মানুষ এই শোভাযাত্রায় অংশ নেন। সমস্ত ধর্মের মানুষ পুরোপুরি অরাজনৈতিকভাবে এই বিশাল শোভাযাত্রায় পা মেলান। পরে শোভাযাত্রায় যোগ দেন অন্যান্য সম্প্রদায়ের মানুষজনও | অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে প্রশাসন ছিল খুবই তত্পার। মোতায়েন ছিল পর্যাপ্ত পরিমাণ পুলিশ। মিছিলে কোনও অস্ত্র দেখা যায়নি। উল্লেখ্য গত বছর থেকে রাজ্য জুড়ে রামনবমী পালন করা হচ্ছে বিভিন্ন অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে। সেই মতে রামনবমীর সকালে রাজনৈতিক লড়াই ভুলে ক্যানিং মহকুমার রাস্তা জুড়ে দেখা গেল বিভিন্ন সম্প্রদায়ের মানুষদের নিয়ে রামনবমীর বর্ণাঢ্য এই শোভাযাত্রা। এই শোভাযাত্রায় মহিলা, পুরুষ থেকে শুরু করে সামিল হয় কচিকাঁচারাও৷ জানা গেছে, রামনবমী উপলক্ষ্যে রাজ্য জুড়ে গত কয়েকদিন ধরেই চলছিল প্রস্তুতি৷ এদিনের শোভাযাত্রা ক্যানিং ষ্টেশন সংলগ্ন এলাকা থেকে বের হয়ে পুরো ক্যানিং শহর পরিক্রমা করে রায়বাঘিনী পর্যন্ত প্রায় পাঁচ কিলোমিটার পথ অতিক্রম করে। সমগ্র ক্যানিং শহর জুড়ে রাস্তাঘাট থেকে শুরু প্রায় সবকিছুই শুধুই গেরুয়া পতাকার মিছিলের ভীড়ে আচ্ছাদিত ছিল৷ রামনবমী উপলক্ষ্যে বিভিন্ন সুসজ্বিত ট্যাবলো সহকারে একটি বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রার আয়োজন করা হয়৷ এদিন প্রথমে রামচন্দ্রের পূজো করে এক বিশাল শোভাযাত্রা করা হয় যা সমগ্র ক্যানিং শহর পরিক্রমা করে। চৈত্রের প্রখর রৌদ্র কে উপেক্ষা করে এদিন সকল শ্রেণীর, সকল বয়সীর মানুষ রাম নবমীর শোভাযাত্রায় অংশ গ্রহণ করেন। সবার মুখে মুখে একটাই ধ্বনি, “জয় শ্রী রাম, জয় শ্রী রাম”। যেখানে সকল ধর্মের মানুষের পাশাপাশি সকল রাজনৈতিক দলের কর্মী-সমর্থকরা এই শোভাযাত্রায় পা মেলান। এদিন কুলাসহ মহিলাদের বাহিনী, সাধুদের বাহিনী, কীর্তনীয়া দল, বনবাসী নৃত্য দল, বাইক বাহিনী, ঢাকের দল, এবং শেষে রাম নাম গানের ডিজেতে রাম ভক্তদের নৃত্য ছিল অকল্পনীয়। “জয় শ্রীরাম\" ধ্বনিতে কেঁপে ওঠে সমগ্র ক্যানিং শহরের ভূমি। এদিন রামনবমীর মিছিলে বিশিষ্টদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ড. শ্যামা প্রসাদ মুখার্জী হেলথ মিশনের ফাউন্ডেশনের সম্পাদক সঞ্জয় কুমার নায়েক, ড. শ্যামা প্রসাদ মুখার্জী হেলথ মিশনের দক্ষিণ ২৪ পরগণা জেলা সভাপতি অজয় বায়েন, দক্ষিণ ২৪ পরগণা পূর্বজেলার যুব মোর্চার সহ সম্পাদক অসিত মন্ডল, হিন্দু জাগরণ মঞ্চের সুন্দরবন জেলার প্রচার প্রমূখ দুর্লভ মন্ডল, তরুণ ভুঁইয়া, প্রদীপ রায়, পার্থসারথী বড়াল, পঙ্কজ পাল, মানিকলাল দে সরকার সহ অন্যান্যরা। হিন্দুস্থান সমাচার/ প্রসেনজিত/ শ্রেয়সী
लोकप्रिय खबरें
फोटो और वीडियो गैलरी
image