Hindusthan Samachar
Banner 2 शुक्रवार, अप्रैल 19, 2019 | समय 06:15 Hrs(IST) Sonali Sonali Sonali Singh Bisht

গরমে কাহিল পয়লা বৈশাখ, স্বস্তি দিতে বুদবুদে সরবত খাওয়ালো ট্রাফিক পুলিশ

By HindusthanSamachar | Publish Date: Apr 15 2019 4:40PM
গরমে কাহিল পয়লা বৈশাখ, স্বস্তি দিতে বুদবুদে সরবত খাওয়ালো ট্রাফিক পুলিশ
দুর্গাপুর, ১৫ এপ্রিল (হি. স.) : চড়া রোদের ওপর ভ্যাপসা গরম। বৃষ্টির দেখা নেই। আর ওই গরমে কাহিল পয়লা বৈশাখ। বছরের প্রথমদিনে গরমের হাত থেকে স্বস্তি দিতে জলছত্র খুলে সরবত খাওয়াল পশ্চিম বর্ধমানের বুদবুদের ট্রাফিক পুলিশ। অস্বস্তিকর গরমে শিল্পাঞ্চলজুড়ে বাড়ছে আমশয়, পেটের রোগের। স্বস্তি পেতে বেশী করে জল পানের নিদান ডাক্তারবাবুদের। সোমবার ছিল পয়লা বৈশাখ। লোকসভা নির্বাচনকে ঘিরে রাজ্যজুড়ে রাজনৈতিক পারদ তুঙ্গে। তার ওপর বছরের শুরুতেই ভ্যাপসা গরমে নাজেহাল পথচলতি মানুষ। সকাল থেকে বাতাসে আদ্রতা বেশী থাকায় অস্বস্তিকর যেমন ছিল। তেমনই বেলা গড়াতেই চড়া রোদের তাপে তপ্ত হতে থাকে শিল্পাঞ্চল দুর্গাপুর। অন্যান্যদিনের মতো কারখানাগুলিতে শ্রমিকদের হাজিরা থাকলেও, বেলার দিকে বাজারঘাট ছিল একেবারেই ফাঁকা। এদিন দুর্গাপুর- পানাগড়ে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৪০ ডিগ্রির আশপাশে। তবে অনুভুতিটা ছিল ৪৪ ডিগ্রির মত। বেঙ্গল সুবর্বন চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি প্রফুল্ল ঘোষ জানান," এদিন বাঙালি ব্যাবসায়ীরা হালখাতা করে। প্রতিষ্ঠানে পুজো আর্চনা করে থাকে। বাঙালির এরা একটা উৎসব। তবে এদিন যেরকম রোদের তাপ, তেমনই অস্বস্তিকর গরম। সবমিলিয়ে হাঁসফাস জনজীবন।" মাস পয়লায় গরমে পথচলতি সাধারন মানুষকে স্বস্তি দিতে সরবত খাওয়ানোর উদ্যোগ নেয় বুদবুদ ট্রাফিক পুলিশ। এদিন সকাল থেকে বুদবুদ বাসস্ট্যান্ডে সরবত খাওয়ানো শুরু করে। অন্যদিকে দুর্গাপুর মহকুমাজুড়ে বাড়ছে গরমজনিত কারনে রোগের প্রদুর্ভাব। দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতালের সুপার দেবব্রত দাস জানান," গত কয়েকদিন ধরে ডিহাইডেশন, পেটের রোগের রোগী আসছে। সংখ্যাটা দৈনিক গড়ে ১২-১৫ জন। গরমের কারনে মুলত ওই রোগ। গরমে বেশী করে পরিশ্রুত জল খাওয়া জরুরী। ঠান্ডা রসাল ফল যেমন তরমুজ, শশা খাওয়া দরকার। রোদে না বেরনো ভাল। একান্তই বাইরে যেতে হলে মাথায় টুপি, ছাতা ব্যাবহার ছাড়াও মুখে ঢাকা নেওয়া দরকার।" হিন্দুস্থান সমাচার / জয়দেব
लोकप्रिय खबरें
फोटो और वीडियो गैलरी
image