Hindusthan Samachar
Banner 2 शुक्रवार, अप्रैल 19, 2019 | समय 08:25 Hrs(IST) Sonali Sonali Sonali Singh Bisht

নববর্ষে ফিউশন মিষ্টিতে মিষ্টিমুখ সারছে আমজনতা

By HindusthanSamachar | Publish Date: Apr 15 2019 7:14PM
নববর্ষে ফিউশন মিষ্টিতে মিষ্টিমুখ সারছে আমজনতা
কোলকাতা, ১৫ এপ্রিল (হি.স.): মিষ্টি আর নববর্ষ যেন একে অপরের প্রতিশব্দ| ছকে বাঁধা খাওয়ার নিয়ম ভুলে এই একটা দিন পেট পুরে মিষ্টি খায় বাঙালি| তাই নববর্ষের আগে রসেবশে থাকা বাঙালির জন্য এরকমই মিষ্টির সম্ভার নিয়ে এল মিষ্টি প্রস্তুতকারক সংস্থাগুলি। নতুন বছরের আগে তাই মানুষ ভিড় জমাচ্ছে মিষ্টির দোকানে। নতুন বছর শুরুই হচ্ছে ভোটের মরসুমে| তাই বিভিন্ন রাজনৈতিক চিহ্ন দেওয়া সন্দেশ দেদার বিকোচ্ছে ছোট–বড় মিষ্টির দোকানগুলিতে। এর পাশাপাশি রয়েছে বাদাম, চকলেট, ভ্যানিলা, মালাই সিঙাড়া, শচীন সহ আরও নানান ধরনের মিষ্টি| কেসি দাসের নতুন বছরে উপহার ঠান্ডাই–মালাই। মাটির পাত্রে রাখা ঠান্ডাই–মালাই গরমে তৃপ্তি দেবে আপনাকে। দোকানের কর্ণধার জানান, গরমের কথা ভেবেই এই মিষ্টি তৈরি করা হয়েছে। জিএসটি ছাড়া এই মিষ্টির দাম ৩০ টাকা। এছাড়াও কিছুটা চিত্রকূটের ধাঁচে তৈরি হয়েছে নববর্ষিকা। পয়লা বৈশাখে ‘‌বাদামি’ নিয়ে এল উত্তর কলকাতার নকুড়‌ চন্দ্র দাস। এই ‘‌বাদামি’কে দেখতে অর্ধেক ডিমের মতো।‌ ভেতরটা বাদামের টুকরোয় ঠাসা। ২৫ টাকায় একটা সন্দেশ। এছাড়াও রয়েছে ১৫ টাকার বাবু সন্দেশ। ২০ টাকার মনোহরা। ২৫ টাকার জলভরা সন্দেশ| এর সাথেই নতুনত্ব ফিউশনের ছোঁয়ায় তৈরি একই দামের চকোলেট জলভরা সন্দেশ। মালাই সিঙাড়া ৫০ টাকা ও শচীন ২৫ টাকা। মিষ্টির কথা উঠলেই এসে যায় বলরাম মল্লিক রাধারমণ মল্লিকের নাম। নববর্ষে তাদের উপহার বাদামিকা, মালাই বরফি। সংস্থার তরফে সুদীপ মল্লিক জানান, বাদামিকা, মালাই বরফি ৩০ টাকা। তবে নতুন প্রজন্মের বেশি পছন্দ ফিউশন মিষ্টি। তাই চকোলেট, স্ট্রবেরি স্বাদের মিষ্টি রাখতেই হচ্ছে। এছাড়াও রয়েছে পেস্তা দিয়ে তৈরি মিষ্টি ‘‌সৌরভ’‌, বেকড রসগোল্লা, ম্যাঙ্গো সুফলে, ক্ষীরকদম্ব।‌ পয়লা বৈশাখের চিরাচরিত সন্দেশ এই প্রথম জায়গা পেল হিন্দুস্থান সুইটসের মিষ্টির তালিকায়। দাম ২৬ টাকা। ভেষজ মিষ্টির জন্য খ্যাত এই সংস্থা তৈরি করেছে জিভে জল আনা অন্য স্বাদের মালপোয়া। এই মালপোয়া তৈরি হয়েছে ছানা আর ক্ষীর দিয়ে তাও আবার খাঁটি ঘিয়ে ভাজা। এছাড়াও নতুন মিষ্টির মধ্যে রয়েছে ছোট্ট কলসীর মধ্যে অমৃতকুম্ভ। ঘন দুধের তৈরি এই মিষ্টির স্বর্গীয় স্বাদ। দাম ২০ টাকা। দই অমৃতপয়ধী এক কেজি ৩৫০ টাকা। কিন্তু যারা ডায়বেটিসে ভুগছেন তাঁরা কি মিষ্টি খাবেন না? একদমই না| তাঁদের জন্যেও রয়েছে সুগার ফ্রি| সুগার ফ্রি দিয়ে তৈরি এত রকমারি মিষ্টি আর কোথাও পাওয়া যাবে না বলেই মনে করেন হিন্দুস্থান সুইটস‌–এর তরফে আর কে পাল। ভেষজ মিষ্টির চাহিদাও অটুট রয়েছে বলে জানান তিনি । যেমন এই গরমে তুলসী দই পুষ্টিতে ভরপুর। এছাড়াও সুগার ফ্রি দিয়ে তৈরি রসগোল্লা, পান্তুয়ার মতো সাবেকি মিষ্টি তো আছেই। হিন্দুস্থান সমাচার/মৌসুমী / কাকলি
लोकप्रिय खबरें
फोटो और वीडियो गैलरी
image