Custom Heading

ভবানীপুরে বিজেপি-র প্রচার ঘিরে উত্তেজনার জেরে গ্রেফতার ৮, সবারই জামিন
কলকাতা, ২৮ সেপ্টেম্বর (হি. স.) : ভবানীপুরে বিজেপি-র সভায় ঝামেলার ঘটনায় ৮ জনকে গ্রেফতার করল পুলিশ। প
ভবানীপুরে বিজেপি-র প্রচার ঘিরে উত্তেজনার জেরে গ্রেফতার ৮, সবারই জামিন


কলকাতা, ২৮ সেপ্টেম্বর (হি. স.) : ভবানীপুরে বিজেপি-র সভায় ঝামেলার ঘটনায় ৮ জনকে গ্রেফতার করল পুলিশ। পরে অবশ্য জামিন পেয়ে যান সকলে।

সোমবার ভবানীপুরে ভোটপ্রচারে গিয়ে বিক্ষোভের মুখে পড়েন দিলীপ ঘোষ। হেনস্থার অভিযোগ তোলেন তিনি। সিসি ক্যামেরা ফুটেজ দেখে এবং প্রত্যক্ষদর্শীদের বয়ানের ভিত্তিতে মঙ্গলবার সকালে ৮ জনকে গ্রেফতার করা হয়। এই ঘটনায় মঙ্গলবারই স্বতঃপ্রণোদিত মামলা দায়ের করে পুলিশ।

সূত্রের খবর, মামলায় দিলীপ ঘোষের নিরাপত্তারক্ষীদের পিস্তল বের করার বিষয়টি উল্লেখ করা হয়েছে। এছাড়া জানান হয়েছে, পুলিশের অনুমতি না নিয়ে মিছিল করেছেন বিজেপি সাংসদ। এই ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোনও পক্ষ অভিযোগ দায়ের করেনি। তবে পুলিশ স্বতঃপ্রণোদিত মামলা দায়ের করল।

লালবাজার সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই ঘটনায় অজ্ঞাতপরিচয়দের বিরুদ্ধে একাধিক ধারায় মামলা রুজু করে। তাদের বিরুদ্ধে হিংসা ছড়ানো, শারীরিক হেনস্থা ও হুমকি দেওয়ার অভিযোগ আনা হয়। যদিও সবকটি ধারাই জামিনযোগ্য। এরপর তল্লাশিতে নেমে ৮ ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেন আধিকারিকরা। এই ঘটনায় আর কারা যুক্ত জানতে তদন্ত চালাচ্ছেন লালবাজারের গোয়েন্দারা। বিরোধীদের দাবি, যে ভাবে দিলীপ ঘোষের ওপর আক্রমণ হয়েছে তাতে পুলিশ পদক্ষেপ না করলে কড়া পদক্ষেপ করতে পারত নির্বাচন কমিশন। সেক্ষেত্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত রাখার মতো সিদ্ধান্তও নিতে পারত তারা। তাই আগেভাগে ৮ জনকে গ্রেফতার করে সেই ঝুঁকি এড়ানোর পথে হাঁটল রাজ্য সরকার। দিলীপ ঘোষের সভায় ঘটনায় তৃণমূলের বিরুদ্ধে আগেই সরব হয়েছেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি সুকান্ত মজুমদার। তাঁর দাবি, হেরে যাওয়ার ভয়ে হামলা করছে বিজেপি। মঙ্গলবার পাল্টা দিয়েছেন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিমও। তিনি বলেন, "বিজেপি কে? খায় না মাথায় দেয়? ভবানীপুরে হার নিশ্চিত জেনে ভূমি তৈরি করছে। ওখানে বিজেপির কোনও সংগঠন নেই। ওদের পোলিং এজেন্টই নেই।" গোটা ঘটনায় নির্বাচন কমিশনের দ্বারস্থ হয়েছে বিজেপি। হিন্দুস্থান সমাচার/ অশোক


 rajesh pande