Custom Heading

প্রয়াত বরিষ্ঠ সাংবাদিক, কবি, লেখক করিমগঞ্জের নির্মল দাস
করিমগঞ্জ, ২৬ জানুয়ারি (হি.স.) : বরিষ্ঠ সাংবাদিক, কবি, লেখক তথা অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মচারী নির্মলকুম
No more senior journalist Nirmal Das of Karimganj


করিমগঞ্জ, ২৬ জানুয়ারি (হি.স.) : বরিষ্ঠ সাংবাদিক, কবি, লেখক তথা অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মচারী নির্মলকুমার দাস আর নেই। গতকাল মঙ্গলবার রাত প্ৰায় নয়টা নাগাদ করিমগঞ্জ জেলা সদর শহরে গাছকালীবাড়ি রোডে অবস্থিত নিজস্ব বাসভবনে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন তিনি। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৬৩। রেখে গিয়েছেন স্ত্রী, এক পুত্র, এক কন্যা সহ অসংখ্য গুনমুগ্ধ।

করিমগঞ্জের বাসিন্দা নির্মলকুমার দাসের প্রয়াণে করিমগঞ্জ সহ সমগ্র বরাক উপত্যকায় তাঁর পরিচিতি মহলে গভীর শোকের ছায়া নেমে এসেছে। প্রয়াত নির্মলকুমার দাস করিমগঞ্জ জেলা পরিষদের একজন বরিষ্ঠ করণিক হিসেবে অবসর গ্রহণ করলেও, সাংবাদিকতা এবং লেখালেখি জগতের সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িত ছিলেন। প্রয়াত নির্মল দাস প্রথমে লেখালেখির কাজ শুরু করেন করিমগঞ্জ থেকে প্রকাশিত সাপ্তাহিক পত্রিকা ‘যুগশক্তি’-তে। এর পর তিনি শিলচর থেকে প্রকাশিত ‘সোনার কাছাড়’, গুয়াহাটির ‘সময় প্রবাহ’, এবং শিলচরের ‘সাময়িক প্রসঙ্গ’ পত্রিকার সঙ্গে জড়িত হন।

প্রয়াত দাস চলচ্চিত্র আন্দোলনের সঙ্গেও সরাসরি জড়িত ছিলেন। তিনি ঋত্বিজ সিনে আর্ট সোসাইটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ছিলেন। ৭২-এর ভাষা আন্দোলনেও একজন বিশ্বস্ত সৈনিক হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন তিনি। সাংবাদিকতার পাশাপাশি তিনি নিয়মিত সাহিত্যচর্চাও করতেন। করিমগঞ্জের প্রায় প্রতিটি সামাজিক কাজকর্মের সঙ্গে নিজেকে জড়িয়ে রাখতেন প্রয়াত নির্মলবাবু। বরাক উপত্যকা বঙ্গ সাহিত্য ও সংস্কৃতি সম্মেলনের সঙ্গেও তিনি দীর্ঘদিন জড়িত ছিলেন। বরাকবঙ্গের উপর একটি গ্রন্থ‌ও লিখে গেছেন প্রয়াত নির্মলকুমার দাস। তাঁর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশের পাশাপাশি শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেছেন বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের কর্মকর্তা সহ বিভিন্ন দলের রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ।

হিন্দুস্থান সমাচার / জন্মজিৎ / সমীপ


 rajesh pande