Custom Heading

চাকরিপ্রার্থীদের কথা শুনতে নির্দেশ রেলমন্ত্রীর, জনগণের সম্পত্তি নষ্ট না করারও আর্জি
নয়াদিল্লি, ২৬ জানুয়ারি (হি.স.): রেলওয়ে রিক্রুটমেন্ট বোর্ডের নন-টেকনিক্যাল পপুলার ক্যাটেগরির গ্রুপ ডি
আর্জি


নয়াদিল্লি, ২৬ জানুয়ারি (হি.স.): রেলওয়ে রিক্রুটমেন্ট বোর্ডের নন-টেকনিক্যাল পপুলার ক্যাটেগরির গ্রুপ ডি কর্মচারী নিয়োগের অনিয়মের অভিযোগ ঘিরে উত্তাল হল বিহারের গয়া স্টেশন। আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয় ট্রেনে, বিক্ষোভ প্রশমনে অকুস্থলে পুলিশ পৌঁছলে শুরু হয় ব্যাপক ইটবৃষ্টি। গুরুতর আহত হন দুই পক্ষের বেশ কয়েকজন। এই ঘটনায় রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণ সমস্ত নির্দেশ দিয়েছেন, চাকরিপ্রার্থীদের উদ্বেগের কথা শুনতে হবে সমস্ত আরআরবি চেয়ারম্যানকে। বুধবার সাংবাদিক সম্মেলন করে রেলমন্ত্রী বলেছেন, "সমস্ত আরআরবি চেয়ারম্যানদের প্রার্থীদের উদ্বেগের কথা শুনতে হবে, তাঁদের বক্তব্য শোনার পর তা কমিটিতে পাঠাতে বলা হয়েছে। এই উদ্দেশ্যে একটি ইমেল এড্রেস তৈরি করা হয়েছে। কমিটি দেশের বিভিন্ন স্থানে গিয়ে অভিযোগ শুনবে।"

রেলমন্ত্রী আরও বলেছেন, চাকরি প্রার্থীরা ১৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত কমিটির কাছে নিজেদের অভিযোগ জমা দিতে পারবেন। কমিটি অভিযোগগুলি খতিয়ে দেখবে এবং ৪ মার্চের আগে নিজেদের সুপারিশ জমা দেবে।" ট্রেনে আগুন লাগিয়ে দেওয়ার ঘটনায় রেলমন্ত্রী বলেছেন, দয়া করে নিজেদের সম্পত্তি নষ্ট করবেন না। রেলমন্ত্রীর কথায়, আমি সকলের কাছে অনুরোধ করছি আপনারা আইন নিজেদের হাতে নেবেন না। আমরা তাঁদের উত্থাপিত অভিযোগ এবং উদ্বেগগুলি গুরুত্ব সহকারে সমাধান করব।"

উল্লেখ্য, গত কয়েকদিন ধরে বিহারে রেলওয়ে রিক্রুটমেন্ট বোর্ডের নন-টেকনিক্যাল পপুলার ক্যাটাগরির গ্রুপ ডি কর্মচারী নিয়োগের পরীক্ষার ফলাফলে অনিয়মের অভিযোগে বিক্ষোভ শুরু হয়। তবে সাধারণতন্ত্র দিবসে তা পৌঁছল এক অন্যমাত্রায়। বুধবার দুপুর থেকে কার্যত রণক্ষেত্রের চেহারা নেয় গয়া স্টেশন। আন্দোলনকারীদের অভিযোগ, ২০১৯ সালে বিজ্ঞপ্তি জারি হলেও এ পর্যন্ত দ্বিতীয় পর্যায়ের পরীক্ষা নিয়ে কিচ্ছু জানানো হয়নি। প্রথম পরীক্ষার ফলাফলও কেউ হাতে পাননি।

হিন্দুস্থান সমাচার। রাকেশ।


 rajesh pande