Custom Heading

'নন্দন'-এ ছবির মুক্তির বিতর্কে মুখর দিলীপ ঘোষ, বললেন রথী-মহারথীদের অপমান করা হচ্ছে
কলকাতা, ১৪ মে (হি.স.): “তৃণমূলের আমলে নন্দনে আলাদা হিসেব নিকেশ হচ্ছে। নন্দনে ‘অপরাজিত’-র প্রদর্শনী
'নন্দন'-এ ছবির মুক্তির বিতর্কে মুখর দিলীপ ঘোষ, বললেন রথী-মহারথীদের অপমান করা হচ্ছে


কলকাতা, ১৪ মে (হি.স.): “তৃণমূলের আমলে নন্দনে আলাদা হিসেব নিকেশ হচ্ছে। নন্দনে ‘অপরাজিত’-র প্রদর্শনী না হওয়া প্রসঙ্গে এমন মন্তব্য করলেন পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি-র প্রাক্তন সভাপতি দিলীপ ঘোষ।য়তাঁর অভিযোগ, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে বড় করে দেখাতে গিয়ে পুরনো দিনের রথী-মহারথীদের অপমান করা হচ্ছে।

শনিবার ইকোপার্কে প্রাতঃর্ভ্রমণে বেরিয়ে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হন দিলীপ। সেখানে তিনি বলেন, আমি জানি না কী রাজনীতি চলছে ওখানে। দলের লোকেদের ছবিই প্রকাশ করতে দেওয়া হচ্ছে না! সাংসদ দেবের সঙ্গেও এই ধরনের ঘটনা ঘটেছে। এ ভাবে শিল্প-সাহিত্য-কাব্যকে কলুষিত করা হচ্ছে।

নন্দনে অনীক দত্ত পরিচালিত ''অপরাজিত'' ছবির প্রদর্শন না হওয়া নিয়ে বিতর্ক দেখা দিয়েছে। যে নন্দনের নামকরণই সত্যজিৎ রায়ের হাতে, সেই সত্যজিৎকে নিয়ে তৈরি ছবি কেন নন্দনে জায়গা পেল না, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে সব মহল থেকে। তার মধ্যে রয়েছেন ''অপরাজিত''র অভিনেত্রী তথা শাসকদল তৃণমূলের নেত্রী সায়নী ঘোষও। নন্দন কর্তৃপক্ষর এই সিদ্ধান্ত কোনও ভাবেই মেনে নেওয়া যায় না বলে জানিয়েছেন তিনি।

শনিবার তা নিয়েই মুখ খুললেন দিলীপবাবু। সর্বত্র শুধু তৃণমূল নেত্রী মমতার নামগান চলছে বলে মন্তব্য করে দিলীপবাবু বলেন, নেতাজির নামাঙ্কিত মহাজাতি সদনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি লাগানো হয়ে গেল। তিনিও মনীষীর পর্যায়ে চলে গেলেন। বাংলা আকাদেমির পুরস্কার পাওয়াও হয়ে গেল। পরবর্তী নোবেল পুরস্কারের জন্যও নাম পাঠানো হবে। কাদের মর্যাদা দেওয়া হচ্ছে! আগের লোকজনকে ছোট করা হচ্ছে, নাকি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে বড় করা হচ্ছে!

হিন্দুস্থান সমাচার/ অশোক


 rajesh pande