ফের গ্রামবাসীদের বিক্ষোভের মুখে রাজ্যের মন্ত্রী
উত্তর ২৪ পরগনা, ২৪ জানুয়ারি (হি. স.) : বিক্ষোভের মুখে ফের ‘দিদির দূত’। মঙ্গলবার বসিরহাটের স্বরূপনগর
ফের গ্রামবাসীদের বিক্ষোভের মুখে রাজ্যের মন্ত্রী


উত্তর ২৪ পরগনা, ২৪ জানুয়ারি (হি. স.) : বিক্ষোভের মুখে ফের ‘দিদির দূত’। মঙ্গলবার বসিরহাটের স্বরূপনগর গোকুলপুর গ্রামে বিক্ষোভের মুখে পড়লেন রাজ্যের সেচমন্ত্রী পার্থ ভৌমিক এবং উত্তর ২৪ পরগনা জেলার সভাপতি তথা স্বরূপনগরের বিধায়ক বীণা মণ্ডল।

মঙ্গলবার ‘দিদির দূত’ হিসেবে মন্ত্রী এবং বিধায়ক বাড়ি বাড়ি জনসংযোগ করতে গেলেই গ্রামবাসীরা তাঁদের উপর ক্ষোভ উগরে দেন। স্থানীয়দের অভিযোগ, ভোট এসেছে ভোট গিয়েছে। কিন্তু কোনও নেতা-মন্ত্রী প্রতিশ্রুতি রাখেননি। ঘরের তালিকায় নাম থাকা সত্ত্বেও আবাস যোজনা থেকে এখনও বঞ্চিত তাঁরা। এখনও পর্যন্ত ঘর পাননি বলেও জানান তাঁরা।

এদিন পার্থ ভৌমিক বলেন, আপনারা কেন্দ্রীয় সরকারের উজ্জ্বলা প্রকল্পের আয়ত্তাধীন। আপনাদের বাড়িতে উজ্জ্বলা গ্যাস আছে। যে কারণে ঘর পাচ্ছেন না। বিজেপি সরকার যতই গরিব মানুষের কথা বলুক না কেন, তাঁদের জন্য কিছুই ভাবে না। পক্ষান্তরে বাংলাকে বঞ্চিত করা হচ্ছে। পাশাপাশি গরিবদের পাশে বিজেপি সরকার আছে বলে বারবার যারা বলছে, তারা আসলে গরিব মানুষদের ভাতে মারার চেষ্টা করছে।

এদিকে আমডাঙার বেড়াবেড়ি পঞ্চায়েত এলাকায় ‘দিদির সুরক্ষা কবচ’ কর্মসূচিতে গিয়ে বেড়াবেড়িয়া ভাগীরথ আদর্শ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের ক্ষোভের মুখে দিদির দূত বিধায়ক রফিকুর রহমান। রাস্তা সারানো এবং স্কুল সংক্রান্ত বিষয় নিয়েই এই ক্ষোভ প্রকাশ।

প্রসঙ্গত, জেলায় জেলায় শুরু হয়েছে দিদির সুরক্ষা কবচ কর্মসূচি। এই কর্মসূচিতে গিয়ে দিদির দূতদের বিভিন্ন জায়গায় বিক্ষোভের মুখে পড়তে হচ্ছে।পঞ্চায়েত নির্বাচন যতই এগিয়ে আসছে, ততই বাড়ছে রাজনৈতিক চাপানউতোর।

হিন্দুস্থান সমাচার/ অশোক




 

 rajesh pande