পানাগড়ে স্টেশনকে অমৃতভারত প্রকল্পে পুনর্গঠনের জন্য ভার্চুয়ালি ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন প্রধানমন্ত্রীর
দুর্গাপুর, ২৬ ফেব্রুয়ারি (হি. স.) : দুয়ারে কড়া নাড়ছে লোকসভা ভোট। তার আগে পানাগড় অমৃতভারত স্টেশনের ভ
পানাগড়ে স্টেশনকে অমৃতভারত প্রকল্পে পুনর্গঠনের জন্য ভার্চুয়ালি ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন প্রধানমন্ত্রীর


দুর্গাপুর, ২৬ ফেব্রুয়ারি (হি. স.) : দুয়ারে কড়া নাড়ছে লোকসভা ভোট। তার আগে পানাগড় অমৃতভারত স্টেশনের ভার্চুয়ালি শিলান্যাস করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সোমবার পানাগড় স্টেশনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সাংসদ সুরিন্দর সিং আলুওয়ালিয়া।

প্রসঙ্গত,এদিন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ৪১ হাজার কোটি টাকার ২ হাজারের বেশি রেল প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন, উদ্বোধন এবং জাতির উদ্দেশ্যে উৎসর্গ করেন। একইসঙ্গে ৫৫৩ টি অমৃত ভারত রেলওয়ে স্টেশনের পুনর্গঠন এবং ১৫০০ সড়ক উড়ালপুল ও আন্ডারপাস এর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন ও জাতির উদ্দেশ্যে উৎসর্গ করেন। এছাড়াও আধুনিকমানের গোমতি নগর রেলওয়ে স্টেশনের উদ্বোধন করেন। উল্লেখ্য, দেশের ১৩০৯ স্টেশনকে অমৃত ভারত স্টেশন’ প্রকল্পে পুনর্গঠন করার উদ্যোগ নিয়েছে ভারতীয় রেল। দ্বিতীয় দফায় পূর্ব রেলওয়ের ২৮টি স্টেশনকে নবরূপে সাজিয়ে তোলার উদ্যোগ নিয়েছে। সেগুলির মধ্যে পশ্চিমবঙ্গে ১৭টি স্টেশন রয়েছে। তার মধ্যে রয়েছে পানাগড় স্টেশন। 'অমৃত ভারত স্টেশন' প্রকল্পের আওতায় পানাগড় স্টেশনকে ঢেলে সাজানো হবে। যা পূর্ব রেলের আসানসোল ডিভিশনের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ স্টেশন। পানাগড়ে রয়েছে দেশের বায়ুসেনা ঘাঁটি ও সেনাছাউনী। দুই বর্ধমান জেলার একাংশ ছাড়াও দামোদর তীরবর্তী বাঁকুড়া জেলার সোনামুখী ব্লকের একাংশ নির্ভরশীল। স্বাভাবিকভাব যথেষ্ট গুরুত্বপুর্ন পানাগড় স্টেশন। এছাড়া হাওড়া - আসানসোল শাখার এই স্টেশনে সবথেকে বেশী ট্রেনের স্টপেজ রয়েছে।

গত একবছরে নতুন করে ছ'টি ট্রেনের স্টপেজ হয়েছে। পূর্ব রেলের তরফে জানানো হয়েছে, পানাগড় স্টেশনের উন্নয়নের জন্য ১৫ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। অমৃতভারত প্রকল্পে স্টেশনকে খোলনলচে বদলে ফেলা হবে। বাতানুকুল বিশ্রামাগার, স্বচ্ছ শৌচাগার। যাত্রী স্বাচ্ছন্দের জন্য প্লাটফর্মে থাকবে এক্সেলেটার ও লিফট। এদিন ওই কাজের জন্য ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এদিন পানাগড় স্টেশনে উপস্থিত ছিলেন বর্ধমান- দুর্গাপুরের সাংসদ সুরিন্দর সিং আলুওয়ালিয়া।

এদিন তিনি জানান, ওই এলাকার মানুষ দাবী জানিয়েছিল। সাধারন মানুষের সুবিধার্থে, রেলমন্ত্রক থেকে বিভিন্ন ট্রেনের স্টপেজের পাশাপাশি যাত্রী স্বাচ্ছন্দ্যের জন্য স্টেশনটি আধুনিকমানের তৈরীর ব্যাবস্থা করা হয়েছে। তাতে প্রচুর মানুষ উপকৃত হবে। তিনি আরও বলেন, পানাগড় বাজারে সিলামপুর রোডের ওপর ওভারব্রীজের অনুমোদন হয়েছে। খুব শীঘ্রই কাজ শুরু হবে।

হিন্দুস্থান সমাচার / জয়দেব




 

 rajesh pande