হাটশিঙিমারি জেলা হাসপাতালে সদ্যজাত সন্তান বদলের অভিযোগ
হাটশিঙিমারি (অসম), ১১ জুন (হি.স.) : দক্ষিণ শালমারা-হাটশিঙিমারি জেলা সদরে অবস্থিত হাটশিঙিমারি জেলা হা
হাটশিঙিমারি জেলা হাসপাতালে সদ্যজাত সন্তান বদলের অভিযোগ


হাটশিঙিমারি (অসম), ১১ জুন (হি.স.) : দক্ষিণ শালমারা-হাটশিঙিমারি জেলা সদরে অবস্থিত হাটশিঙিমারি জেলা হাসপাতালে সদ্যজাত এক শিশুসন্তান বদল করার গুরুতর অভিযোগ তুলেছেন খোদ প্রসূতি।

উত্থাপিত অভিযোগকে কেন্দ্র করে গতকাল সোমবার রাতে জেলা হাসপাতালের পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। এক সময় পুলিশের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হয়।

অভিযোগ, জনৈক শিলপিনা বেগম নামের প্ৰসূতি সোমবার সকালের দিকে হাটশিঙিমারি জেলা হাসপাতালে একটি পুত্রসন্তানের জন্ম দিয়েছিলেন। সন্তান প্রসবের পর প্ৰসূতি শিলপনা বেগমের কোলে পুত্রসন্তানের বদল একটি কন্যাসন্তান তুলে দেওয়া হয়েছে।

একই অভিযোগ করেছেন ওই ওয়ার্ডের অন্য এক প্ৰসূতি। তিনি বলেন, শিলপিনা বেগম পুত্রসন্তান জন্ম দিয়েছিলেন, কিন্তু একজন নার্স তার কোলে একটি কন্যা সন্তান এনে দিয়েছেন।

এদিকে হাসপাতালের সুপারিনটেনডেন্ট ডা. সামসুল হক জানিয়েছেন, গতকাল সকালের দিকে এই হাসপাতালে মোট তিন প্ৰসূতির গৰ্ভপাতের পাশাপাশি দুই প্ৰসূতি পুত্রসন্তান এবং এজন কন্যাসন্তান জন্ম দিয়েছেন। ডা. সামসুল হক জানান, নবজাতক কন্যাসন্তানটি শিলপিনা বেগমেরই। কন্যাসন্তানের জন্মদাত্রী শিলপিনা যে অভিযোগ করছেন তা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন।

অন্যদিকে স্থানীয়দের কাছে জানা গেছে, হাটশিঙিমারি জেলা হাসপাতালে নবজাতক বদলের ঘটনা আগেও সংগঠিত হয়েছে। তাই এবার শিলপিনা বেগম যে অভিযোগ তুলেছেন তা অমূলক না-ও হতে পারে। কেননা, এই হাসপাতালের নবজাতক শিশুসন্তান বিক্ৰির অভিযোগে ইতিমধ্যে দুই নার্সকে জেলে যেতে হয়েছে।

হিন্দুস্থান সমাচার / কিশোর / সমীপ / অরবিন্দ




 

 rajesh pande