এনটিএ-কে নোটিশ সুপ্রিম কোর্টের, কাউন্সেলিং প্রক্রিয়ায় স্থগিতাদেশ দিল না সর্বোচ্চ আদালত
নয়াদিল্লি, ১১ জুন (হি.স.): পেপার ফাঁসের অভিযোগের মধ্যে নতুন করে মেডিক্যালের স্নাতকে ভর্তির যোগ্যতা ন
এনটিএ-কে নোটিশ সুপ্রিম কোর্টের, কাউন্সেলিং প্রক্রিয়ায় স্থগিতাদেশ দিল না সর্বোচ্চ আদালত


নয়াদিল্লি, ১১ জুন (হি.স.): পেপার ফাঁসের অভিযোগের মধ্যে নতুন করে মেডিক্যালের স্নাতকে ভর্তির যোগ্যতা নির্ণায়ক পরীক্ষা ন্যাশনাল এলিজিবিলিটি কাম এন্ট্রান্স টেস্ট আন্ডার গ্র্যাজুয়েট (নিট ইউজি)-পরীক্ষা নেওয়ার আবেদনের ভিত্তিতে সুপ্রিম কোর্ট মঙ্গলবার ন্যাশনাল টেস্টিং এজেন্সি (এনটিএ)-কে নোটিশ জারি করেছে। সুপ্রিম কোর্ট পর্যবেক্ষণে বলেছে, পরীক্ষার পবিত্রতা প্রভাবিত হয়েছে বলে মনে হচ্ছে, তাই এনটিএ-এর কাছ থেকে উত্তর পাওয়া দরকার। তবে, কাউন্সেলিং প্রক্রিয়া স্থগিত করতে রাজি হয়নি সুপ্রিম কোর্ট।

চলতি বছরের নিটের ফল প্রকাশিত হয়েছে গত ৪ জুন। দেশের লোকসভা নির্বাচন ফল যে দিন প্রকাশিত হয়েছে, সে দিনই নিটের ফল প্রকাশ করে এনটিএ। নিটের ফল প্রকাশিত হওয়ার পর থেকেই বিতর্ক শুরু হয়েছে। অভিযোগ, বড়সড় দুর্নীতি হয়েছে এ বারের নিটে। আগে থেকে পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস হয়ে গিয়েছিল বলেও দাবি করেছেন অনেকে। নিটের ফলে প্রথম অসঙ্গতি র‌্যাঙ্ক বিভাজন। এ বারের পরীক্ষায় মোট ৬৭ জন প্রথম হয়েছেন। অর্থাৎ, তাঁদের সকলের অল ইন্ডিয়া র‌্যাঙ্ক ১। যা এই পরীক্ষার ইতিহাসে প্রথম। গত দু’বছরের নিটে প্রথম স্থান অধিকার করেছিলেন দুই থেকে তিন জন। সেখানে এ বারে একসঙ্গে ৬৭ জন প্রথম হওয়ায় শুরুতেই খটকা লাগে। এর আগে পর্যন্ত নিটে প্রথম স্থান অধিকার করেছিলেন সর্বোচ্চ চার জন।

শুধু প্রথম স্থান অধিকার করাই নয়, এই ৬৭ জনেরই প্রাপ্ত নম্বর ৭২০-র মধ্যে ৭২০। অর্থাৎ, তাঁরা ১০০ শতাংশ নম্বরই পেয়েছেন। একটি প্রশ্নের উত্তরও ভুল করেননি। এখানেই শেষ নয়, প্রশ্ন উঠেছে নিটের ফলপ্রকাশের দিন নিয়েও। কারণ এই ফল প্রকাশিত হওয়ার কথা ছিল আগামী ১৪ জুন। কেন তড়িঘড়ি নির্ধারিত সময়ের ১০ দিন আগে ফলপ্রকাশ করা হল, তা নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে।

হিন্দুস্থান সমাচার। রাকেশ।




 

 rajesh pande