Custom Heading

দৃশ্যমানতা একেবারে তলানিতে, দিল্লি ও এনসিআর-এর বাতাস এখনও দূষিত
নয়াদিল্লি, ২৫ নভেম্বর (হি.স.): অদ্ভুত ধরনের ধোঁয়াশা কাটছেই না দিল্লির বাতাস থেকে। ধোঁয়াশার জন্য তলান
বাতাস এখনও দূষিত


নয়াদিল্লি, ২৫ নভেম্বর (হি.স.): অদ্ভুত ধরনের ধোঁয়াশা কাটছেই না দিল্লির বাতাস থেকে। ধোঁয়াশার জন্য তলানিতে পৌঁছে যাচ্ছে দৃশ্যমানতা। স্পষ্টভাবে কিছুই দেখা যাচ্ছে না, শ্বাসকষ্ট তো রয়েছেই। বৃহস্পতিবার সকালে একেবারে ধোঁয়াশার চাদর ঢাকা ছিল দিল্লির অক্ষরধাম মন্দির। দূষণের কবলে ছিল দিল্লির সরাই কালে খান এলাকা। দৃশ্যমানতা কম থাকায় এদিন ভোরে হেডলাইট জ্বালিয়ে চলাচল করেছে যানবাহন। নানা ধরনের প্রচেষ্টা সত্ত্ব্বেও দূষণ-মুক্ত হচ্ছেই না দিল্লি।

‘সিস্টেম অব এয়ার কোয়ালিটি অ্যান্ড ওয়েদার ফোরকাস্টিং অ্যান্ড রিসার্চ’ জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার সকালে দিল্লির বাতাসে দূষণ-সূচক ছিল ৩৩৯, যা খুবই খারাপ। কেন্দ্রীয় দূষণ নিয়ন্ত্রণ বোর্ডের তথ্য অনুযায়ী, সকাল ৯টা নাগাদ দিল্লির এয়ার কোয়ালিটি ইন্ডেক্স ছিল ৩৯০। বায়ুদূষণের মাত্রা কমছেই না দিল্লিতে, ফলে চিন্তায় পরিবেশবিদেরা। দিল্লির পাশাপাশি এদিন দূষণের কবলে ছিল রাজধানী সংলগ্ন পঞ্জাব, হরিয়ানা ও উত্তর প্রদেশের বিভিন্ন শহর। এদিন দূষণের কবলে ছিল ফরিদাবাদ, গাজিয়াবাদ, গুরুগ্রাম ও নয়ডা। এদিন দিল্লির সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ৯.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এয়ার কোয়ালিটি ইনডেক্স বা একিউআই যদি শূন্য থেকে ৫০-এর মধ্যে থাকে, তা হলে তা ভাল। ৫১ থেকে ১০০ হলে, তা সন্তোষজনক, ১০১ থেকে ২০০ পর্যন্ত সহনীয়। ২০১ থেকে ৩০০ খারাপ, ৩০১ থেকে ৪০০ খুব খারাপ এবং ৪০১ থেকে ৫০০ হল গুরুতর।

হিন্দুস্থান সমাচার। রাকেশ।


 rajesh pande