Custom Heading

ভারত-পাক সীমান্ত থেকে পাঁচ কেজি আইইডি ও এক লাখ টাকা পাওয়া গেছে
ব্যাগটি দুই দিন ধরে আটারি সীমান্তবর্তী গ্রামের সংযোগ সড়কে পড়ে ছিল - নিরাপত্তা সংস্থাকে সতর্ক, সীম
ভারত-পাক সীমান্ত থেকে পাঁচ কেজি আইইডি ও এক লাখ টাকা পাওয়া গেছে


ব্যাগটি দুই দিন ধরে আটারি সীমান্তবর্তী গ্রামের সংযোগ সড়কে পড়ে ছিল

- নিরাপত্তা সংস্থাকে সতর্ক, সীমান্ত গ্রামে জিজ্ঞাসাবাদ

চণ্ডীগড়, ১৪ জানুয়ারি (হি.স.) : পাঞ্জাব পুলিশের এসটিএফ একটি অনুসন্ধান অভিযান চালিয়ে ভারত-পাক সীমান্ত সংলগ্ন গ্রাম থেকে পাঁচ কেজি আইইডি এবং এক লক্ষ টাকা নগদ উদ্ধার করেছে। এই ব্যাগটি গত দুই দিন ধরে পাকিস্তান সীমান্তের খুব কাছে পড়ে ছিল। পুলিশ সন্দেহ করছে, পাকিস্তানি দিক থেকে একটি ড্রোন দিয়ে এই বিস্ফোরকটি ফেলা হয়েছিল। নিরাপত্তা সংস্থাগুলোকে সতর্ক করা হয়েছে এবং কিছু সন্দেহভাজনকে হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

অমৃতসর থেকে আটারি যাওয়ার রাস্তায় ধানোয়া গ্রামে বাবা গুলাব শাহের দরগার কাছে রাস্তার ধারে তিনটি বালির বস্তা পড়ে আছে। প্রত্যক্ষদর্শীদের মতে, কৃষকরা জমিতে জল বন্ধ করার জন্য এসব একত্র করেছিল। আজ সকালে গ্রামবাসীরা পুলিশকে জানায় যে এই ব্যাগের মধ্যে একটি ব্যাগ পড়ে আছে, যাতে একটি টিফিনকৌটার মত জিনিস ছিল। খবর পাওয়া মাত্রই ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে এসটিএফ, পাঞ্জাব পুলিশের দল। প্রায় নয় ঘণ্টাব্যাপী অভিযানের পর এখানে একটি ব্যাগে প্রায় পাঁচ কেজি আইইডি ও এক লাখ টাকা মূল্যের নগদ উদ্ধার করা হয়।

ঘটনাস্থলে পৌঁছে এসটিএফের এআইজি রচপাল সিং বলেছেন, এটি একটি অত্যন্ত মারাত্মক বিস্ফোরক ছিল। এটি বিস্ফোরণে ব্যবহার করা হলে, এটি পুলওয়ামা হামলার চেয়ে কম হতো না। এসটিএফের কাছে এমন তথ্য ছিল যে নির্বাচনের আগে পাকিস্তান ভারতীয় ভূখণ্ডে অস্ত্র সরবরাহ করতে পারে। তিনি বলেন, পুরো এলাকা সিল করে তল্লাশি অভিযান চালানো হচ্ছে।

প্রাথমিক তদন্তে এমন ক্লু পাওয়া গেছে যে এই বিস্ফোরকটি ড্রোনের সাহায্যে ফেলেছে পাকিস্তান। তিনি বলেন, কার মাধ্যমে এই বিস্ফোরক পাঞ্জাবে পৌঁছে দেওয়ার কথা ছিল তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তবে নিরাপত্তা সংস্থাগুলোকে সতর্ক করা হয়েছে। সীমান্তবর্তী গ্রামগুলোতে লোকজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

হিন্দুস্থান সমাচার / কাকলি


 rajesh pande